বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > ‘‌মুখ্যমন্ত্রী চাইছেন বাংলার সবাই অশিক্ষিত হোন’‌, গরমের ছুটি নিয়ে তোপ দিলীপের
বিজেপির সর্বভারতীয় সহ–সভাপতি দিলীপ ঘোষ।

‘‌মুখ্যমন্ত্রী চাইছেন বাংলার সবাই অশিক্ষিত হোন’‌, গরমের ছুটি নিয়ে তোপ দিলীপের

  • সরকারি স্কুলগুলিতে গত ২ মে থেকে গরমের ছুটি ঘোষণা করে দেওয়া হয়েছে। বেসরকারি স্কুলে অফলাইনে ক্লাস চালু ছিল। এই পরিস্থিতিতে জটিলতা শুরু হতেই বেসরকারি স্কুলগুলির ক্ষেত্রেও নির্দেশিকা জারি করে শিক্ষা দফতর। সেখানে বলা হয়েছে, সরকারি নির্দেশিকা মেনে চলতে হবে। আর তা নিয়েই এখন শুরু হয়ে গিয়েছে রাজনীতি।

সরকারি স্কুলে গরমের ছুটি পড়ে গিয়েছে। রাজ্য সরকার সেই নির্দেশ জারি করেছে। এই আগাম পড়ুয়াদের ছুটি দেওয়া নিয়ে রাজনীতি শুরু হয়ে গিয়েছে। তীব্র গরমে পড়ুয়ারা যাতে অসুস্থ হয়ে না পড়ে তাই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সিদ্ধান্ত নেন সরকারি–বেসরকারি সব স্কুল বন্ধের। বেসরকারি স্কুলগুলি তা মানায় জারি হয়েছে কড়া নির্দেশিকা। যা নিয়েই এবার মুখ্যমন্ত্রীকে কটাক্ষ করলেন দিলীপ ঘোষ।

ঠিক কী বলেছেন বিজেপির সর্বভারতীয় সহ–সভাপতি?‌ আজ, শুক্রবার নিউটাউনে প্রাতঃভ্রমণ সেরে তিনি সাংবাদিকদের বেসরকারি স্কুলে ছুটি নিয়ে বলেন, ‘‌উনি (মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়) শিক্ষাব্যবস্থা চালাতে পারছেন না। যারা চালাচ্ছে উনি তাদেরও চালাতে দিচ্ছেন না। উনি চাইছেন বাংলার সবাই অশিক্ষিত হোন। যাদের সামর্থ্য আছে তারা বেসরকারি স্কুলে ছেলেমেয়েদের পড়ান। যারা দু’‌বছর বেতন দিয়েছেন স্কুলে, সেখানে বন্ধ করার কোনও কারণই নেই।’‌

স্কুলশিক্ষা দফতরের পক্ষ থেকে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, শুক্রবার থেকে সব বেসরকারি স্কুলকে বন্ধ করতে হবে অফলাইন ক্লাস। এই নিয়ে বেসরকারি স্কুলগুলিও ছুটি দেওয়ার পথে হাঁটতে শুরু করেছে। তারা সিদ্ধান্ত নিয়েছে ছুটি দিলেও চালু থাকবে অনলাইন ক্লাস। বাড়ি থেকে পড়ুয়ারা ক্লাস করবে। তবে এই নিয়ে ধোঁয়াশা রয়েছে। কতগুলি স্কুল এখনই গরমের ছুটি দেবে।

উল্লেখ্য, সরকারি স্কুলগুলিতে গত ২ মে থেকে গরমের ছুটি ঘোষণা করে দেওয়া হয়েছে। বেসরকারি স্কুলে অফলাইনে ক্লাস চালু ছিল। এই পরিস্থিতিতে জটিলতা শুরু হতেই বেসরকারি স্কুলগুলির ক্ষেত্রেও নির্দেশিকা জারি করে শিক্ষা দফতর। সেখানে বলা হয়েছে, সরকারি নির্দেশিকা মেনে চলতে হবে। আর তা নিয়েই এখন শুরু হয়ে গিয়েছে রাজনীতি।

বন্ধ করুন