ফাইল ছবি
ফাইল ছবি

করোনাভাইরাস আতঙ্কের মধ্যেই স্কুল কার্যত বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিল সাউথ পয়েন্ট

সাউথ পয়েন্টের জুনিয়র ও সিনিয়র বিভাগ মিলিয়ে প্রায় ১২,৫০০ ছাত্রছাত্রী পড়াশুনো করেন। স্কুলের তরফে জানানো হয়েছে ২ বিভাগেই বন্ধ থাকবে পড়ুয়াদের প্রগতি রিপোর্ট বিতরণ।

করোনাভাইরাস নিয়ে সতর্কতা গ্রহণ করে বার্ষিক পরীক্ষার ফলঘোষণা পিছিয়ে দিল সাউথ পয়েন্ট স্কুল। শুক্রবার স্কুলের তরফে এক বিবৃতিতে একথা জানানো হয়েছে। বিবৃতিতে বলা হয়েছে, খুব গুরুত্বপূর্ণ কারণ ছাড়া স্কুলে ছাত্রছাত্রীদের পাঠানোর দরকার নেই।

ইতিমধ্যে করোনাভাইরাসকে মহামারি ঘোষণা করে ৩১ মার্চ পর্যন্ত রাজ্যের সমস্ত স্কুল বন্ধ রাখার কথা ঘোষণা করেছে দিল্লি সরকার। কিন্তু সেপথে হাঁটেনি নবান্ন। রাজ্যের নির্দেশিকার ওপর ভরসা না করে কার্যত নিজেদের সিদ্ধান্তে স্কুল বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিল সাউথ পয়েন্ট কর্তৃপক্ষ। জানানো হয়েছে, স্থগিত করা হয়েছে স্কুলের বার্ষিক অনুষ্ঠানও।

সাউথ পয়েন্টের জুনিয়র ও সিনিয়র বিভাগ মিলিয়ে প্রায় ১২,৫০০ ছাত্রছাত্রী পড়াশুনো করেন। স্কুলের তরফে জানানো হয়েছে ২ বিভাগেই বন্ধ থাকবে পড়ুয়াদের মার্ক শিট বিতরণ। তৃতীয়, চতুর্থ, পঞ্চম, ষষ্ঠ, সপ্তম ও অষ্টম শ্রেণির খাতা দেখানোও স্থগিত করা হয়েছে। ২১ মার্চ বিদ্যালয়ের বার্ষিক অনুষ্ঠানও স্থগিত হয়েছে।

পড়ুয়াদের সুস্বাস্থ্যের কথা ভেবেই তারা এই সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে বলে জানিয়েছে সাউথ পয়েন্ট কর্তৃপক্ষ।


বন্ধ করুন