বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের মামলায় যুক্ত করা হল রাজ্যপালকে, আচার্যের অন্তর্ভূক্তিতে তুঙ্গে চর্চা

যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের মামলায় যুক্ত করা হল রাজ্যপালকে, আচার্যের অন্তর্ভূক্তিতে তুঙ্গে চর্চা

রাজ্যপাল সিভি আনন্দ বোস (PTI)

এই ছাত্র মৃত্যুর ঘটনার পর থেকে রাজ্যপাল অত্যন্ত সক্রিয় হয়ে উঠেছেন। তিনি নিজে বিশ্ববিদ্যালয় চত্বরে বারবার গিয়েছেন। পড়ুয়াদের সঙ্গে কথা বলেছেন। বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে রাজভবনে ডেকে নিয়ে গিয়ে বৈঠকও করেছেন। তবে তিনি স্বীকার করেছেন, উপাচার্য না থাকায় বিশ্ববিদ্যালয়ের নানা সিদ্ধান্ত নিতে সমস্যা হচ্ছে। 

যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্র মৃত্যুর ঘটনায় কলকাতা হাইকোর্টে জনস্বার্থ মামলা দায়ের করেছিলেন তৃণমূল কংগ্রেসের মুখপাত্র সুদীপ রাহা। ওই মামলায় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন তিনি। রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসু ইতিমধ্যেই বলেছেন, যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় এখন রাজ্যপালের নিয়ন্ত্রণে। তাই এই ঘটনা তাঁরই ব্যর্থতা। হস্টেল কর্তৃপক্ষ এবং রাজ্যপাল সিভি আনন্দ বোস তথা বিশ্ববিদ্যালয়ের আচার্যের ভূমিকা নিয়েও প্রশ্ন তোলা হয়েছে এই মামলায়। আর রাজ্য–রাজ্যপাল সংঘাতের মধ্যেই ছাত্র মৃত্যুর মামলায় পার্টি করা হল আচার্যকে। তৃণমূল ছাত্র পরিষদের সহ–সভাপতি সুদীপ রাহার মামলায় যুক্ত করা হল বিশ্ববিদ্যালয়ের আচার্যকে।

এদিকে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ে সিসিটিভি বসানো–সহ নানা দাবি তিনি আগেই তুলে ছিলেন। নানা দাবি নিয়েই কলকাতা হাইকোর্টে জনস্বার্থ মামলা দায়ের করেছেন তৃণমূল কংগ্রেসের মুখপাত্র সুদীপ রাহা। এমনকী বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন তিনি। সুদীপ রাহার বক্তব্য, আচার্য হিসাবে রাজ্যপালই বিশ্ববিদ্যালয়ের সর্বোচ্চ পদাধিকারী। আর ঘটনার সময় বিশ্ববিদ্যালয় উপাচার্যহীন ছিল। তাই মামলায় তাঁকেও যুক্ত করা হোক। র‍্যাগিং করেই ওই প্রথম বর্ষের পড়ুয়ার মৃত্যু হয়েছে বলে অভিযোগ উঠছে। হস্টেলের একাধিক আবাসিককে গ্রেফতারও করা হয়েছে। এই ঘটনা নিয়ে আগে একটি জনস্বার্থ মামলা করেন আইনজীবী সায়ন বন্দ্যোপাধ্যায়। আর সুদীপ রাহার দায়ের করা মামলাটি দ্বিতীয় জনস্বার্থ মামলা।

অন্যদিকে সুদীপ রাহার মামলায় হস্টেল কর্তৃপক্ষ এবং রাজ্যপাল সিভি আনন্দ বোস তথা আচার্যের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তোলা হয়। এই জনস্বার্থ মামলায় ইউজিসি’‌র নিয়ম মেনে বিশ্ববিদ্যালয় এবং হস্টেলে বসাতে হবে সিসিটিভি বলে আবেদনে উল্লেখ করেছেন তিনি। মামলার দৃষ্টি আকর্ষণের সময়ও আচার্যের ভূমিকা নিয়েও প্রশ্ন তোলেন আইনজীবী কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়। আগামী সোমবার মামলার শুনানি হতে পারে। এই মামলায় যুক্ত করা হল রাজ্যপালকে। এই মামলা দায়েরের অনুমতি দিয়েছেন প্রধান বিচারপতি টিএস শিবজ্ঞানম। চলতি সপ্তাহে শুনানির সম্ভাবনা রয়েছে। গত ৯ অগস্ট মৃত্যু হয় যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম বর্ষের পড়ুয়ার।

আরও পড়ুন:‌ বিধানসভায় হঠাৎ ঢুকে পড়ল সিবিআই, বাদল অধিবেশনের আগে তুলকালাম কাণ্ড

আর কী জানা যাচ্ছে?‌ এই ছাত্র মৃত্যুর ঘটনার পর থেকে রাজ্যপাল অত্যন্ত সক্রিয় হয়ে উঠেছেন। তিনি নিজে বিশ্ববিদ্যালয় চত্বরে বারবার গিয়েছেন। পড়ুয়াদের সঙ্গে কথা বলেছেন। এমনকী বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে রাজভবনে ডেকে নিয়ে গিয়ে বৈঠকও করেছেন। তবে সিভি আনন্দ বোস স্বীকার করেছেন, উপাচার্য না থাকায় বিশ্ববিদ্যালয়ের নানা সিদ্ধান্ত নিতে সমস্যা হচ্ছে। দ্রুত তার ব্যবস্থা করা হবে। যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের নিরাপত্তারক্ষী সংবাদমাধ্যমে বলেছেন, ‘‌এক একবার ছাত্রদের এক একটি গ্রুপ এসে বলে যাচ্ছিল, গেট যেন বন্ধ থাকে। গেট ছেড়ে আমাদের যেতে বারণ করা হয়েছিল।’‌

বাংলার মুখ খবর
বন্ধ করুন

Latest News

জয় শাহ, রজার বিনি, নির্বাচকদের ইশানের সঙ্গে বসে কথা বলা উচিত ছিল- দাবি সৌরভের নিজেই দেখি মাটিতে বসে পড়ল, ধোনির আতিথেয়তায় মুগ্ধ মাত্র একটি ODI খেলা প্রাক্তনী কেবল রচনার সঙ্গে মমতার নাচ নয়! রবিবারের দিদি নম্বর ওয়ানে থাকছে আর কোন চমক? ৪৩০ ফুটের গ্রহাণু এগিয়ে আসছে পৃথিবীর দিকে, কী হতে পারে এর ফলে বজায় ২০২১-র 'ট্র্যাডিশন', বাংলার আসনের নাম বলতে গিয়ে হোঁচট BJP-র জাতীয় নেতার ‘আমি যে কত লোকের সঙ্গে লিভ ইন করেছি…’, জাতীয় পুরস্কার নিয়ে কটাক্ষে জবাব ইমনের থারুরকে হারাতে IT মন্ত্রীকে নামাল BJP, ভোট ময়দানে সুষমার মেয়ে,একাধিক প্রাক্তন CM কেমন কাটবে রবিবার দিনটি? জেনে নিন ৩ মার্চের রাশিফল, ১২টি রাশির জন্য নন্দীমুখ থেকে দধিমঙ্গল, সবটাই নিয়ম মেনে সারলেন কাঞ্চন-শ্রীময়ী দুর্ঘটনার পর প্রাক্তন সংসার টানতে ফের পরাগকেই বিয়ে করবে শিমুল! বিরক্ত দর্শকরা

Copyright © 2024 HT Digital Streams Limited. All RightsReserved.