বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > কলকাতা বিমানবন্দরে মর্মান্তিক দুর্ঘটনা, ট্রাক্টর থেকে পড়ে চাকায় পিষে মৃত চালক
(ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য ফেসবুক @aaikolairport)
(ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য ফেসবুক @aaikolairport)

কলকাতা বিমানবন্দরে মর্মান্তিক দুর্ঘটনা, ট্রাক্টর থেকে পড়ে চাকায় পিষে মৃত চালক

  • জানা গিয়েছে ৩২ বছর বয়সী যুবকের নাম সঞ্জিত রায়। সঞ্জিত নিজেই ট্রাক্টরটি চালাচ্ছিলেন। চলন্ত ট্রাক্টর থেকে পড়ে গিয়ে সেই ট্রাক্টরের চাপেই মৃত্যু হয় সঞ্জিতের।

বৃহস্পতিবার কলকাতা বিমানবন্দরে এক মর্মান্তিক দুর্ঘটনায় মৃত্যু হল এক যুবকের। ট্রাক্টরে পিষে মৃত্যু হয় যুবকের। জানা গিয়েছে ৩২ বছর বয়সী যুবকের নাম সঞ্জিত রায়। সঞ্জিত নিজেই ট্রাক্টরটি চালাচ্ছিলেন। চলন্ত ট্রাক্টর থেকে পড়ে গিয়ে সেই ট্রাক্টরের চাপেই মৃত্যু হয় সঞ্জিতের। মনে করা হচ্ছে, ট্রাক্টরটি ঘোরানোর সময় ট্রাক্টরের গতি হয়ত বেশি ছিল। সেই কারণে নিজেকে নিয়ন্ত্রণ করতে না পাড়ায় ট্রাক্টর থেকে পড়ে যায় সঞ্জিত।

দুর্ঘটনাটি বিমানবন্দরের হ্যাঙ্গার নম্বর ১৮ থেকে ২০-র মাঝখানে ঘটে বিকেল সাড়ে চারটে নাগাদ। এরপর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলেও বাঁচানো যায়নি সঞ্জিতকে। মনে করা হচ্ছে, ঘটনাস্থলেই তাঁর মৃত্যু হয়। পরে তাঁর দেহ ময়নাতদন্তের জন্য আরজিকর হাসপাতালে পাঠানো হয়।

জানা গিয়েছে, হ্যাঙ্গারের কাছে ট্রাক্টর ঘোরাতে গিয়ে তা থেকে পড়ে যায় সঞ্জিত। সেই সময় ট্রাক্টরের চাকা তাঁর উপরে উঠে যায়। দুর্ঘটনার পর তাঁকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে চিকিত্সকরা তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। ট্রাক্টরে সঞ্জিত ছাড়া অন্য কেউ ছিলেন না। জানা গিয়েছে, বিমানবন্দরের ইউটিলিটি এজেন্ট র্যা ম্প ড্রাইভার হিসেবে কাজ করতেন সঞ্জিত। এভাবে ট্রাক্টর থেকে পড়ে গিয়ে তাঁর মৃত্যু হওয়ার ঘটনাটি বেশ আকস্মিক এবং বেনজির।

বন্ধ করুন