বাড়ি > বাংলার মুখ > কলকাতা > মমতার দ্বারা হবে না, আরও সেনা পাঠান, মোদীকে চিঠি লিখলেন অধীর
ফাইল ছবি
ফাইল ছবি

মমতার দ্বারা হবে না, আরও সেনা পাঠান, মোদীকে চিঠি লিখলেন অধীর

  • তবে রাজ্যের সহমতির ভিত্তিতে প্রধানমন্ত্রীকে পদক্ষেপ করতে অনুরোধ করেছেন তিনি।

আমফান বিধ্বস্ত পশ্চিমবঙ্গকে স্বাভাবিক করতে প্রধানমন্ত্রীর কাছে ত্রাণ ও উদ্ধারকাজে আরও সেনা মোতায়েনের আবেদন জানালেন বহরমপুরের সাংসদ তথা লোকসভায় কংগ্রেসের দলনেতা অধীররঞ্জন চৌধুরী। মঙ্গলবার এই মর্মে প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি দিয়েছেন তিনি। তবে রাজ্যের সহমতির ভিত্তিতে প্রধানমন্ত্রীকে পদক্ষেপ করতে অনুরোধ করেছেন অধীর। 

অধীরবাবু লিখেছেন, ‘আমফানের বিপর্যয় পশ্চিমবঙ্গে ভয়াবহ পর্যায়ে গিয়েছে। যার কোনও উন্নতি হচ্ছে না। বিপর্যস্ত এলাকায় খাদ্য ও ত্রাণ অপর্যাপ্ত। বিস্তীর্ণ এলাকায় সমুদ্রের নোনা জল ঢুকে পড়েছে। যার ফলে খাবার জলের সংকট দেখা দিয়েছে। তার ওপর জলে ভাসছে পশুর মৃতদেহ। যার ফলে সংক্রমণ ছড়ানোর আশঙ্কা তৈরি হয়েছে। বিধ্বস্ত এলাকার ব্যাপক অংশে এখনো বিদ্যুৎ ফেরেনি। এমনকী কলকাতাতেও বহু জায়গা বিদ্যুৎহীন। যার ফলে কোটি কোটি মানুষ দুর্বিষহ জীবন যাপন করছে। তাও আবার প্রবল দাবদাহের মধ্যে। সাত দিন ধরে বিদ্যুৎ না থাকায় গুরুতর অসুস্থ ব্যক্তিদের অবস্থা আরও শোচনীয়।’

প্রধানমন্ত্রীকে অধীররঞ্জন চৌধুরীর চিঠি
প্রধানমন্ত্রীকে অধীররঞ্জন চৌধুরীর চিঠি

অধীরবাবুর দাবি, ‘পরিস্থিতি মোকাবিলায় রাজ্য প্রশাসন চরম ব্যর্থ। তাই আপনার কাছে আমার অনুরোধ, রাজ্য সরকারের সহমতির ভিত্তিতে পশ্চিমবঙ্গ ও বিশেষ করে কলকাতায় স্বাভাবিক অবস্থা ফেরাতে আরও সেনা পাঠান।’

বলে রাখি, গত বুধবার রাতে পশ্চিমবঙ্গের ওপর দিয়ে বয়ে যায় ঘূর্ণিঝড় আমফান। ঘণ্টায় ১৫০ কিলোমিটার বেগে ঝড়ের তাণ্ডবে শুধু কলকাতা শহরেই ভেঙে পড়েছে ৫,০০০ গাছ। বহু জায়গায় ৬ দিন পরেও ফেরেনি বিদ্যুৎ। জল ও বিদ্যুতের দাবিতে জায়গায় জায়গায় বিক্ষোভ দেখাচ্ছেন মানুষজন। পরিস্থিতি মোকাবিলায় শনিবার বিকেল থেকে নেমেছে সেনা। কলকাতা ও লাগোয়া এলাকায় গাছ কেটে রাস্তা পরিষ্কার করছে তারা। কাজ করছে NDRF-ও। 

বন্ধ করুন