বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > চলছে ডিভোর্সের মামলা, তারইমধ্যে স্ত্রী'র বাড়িতে ডাকাতি করালেন আইনজীবী!
স্ত্রীর বিরুদ্ধে আক্রোশ! দুষ্কৃতীদের সাহায্যে শ্বশুরবাড়িতে ডাকাতি, ধৃত স্বামী। প্রতীকী ছবি। (HT_PRINT)

চলছে ডিভোর্সের মামলা, তারইমধ্যে স্ত্রী'র বাড়িতে ডাকাতি করালেন আইনজীবী!

  • বধূ নির্যাতনের অভিযোগ করেছেন ওই মহিলা।

স্বামী ও স্ত্রী দুজনেই আইনজীবী। কিন্তু সম্পর্কে ফাটলের জেরে এখন আদালতে তাঁদের বিবাহবিচ্ছেদের মামলা চলছে। এরইমধ্যে স্বামীর বিরুদ্ধে বধূ নির্যাতনের অভিযোগ এনেছেন স্ত্রী। ইতিমধ্যে সেই অভিযোগের ভিত্তিতে আদালতে অভিযুক্ত স্বামীর বিরুদ্ধে চার্জশিট জমা দিয়েছে পুলিশ। সেই আক্রোশ থেকেই স্ত্রী'র বাড়িতে ডাকাতি করানোর অভিযোগ উঠল স্বামীর বিরুদ্ধে। গত ২১ জানুয়ারি বেলেঘাটায় স্ত্রী কোয়েল মুখোপাধ্যায়ের বাড়িতে ডাকাতি করানোর অভিযোগ ওঠে তাঁর স্বামী শুভাশিস দাশগুপ্তের বিরুদ্ধে।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, কোয়েল মুখোপাধ্যায় এবং শুভাশিস দাশগুপ্ত দু'জনেই আইনজীবী। ২০১৯ সাল থেকে তাঁদের সম্পর্কে চিড় ধরে। এরইমধ্যে স্বামীর বিরুদ্ধে বধূ নির্যাতনের অভিযোগ আনেন কোয়েল মুখোপাধ্যায়। এরপর তিনি বেলেঘাটার সুরাহ ইস্ট রোডে বাবার বাড়িতেই থাকছিলেন। শুভাশিসের বাড়ি সল্টলেকে।

অভিযোগ, গত ২১ জানুয়ারি কোয়েলের বাবার বাড়িতে ছয় থেকে সাতজন দুষ্কৃতী ঢুকে পড়ে। বন্দুক দেখিয়ে লক্ষাধিক টাকা লুঠপাট করে। তাঁর বৃদ্ধ বাবা এবং মাকে বন্দুকের বাঁট দিয়ে মারধর করে বলে অভিযোগ। এরপরেই থানায় ডাকাতির অভিযোগ করেন কোয়েল।

প্রথমে পুলিশের ধারণা ছিল, এ কোনও দুষ্কৃতীদের কাজ। কিন্তু বিহার থেকে দুষ্কৃতীদের গ্রেফতারের করার পরে পুলিশ যে তথ্য জানতে পারে, তা কার্যত অবাক করে দেয়। দুষ্কৃতীরা জেরায় জানায়, এই ডাকাতির মূল পান্ডা হলেন শুভাশিস দাশগুপ্ত। তিনি কসবার এক যুবকের মাধ্যমে বিহারের এই গ্যাংয়ের সঙ্গে যোগাযোগ করেছিলেন। এই তথ্য জানার পরে পুলিশ গত শুক্রবার শুভাশিস দাশগুপ্তকে গ্রেফতার করে। তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদ করে পুলিশ জানতে পেরেছে, স্ত্রী'র বিরুদ্ধে প্রতিশোধ নেওয়ার জন্যই তিনি এই কাজ করেছিলেন।

বন্ধ করুন