বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > কিশোরীকে যৌন নির্যাতন করে ক্ষতবিক্ষত করার অভিযোগ যুবকের বিরুদ্ধে
বৃহস্পতিবার রাতভর নির্জন জায়গায় কিশোরীর ওপর যৌন নির্যাতন চালায় ওই যুবক। ছবি প্রতীকি

কিশোরীকে যৌন নির্যাতন করে ক্ষতবিক্ষত করার অভিযোগ যুবকের বিরুদ্ধে

  • উপহার কিনে দেওয়ার নামে নিয়ে গিয়ে কিশোরীকে যৌন নির্যাতনের অভিযোগ উত্তর ২৪ পরগনার মাটিয়ায়

পিসতুতো দিদির বাড়িতে বেড়াতে গিয়ে যৌন নির্যাতনে রক্তাক্ত হল ১১ বছরের এক কিশোরী। বৃহস্পতিবার রাতে উত্তর ২৪ পরগনার মাটিয়া থানার ঘটনা। গুরুতর জখম ওই কিশোরীর যোনিতে অস্ত্রোপচার করেছেন চিকিৎসকরা। আপাতত NRS হাসপাতালের ক্রিটিক্যাল কেয়ার ইউনিটে ভর্তি রয়েছে সে। ঘটনায় কিশোরীর পিসতুতো দিদি ও অভিযুক্ত যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

পুলিশ সূত্রে খবর, কিশোরী মাটিয়া থানা এলাকার নেহালপুরের বাসিন্দা। বৃহস্পতিবার মাটিয়ায় পিসতুতো দিদির বাড়িতে বেড়াতে গিয়েছিল সে। সেখানে তার সঙ্গে এক যুবকের পরিচয় করায় দিদি। এর পর কিশোরীকে উপহার কিনে দেওয়ার নাম করে মোটরসাইকেলে করে নিয়ে যায় যুবক। এর পর সারা রাত কিশোরীর খোঁজ পাওয়া যায়নি। খোঁজ পাওয়া যায়নি শাহ আলি নামে ওই যুবকের। শুক্রবার সকালে মাটিয়া থানায় নিখোঁজ ডায়েরি করে পরিবার। এর কিছুক্ষণের মধ্যে ফাঁকা মাঠে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার হয় কিশোরী। তাকে উদ্ধার করে প্রথমে স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করে পুলিশ। পরিস্থিতির অবনতি হলে কলকাতার রাধাগোবিন্দ কর মেডিক্যাল কলেজে স্থানান্তরিত করা হয় তাকে।

সেখানে কিশোরীর চিকিৎসায় গঠিত হয় ৪ সদস্যের মেডিক্যাল বোর্ড। সঙ্গে সঙ্গে কিশোরীর যোনিতে অস্ত্রোপচারের সিদ্ধান্ত নেন তাঁরা। প্রায় ৩ ঘণ্টার অস্ত্রোপচারের পর তাঁকে ক্রিটিক্যাল কেয়ার ইউনিটে স্থানান্তরিত করা হয়েছে।

পুলিশকে কিশোরী জানিয়েছে, উপহার কিনে দেওয়ার নাম করে তাঁকে নির্জন জায়গায় নিয়ে যায় ওই যুবক। এর পর তাঁকে নগ্ন করে যৌন নির্যাতন শুরু করে। যার জেরে রক্তাক্ত হয়েছে তাঁর যোনি। এই ঘটনায় অভিযুক্ত শাহ আলি ও পিসতুতো দিদিকে গ্রেফতার করেছে মাটিয়া থানার পুলিশ। এই ঘটনার সঙ্গে মাটিয়া যৌনপল্লির নারীপাচারকারীদের কোনও যোগ রয়েছে কি না খতিয়ে দেখছেন তদন্তকারীরা। 

 

বন্ধ করুন