ফাইল ছবি
ফাইল ছবি

কোয়ারেন্টাইন সেন্টার তৈরি নিয়ে বিবাদ, গ্রামবাসীদের হামলায় পা ভাঙল ওসির

  • খবর পেয়ে আরও বাহিনী নিয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছন জামুড়িয়া থানার ওসি সুব্রত ঘোষ। তাঁকেও আক্রামণ করে উন্মত্ত গ্রামবাসীরা।

কোয়ারেন্টাইন সেন্টার তৈরি নিয়ে গ্রামবাসীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষে রণক্ষেত্রের চেহারা নিল আসানসোলের চুরুলিয়া গ্রাম। দল বেঁধে রড – ইট নিয়ে গ্রামবাসীরা পুলিশের ওপর হামলা চালায় বলে অভিযোগ। এমনকী বোমা ও গুলি ছোড়া হয় বলেও খবর মিলেছে। রডের আঘাত পা ভেঙেছে জামুড়িয়া থানার ওসির। তাঁকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

জামুড়িয়া থানা এলাকার চুরুলিয়া গ্রামে একটি কোয়ারেন্টাইন সেন্টার তৈরি নিয়ে গত কয়েকদিন ধরেই বিরোধিতা করছিলেন গ্রামবাসীরা। সংক্রমণ ছড়ানোর আশঙ্কায় তারা কোয়ারেন্টাইন সেন্টার অন্য জায়গায় সরানোর দাবি জানিয়ে আসছিলেন। মঙ্গলবার পয়লা বৈশাখের সকালে সেই বিক্ষোভ চরমে পৌঁছয়। পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছলে তাদের লক্ষ্য করে শুরু হয় ইটবৃষ্টি। লোহার রড ও বাঁশ নিয়ে পুলিশের ওপর চড়াও হন একদল গ্রামবাসী।

খবর পেয়ে আরও বাহিনী নিয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছন জামুড়িয়া থানার ওসি সুব্রত ঘোষ। তাঁকেও আক্রামণ করে উন্মত্ত গ্রামবাসীরা। রড দিয়ে মারধর করা হয় তাঁকে। যার জেরে সুব্রতবাবুর পা ভেঙে যায়। তাঁকে উদ্ধার করে রানিগঞ্জের একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ঘটনায় কমবেশি প্রায় ২৪ জন পুলিশকর্মী আহত হয়েছেন বলে জানা গিয়েছে। এর মধ্যে কয়েকজন মহিলা পুলিশকর্মীও রয়েছেন বলে খবর।

ঘটনার পর গ্রামে বসেছে পুলিশ পিকেট। হামলাকারীদের চিহ্নিত করে গ্রেফতারির জন্য চলছে তল্লাশি। কোয়ারেন্টাইন সেন্টার তৈরি নিয়ে রাজ্যে প্রশাসনের সঙ্গে গ্রামবাসীদের বিবাদ নতুন নয়। গত কয়েকদিন ধরেই বিভিন্ন জেলা থেকে বিক্ষোভ, আবরোধ ও হিংসার খবর মিলেছে।



বন্ধ করুন