বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > অপহৃত সেনাকর্মীকে উদ্ধার করল লালবাজার, অপহরণ রহস্যের কিনারা কলকাতায়

অপহৃত সেনাকর্মীকে উদ্ধার করল লালবাজার, অপহরণ রহস্যের কিনারা কলকাতায়

লালবাজার। ফাইল ছবি।

তারপর সেখান থেকে তিনি বেরিয়ে পড়েন। আলিপুরের কমান্ড হাসপাতাল থেকে বেরিয়ে নিজেই সটান নিউ মার্কেটে চলে যান। সেখানে একটি হোটেলে নিজের পরিচয় দিয়ে ভাড়া থাকতে শুরু করেন। আর সেখানে বসেই এই অপহরণের গল্প ফেঁদে পরিবারকে ফোন করেন। পরিবারের সদস্যরা ভয় পেয়ে লালবাজারে যোগাযোগ করেন।

ভারতীয় সেনাবাহিনীর কর্মী অপহৃত হয়েছেন খাস কলকাতায়। এই খবরে তোলপাড় হয়ে যায় গোটা শহর। তার মধ্যে আবার মদ্যপ অবস্থায় বাড়িতে ফোন করে নিজের অপহরণের খবরও দিলেন ওই ভারতীয় সেনাবাহিনীর কর্মচারী। তাতে আরও আলোড়ন পড়ে যায়। এই খবর পেয়ে তড়িঘড়ি তাঁকে উদ্ধার করতে নামে লালবাজারের পুলিশ। এমনকী তাঁকে উদ্ধার করে কিনারাও করে অপহরণের রহস্যের। গোটা ঘটনা জানতে পেরে মাথায় হাত পড়েছে পুলিশ কর্তাদের। এমনও যে ঘটতে পারে সেটা কল্পনাও করতে পারেননি পুলিশ কর্তারা।

বিষয়টি ঠিক কী ঘটেছে?‌ পুলিশ সূত্রে খবর, হঠাৎ বেশ কিছু টাকার প্রয়োজন হয় ওই সেনাবাহিনীর কর্মী যুবকের। সেই টাকা হাতাতে নিজেই নিজের অপহরণের গল্প ফেঁদেছিলেন সেনাবাহিনীর কর্মী। তাই তাঁকে অপহরণ করা হয়েছে বলে ফোন করে পরিবারের কাছ থেকে টাকা আদায় করার ছক কষেছিলেন ওই সেনাকর্মী। কিন্তু তাঁর পরিবার পুলিশে খবর দেন। সেই খবর পেয়ে তদন্তে নেমে তাঁকে উদ্ধার করে কলকাতা পুলিশ। অভিযুক্তকে সেনাবাহিনীর হাতে তুলে দেওয়া হবে বলে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। যাতে প্রমাণ থাকে।

কে এই সেনাকর্মী?‌ পরিচয় কী?‌ লালবাজার সূত্রে খবর, অভিযুক্ত সেনাকর্মীর নাম অরুণ গুলেরিয়া। তিনি অরুণাচল প্রদেশের ২০ শিখ রেজিমেন্টে সেনাবাহিনীর কর্মী। সেখানে তিনি রাঁধুনি হিসাবে কর্মরত। গত ১২ অগস্ট শারীরিক পরীক্ষার জন্য অরুণ কলকাতার কমান্ড হাসপাতালে আসেন। তারপর সেখান থেকে তিনি বেরিয়ে পড়েন। আলিপুরের কমান্ড হাসপাতাল থেকে বেরিয়ে নিজেই সটান নিউ মার্কেটে চলে যান। সেখানে একটি হোটেলে নিজের পরিচয় দিয়ে ভাড়া থাকতে শুরু করেন। আর সেখানে বসেই এই অপহরণের গল্প ফেঁদে পরিবারকে ফোন করেন। পরিবারের সদস্যরা ভয় পেয়ে লালবাজারে যোগাযোগ করেন।

আরও পড়ুন:‌ স্ত্রীকে গুলি করে খুন, থানায় গিয়ে আত্মসমর্পণ করল স্বামী, আলোড়ন নারায়ণপুরে

কেমন করে উদ্ধার করল পুলিশ?‌ এই খবর পেয়ে তদন্তে নেমে বেশ কয়েকটি পদক্ষেপ করে লালবাজার। তার মধ্যে একটা হল মোবাইল লোকেশন ট্র‌্যাক। তাতে অনেকটা পরিষ্কার হয়ে যায় বিষয়টি। তারপর ওই এলাকার হোটেলে গিয়ে পৌঁছলে রেজিস্ট্রারে নাম দেখতে পান পুলিশ কর্তারা। রবিবার লালবাজারের অপরাধদমন শাখায় অপহরণের অভিযোগ জমা পড়ে। তারপরই তদন্তে নেমে নিউ মার্কেটের হোটেল থেকে সেনাকর্মীকে উদ্ধার করেন। তিনি তখন মত্ত অবস্থায় ছিলেন বলে লালবাজার সূত্রে খবর। তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদ করতেই পুলিশ জেনে যায়, তিনি নিজেই পরিবারের সদস্যদের অপহরণের গল্প বলেছিলেন এবং ৪০ হাজার টাকা চেয়েছিলেন। অভিযুক্ত সেনাকর্মীকে সেনা কর্তৃপক্ষের হাতে তুলে দেওয়া হবে।

বাংলার মুখ খবর

Latest News

‘এখন মহালয়া থেকে পুজো উদ্বোধন হয়, এটা অবশ্য আমারই দোষ, মা আগে আসেন', বললেন মমতা! হবে টাকা সঞ্চয়, কিনতে পারেন গাড়ি! লক্ষ্মী নারায়ণ যোগে লাকি ধনু সহ বহু রাশি আথিয়াকে সিনেমায় নামানোর ‘মূল্য’, কত কোটির বাংলো মুকেশ ছাবড়াকে দেন সুনীল? পার্টি থেকে রাষ্ট্রপতি প্রার্থী হওয়ার প্রয়োজনীয় সমর্থন জুটিয়ে ফেললেন কমলা Union Budget 2024: বাজেটে অল্প বয়সি এবং ছাত্রছাত্রীদের কী কী লাভ হল? আগের থেকে কতটা হেরফের হল নয়া আয়কর ব্যবস্থায়? কাদের লাভ হবে? একনজরেই দেখে নিন ৫ দিনে চতুর্থবার! বাজেটের দিনে ফের কলকাতার দোকানগুলিতে দাম কমল সোনার কোন দেশ ভারত থেকে সবথেকে বেশি সহায়তা পাচ্ছে? ১০ দেশের তালিকাটা দেখে নিন বছরে ৭ কোটি রোজগার! কার চাকরি ছেড়ে শাহরুখ খানের ম্যানেজার হন পূজা দাদলানি লারাকে ক্ষমা চাইতে বললেন ক্ষুব্ধ ভিভ রিচার্ডস এবং কার্ল হুপার, কিন্তু কেন?

Copyright © 2024 HT Digital Streams Limited. All RightsReserved.