বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > বিনা প্রতিদ্বন্দিতায় জয়ী হয়েছেন ২ বার, ত্রাসের পরিবেশ কায়েম করেছিলেন রাজু সাহানি
রাজু সাহানি।

বিনা প্রতিদ্বন্দিতায় জয়ী হয়েছেন ২ বার, ত্রাসের পরিবেশ কায়েম করেছিলেন রাজু সাহানি

  • জানা গিয়েছে ২০১১ সালে রাজ্যে তৃণমূল সরকার প্রতিষ্ঠিত হওয়ার সময় হালিশহরে ছিল বামেদের বোর্ড। ২০১৩ সালে হঠাৎ পদত্যাগ করে তৃণমূলে যোগদান করেন বাম কাউন্সিলররা। তৈরি হয় তৃণমূলের বোর্ড।

শুক্রবার রাতে চিটফান্ডকাণ্ডে শুক্রবার রাতেই গ্রেফতার হয়েছেন হালিশহর পুরসভার পুরপ্রধান রাজু সাহানি। স্থানীয়দের দাবি, গত প্রায় ১ দশক ধরে গোটা হালিশহরে ত্রাসের পরিবেশ কায়েম করে রেখেছিলেন এই রাজু। জমি দখল থেকে শুরু করে খুনের হুমকি, কোনও কিছুই বাদ দেয়নি সে। এলাকার বাসিন্দাদের মুখেই উঠে আসছে সে তথ্য।

জানা গিয়েছে ২০১১ সালে রাজ্যে তৃণমূল সরকার প্রতিষ্ঠিত হওয়ার সময় হালিশহরে ছিল বামেদের বোর্ড। ২০১৩ সালে হঠাৎ পদত্যাগ করে তৃণমূলে যোগদান করেন বাম কাউন্সিলররা। তৈরি হয় তৃণমূলের বোর্ড। সেই পুরবোর্ডের উপ পুরপ্রধান ছিলেন রাজু সাহানির বাবা লক্ষ্মণ সাহানি। এর কয়েক বছরের মধ্যে লক্ষ্মণবাবুর মৃত্যু হলে বাবার আসন থেকে বিনা প্রতিদ্বন্দিতায় জেতেন রাজু সাহানি। এর পর পুরপ্রধান হন তিনি। ২০১৯ সালে অর্জুন সিং বিজেপিতে যোগদান করলে দলবদল করেন রাজু। বিধানসভা নির্বাচনের আগে আবার তৃণমূলে ফেরেন তিনি। ফের পুরপ্রধানের পদে বসেন। গত পুরসভা নির্বাচনে হালিশহর পুরসভার ২০ নম্বর ওয়ার্ড থেকে বিনা প্রতিদ্বন্দিতায় জেতেন তিনি।

মুম্বই ATS-এর অভিযানে ডায়মন্ড হারবার থেকে গ্রেফতার ২ আল কায়দা জঙ্গি

বিরোধীদের অভিযোগ, গত ১০ বছর ধরে এলাকায় কার্যত সন্ত্রাসের পরিবেশ কায়েম করে রেখেছিলেন রাজু সাহানি ও তাঁর ভাইয়েরা। গঙ্গার তীরে একের পর এক জমি দখল করেছেন তাঁরা। তেমনই একটি জমিতে তৈরি হয়েছে রাজুর রিসর্ট। বাবা মায়ের মৃত্যুর পর পুরনো বাড়িতে তালা দিয়ে এই রিসর্টেই থাকেন রাজু।

 

বন্ধ করুন