বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > বউবাজারে ভাঙা পড়বে অমর্ত্য সেনের বাড়ি, বিপজ্জনক ঘোষণা করেছে পুরসভা
বউবাজারে মেট্রোর কাজের জেরে একের পর এক ফাটল। (PTI Photo) (PTI)

বউবাজারে ভাঙা পড়বে অমর্ত্য সেনের বাড়ি, বিপজ্জনক ঘোষণা করেছে পুরসভা

  • এই বাড়ির ঠিকানা ১৫ নম্বর দুর্গা পিতুরি লেন। বাড়ির ছেলে অর্মত্য সেন। ১৮৮৮ সাল থেকে এখানে বসবাস করছেন সেন পরিবার। কেএমআরসিএলের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, পুরসভার সম্মতি মিললে বাড়ি ভাঙা হবে। তিনি নিজেই জিনিসপত্র সরিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন।

বউবাজারের এই বাড়িটিকে বিপজ্জনক বলে ঘোষণা করেছে কলকাতা পুরসভা। এখানেই মেট্রো রেলের কাজের জন্য ফাটল দেখা দিয়েছে একাধিক বাড়িতে। এবার তার জেরে ভাঙা পড়তে পারে অর্মত্য সেনের বাবার বাড়ি। তাই আশঙ্কা থেকেই বাড়ির জিনিসপত্রও অন্যত্র সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। এখন কেএমআরসিএলের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, পুরসভার সম্মতি মিললে বাড়ি ভাঙা হবে।

বিষয়টি ঠিক কী ঘটেছে?‌ স্থানীয় সূত্রে খবর, এই বাড়ির ঠিকানা ১৫ নম্বর দুর্গা পিতুরি লেন। বাড়ির ছেলে অর্মত্য সেন। বাবা বিমলকুমার সেন ও কাকা অর্জুন সেনের নামে বাড়ি। পৈতৃক ভিটেতে অর্মত্যবাবু এসেছিলেন। তিনি নিজেই জিনিসপত্র সরিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন। দুর্গা পিতুরি লেনের এই বাসিন্দা আড়াই বছর ধরে গড়িয়াহাটে থাকেন। ২০১৯ সালের পর থেকেই তাঁরা ঘরছাড়া। তবে ইনি নোবেলজয়ী অর্থনীতিবিদ অমর্ত্য সেন নন।

ঠিক কী বলেছেন অমর্ত্য সেন?‌ এখানের ভিটে নিয়ে তিনি বলেন, ‘‌বাড়ি ভাঙা হবে খবর পেলাম। কিন্তু এই কথা বাবাকে জানালে আর বাঁচানো যাবে না। হাওড়ায় এক আত্মীয়ের বাড়িতে আছেন তিনি। অক্সিজেন দিতে হয়। এই বাড়ি ভাঙার খবর যাতে তিনি জানতে না পারেন তাই টিভিটা সরিয়ে দেওয়া হয়েছে ঘর থেকে।’‌

উল্লেখ্য, ১৮৮৮ সাল থেকে এখানে বসবাস করছেন সেন পরিবার। এখন অমর্ত্যবাবুর বাবা–মা দু’জনেই হাওড়ায় থাকেন। ২০১৯ সালে বউবাজারের বাড়িতে যখন ফাটল ধরেছিল তখন থেকেই শোক নিতে পারেননি তাঁরা। ৬ বার হাসপাতালে ভর্তি করতে হয়েছিল। তখন থেকেই তাঁরা হাওড়াতে থাকেন। কেএমআরসিএল জিএম একে নন্দী বলেন, ‘‌১৫ নম্বর দুর্গা পিতুরি লেনের বাড়িটিও বিপজ্জনক। পুরসভা জানালেই আমরা ভাঙব।’‌

বন্ধ করুন