বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > মাত্র ৪.৫ লাখে সরকারি চাকরি! শ্রীঘরে প্রতারক
ধৃত সোমনাথ দত্ত।
ধৃত সোমনাথ দত্ত।

মাত্র ৪.৫ লাখে সরকারি চাকরি! শ্রীঘরে প্রতারক

  • এর পর বনগাঁ থানায় সোমনাথ ও প্রদীপের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেন তিনি। ঘটনার পর থেকে গা ঢাকা দেয় ২ অভিযুক্ত।

পূর্ত দফতরে চাকরি পাইয়ে দেওয়ার নামে ৪.৫ লক্ষ টাকা হাতানোর অভিযোগে এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করল বনগাঁ থানার পুলিশ। সোমনাথ দত্ত নামে ওই যুবককে নদিয়ার বগুলা থেকে গ্রেফতার করেছে বনগাঁ থানার পুলিশ।

বনগাঁ স্টেশন রোডের বাসিন্দা শান্তনু সাধুর অভিযোগ, পূর্ত দফতরে চাকরি দেওয়ার নাম করে তাঁর কাছে ৪.৫ লক্ষ টাকা দাবি করেন সোমনাথ দত্ত ও প্রদীপ চৌধুরী নামে ২ যুবক। সেই মতো ওই টাকা তাঁদের হাতে তুলে দেন তিনি। কিছুদিন পর তাঁর হাতে এসে পৌঁছয় নিয়োগপত্র। নবান্নের প্যাডে সেই নিয়োগপত্রে ছিল সরকারি আধিকারিকের সই ও সিল। সেই নিয়োগপত্র নিয়ে চাকরিতে যোগদান করতে গেলে তাঁর কাছে আরও ৫ লক্ষ টাকা দাবি করেন সোমনাথ। তখনই খটকা লাগে শান্তনুর। খোঁজ খবর করে তিনি জানতে পারেন নিয়োগপত্রটি ভুয়ো।

এর পর বনগাঁ থানায় সোমনাথ ও প্রদীপের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেন তিনি। ঘটনার পর থেকে গা ঢাকা দেয় ২ অভিযুক্ত। শনিবার রাতে নদিয়ার হাঁসখালি থানা এলাকার বগুলা মধ্যপাড়া থেকে সোমনাথকে গ্রেফতার করে বনগাঁ থানার পুলিশ। রবিবার তাঁকে আদালতে পেশ করা হলে বিচারক ৮ দিনের পুলিশ হেফাজতের নির্দেশ দিয়েছেন।

সম্প্রতি নদিয়া ও লাগোয়া উত্তর ২৪ পরগনায় চাকরি দেওয়ার নাম করে একাধিক প্রতারণার অভিযোগ এসেছে। বিজেপির দাবি, এই সব প্রতারণাচক্রের সঙ্গে যুক্ত স্থানীয় তৃণমূল নেতারা। তাদের প্রভাবেই সব জেনেও প্রতারকদের ধরতে পারে না পুলিশ। নদিয়া জেলা লাগোয়া বনগাঁ থানার ঘটনায় অবশ্য উলটোটাই ঘটল। নদিয়ায় গিয়ে অভিযুক্তকে গ্রেফতার করল বনগাঁ থানার পুলিশ।

 

বন্ধ করুন