বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > ‘দু'বছরেও হয়নি কাজ’, টক-টু-মেয়রে মেজাজ হারিয়ে ফিরহাদ বললেন, ‘আমায় পদ ছাড়তে হবে’
ফিরহাদ হাকিম।

‘দু'বছরেও হয়নি কাজ’, টক-টু-মেয়রে মেজাজ হারিয়ে ফিরহাদ বললেন, ‘আমায় পদ ছাড়তে হবে’

  • এক ব্যক্তি টক-টু মেয়রে ফোন করে বলেন, গত দু’বছর ধরে অভিযোগ করেও সুরাহা মেলেনি। এই অভিযোগ শুনে আধিকারিকদের উপর রেগে যান ফিরহাদ।

টক-টু-মেয়র অনুষ্ঠানে মেজাজ হারালেন মেয়র ফিরহাদ হাকিম। পুরনিগমের আধিকারিকদের উদাসীনতায় চটে মেয়রের পদ ছাড়ার হুমকি পর্যন্ত দিয়ে ফেলেন ফিরহাদ। উল্লেখ্য, শনিবার টক-টু-মেয়র অনুষ্ঠানে বিটি রোডের এক বাসিন্দা ফোন করেছিলেন নিজের সমস্যার কথা জানাতে। বাসিন্দার অভিযোগ, সাউথ সিঁথি রোড থেকে রবীন্দ্রভারতী বিশ্ববিদ্যালয় বরাবর নিকাশি নালা আটকে রয়েছে৷ তবে গত দু’বছর ধরে অভিযোগ করেও সুরাহা মেলেনি। এই অভিযোগ শুনে আধিকারিকদের উপর রেগে যান ফিরহাদ।

মেয়রকে বিটি রোডের বাসিন্দা বলেন, ‘গত বছর দু'বার ফোন করেও সমস্যার সমাধান হয়নি। সাউথ সিঁথি রোড থেকে রবীন্দ্রভারতী বিশ্ববিদ্যালয় বরাবর নিকাশি নালা আটকে রয়েছে৷ ফলে আমাদের অ্যাপার্টমেন্ট থেকে জল বেরোচ্ছে না। কিন্তু এখনও এই সমস্যার সমাধান হয়নি৷ সিঁথির মোড় থেকে বিড়লা ইন্সটিটিউট অফ টেকনোলজি পর্যন্ত গোটা নিকাশি নালা বুজে রয়েছে। মশা মাছির উপদ্রব হচ্ছে।’

অভিযোগ শুনেই ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের ডিজি পিকে দুয়াকে মেয়র বলেন, ‘১ নম্বর বরো কি করছে? এটা ছোটখাটো ব্যাপার। বরো দেখে নেবে, তারপর জানাবে ড্রেনেজ ডিপার্টমেন্টকে। আপনি গোটা বিষয়টি পর্যবেক্ষণ করে আমাকে রিপোর্ট দিন। সব জায়গায় বলছে পলি তোলার কাজ হচ্ছে, কিন্তু কোথাও কিছু হচ্ছে না।‘

এরপরই ক্ষুব্ধ মেয়র বলেন, ‘এটা আমার জন্য খুব অসম্মানজনক, আমাকে ফোন‌ করার‌ পরও কর্পোরেশন কাজ করছে না।‌ আমি কাজ করার জন্য এই পদে আছি, কাজ না হলে আমায় চেয়ার ছাড়তে হবে৷ তুমি একজন মেয়রের সঙ্গে কথা বলছ। বলে দিলাম আর হয়ে গেল এটা হতে পারে না। কাজ করতে হবে এবং নিয়মিত নজর রাখতে হবে। ড্রেনেজের কাজ না করলে তার ডিজিকে পাল্টে দিতে হবে। বিষয়টিকে গুরুত্ব দিয়ে দেখতে হবে৷ আমার কাছে অভিযোগ আসার পরেও যদি কাজ না হয় তাহলে আমায় পদ ছাড়তে হবে৷’

বন্ধ করুন