বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > কেন উত্তরবঙ্গকে কেন্দ্রশাসিত রাজ্যের প্রস্তাব? এখনও দাবিতে অনড় জন বারলা
মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং জন বার্লা (ফাইল ছবি)
মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং জন বার্লা (ফাইল ছবি)

কেন উত্তরবঙ্গকে কেন্দ্রশাসিত রাজ্যের প্রস্তাব? এখনও দাবিতে অনড় জন বারলা

  • মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ইতিমধ্যেই এনিয়ে তীব্র হুঁশিয়ারি দিয়েছেন

উত্তরবঙ্গকে কেন্দ্রশাসিত রাজ্য করার প্রস্তাবের বিরুদ্ধে ইতিমধ্যেই দলের অবস্থান স্পষ্ট করার চেষ্টা করেছেন রাজ্য বিজেপি নেতৃত্ব। উত্তরবঙ্গের বিজেপি নেতৃত্বের অনেকেই রাজ্য বিজেপির সুরেই সুর মেলাচ্ছেন। কিন্তু আলিপুরদুয়ারের বিজেপি সাংসদ জন বারলা অবশ্য এখনও উত্তরবঙ্গকে পৃথক রাজ্যের বা কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল করার দাবিতে অনড়। শনিবার আলিপুরদুয়ার চৌপথি এলাকায় নিজের সাংসদ কার্যালয়ের উদ্বোধনে এসে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে ফের তিনি এনিয়ে মুখ খোলেন। জন বার্লার দাবি, দেশের গুরুত্বপূর্ন এই চিকেন নেক এলাকাকে সুরক্ষিত করতে হবে। এই সমস্ত কারণেই উত্তরবঙ্গকে আলাদা রাজ্য অথবা কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল ঘোষণার দাবি উঠেছে। তিনি জানিয়েছেন, এই সব দাবি উত্তরবঙ্গের সাধারণ নাগরিকদের। এদিকে জন বারলার এই বক্তব্য়কে ঘিরে ফের দলের অন্দরে জলঘোলা শুরু হয়েছে। সূত্রের খবর, জন বারলা সহ বিজেপির একাধিক সাংসদ গোটা বিষয়টি নিয়ে বিজেপির রাজ্য ও কেন্দ্রীয় নেতৃত্বকে বোঝানোর চেষ্টা করবেন। পাশাপাশি তাঁরা এব্যাপারে প্রধানমন্ত্রী ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছেও প্রস্তাব রাখবেন।

স্থানীয় সূত্রে খবর, সম্প্রতি জলপাইগুড়িতে এনিয়ে আলোচনা হয়েছিল। এরপরই বিজেপি সাংসদ জন বারলা একটি নেপালি সংবাদ মাধ্যমে এই প্রস্তাবের সমর্থনে মুখ খোলেন। এরপর থেকেই শোরগোল পড়ে যায় বিভিন্ন মহলে। বিজেপির অনেকেই এনিয়ে আপত্তি তুলেছেন। তবে এখনও দাবি থেকে কার্যত সরছেন না বিজেপি সাংসদ। এবার জাতীয় নিরাপত্তার কথা তুলে তিনি এই প্রস্তাবের সমর্থনের কথা বলছেন। প্রসঙ্গত একটা সময় চা বাগানের সঙ্গেই যুক্ত ছিলেন জন বারলা। ২০০৭ সালে তিনি অখিল ভারতীয় আদিবাসী বিকাশ পরিষদের সঙ্গে যুক্ত হন। সেই সময় ডুয়ার্সের নানা আন্দোলনে তিনি নেতৃত্ব দিতেন। এরপর ২০১৪ সালে তিনি বিজেপিতে যোগ দেন।

 

বন্ধ করুন