বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > কুলটিতে ECL কর্মী খুনে গ্রেফতার স্ত্রী, একা সম্পত্তি ভোগ করতে দিয়েছিলেন সুপারি
ধৃত মঙ্গলি মারান্ডি ও অন্য অভিযুক্তরা।
ধৃত মঙ্গলি মারান্ডি ও অন্য অভিযুক্তরা।

কুলটিতে ECL কর্মী খুনে গ্রেফতার স্ত্রী, একা সম্পত্তি ভোগ করতে দিয়েছিলেন সুপারি

  • পুলিশের দাবি, জেরায় মঙ্গলি জানিয়েছেন, স্বামীর সঙ্গে তাঁর সম্পর্ক ভালো ছিল না। স্বামী সব সময় নেশা করে থাকতেন। তাঁর হাতে টাকা পয়সা দিতেন না। তাই স্বামীকে সরিয়ে একা তাঁর সম্পত্তি ভোগ করার পরিকল্পনা করেন তিনি।

আসানসোলে খনিকর্মী খুনে স্ত্রীকে গ্রেফতার করল পুলিশ। ধৃত মঙ্গলি মারান্ডি সুপারি কিলার দিয়ে স্বামীকে খুন করিয়েছেন বলে দাবি পুলিশের। এই ঘটনায় নিহতের স্ত্রী ছাড়াও ৪ জনকে গ্রেফতার করেছেন গোয়েন্দারা। পুলিশের দাবি, স্বামীর সম্পত্তি একা ভোগ করার লোভেই তাঁকে খুন করিয়েছেন মঙ্গলি।

গত সোমবার কুলটির তুলসিহিরে গ্রামের বাসিন্দা ইসিএল কর্মী পরেশ মারান্ডিকে গুলি করে খুন করে দুষ্কৃতীরা। তদন্তে নেমে পুলিশ জানতে পারে পরেশবাবুর সঙ্গে তেমন ভালো সম্পর্ক ছিল না স্ত্রীর মঙ্গলির। এর পর তাঁকে জেরা শুরু করেন গোয়েন্দারা। জেরায় স্বামীকে খুনের কথা স্বীকার করেন স্ত্রী। জানান সুপারি কিলার দিয়ে স্বামীকে খুন করিয়েছেন তিনি।

পুলিশের দাবি, জেরায় মঙ্গলি জানিয়েছেন, স্বামীর সঙ্গে তাঁর সম্পর্ক ভালো ছিল না। স্বামী সব সময় নেশা করে থাকতেন। তাঁর হাতে টাকা পয়সা দিতেন না। তাই স্বামীকে সরিয়ে একা তাঁর সম্পত্তি ভোগ করার পরিকল্পনা করেন তিনি।

স্বামীকে খুন করতে বিহারের ২ দুষ্কৃতী ভিকি নুনিয়া ও সন্দীপ নুনিয়ার সঙ্গে যোগাযোগ করেন। মোট ২.৫ লক্ষ টাকায় রফা হয়। খুনের বরাত বাবদ ২০ হাজার টাকা আগাম দেন তাঁদের। এর পর ভিকি ও সন্দীপ বিশাল পাসোয়ান নামে এক সুপারি কিলারের সঙ্গে যোগাযোগ করে। গত সোমবার সেই পরেশ মারান্ডিকে খুন করে।

ঘটনার তদন্তে নেমে খুনে ব্যবহৃত আগ্নেয়াস্ত্র, একটি মোটরসাইকেল ও একটি স্কুটার বাজেয়াপ্ত করেছে পুলিশ। সুপারি কিলার বিশাল পাসোয়ানের খোঁজে তল্লাশি চালাচ্ছেন কুলটি থানার আধিকারিকরা।

 

বন্ধ করুন