বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > কলকাতা > বেলেঘাটা বিস্ফোরণ নিয়ে মমতাকে আক্রমণ ধনখড়ের, পালটা ‘মাথা দেখানোর’ শলা পার্থর
পশ্চমবঙ্গের রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়। 
পশ্চমবঙ্গের রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়। 

বেলেঘাটা বিস্ফোরণ নিয়ে মমতাকে আক্রমণ ধনখড়ের, পালটা ‘মাথা দেখানোর’ শলা পার্থর

  • পালটা তৃণমূলের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায় বলেন, ‘ওনার মাথা দেখানো উচিত। ওর চিকিৎসা প্রয়োজন। ওনাকে আগে ঠিক করতে হবে যে উনি রাজভবনে বসবেন না বিজেপি পার্টি অফিসে।’

বেলেঘাটায় ক্লাবে বিস্ফোরণকে হাতিয়ার করে ফের একবার আইনশৃঙ্খলা নিয়ে রাজ্যকে বিঁধলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়। বুধবার একঝাঁক টুইটে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে কড়া পদক্ষেপ করার আহ্বান জানিয়েছেন তিনি। পালটা রাজ্যপালকে ‘মাথা দেখান’ বলে কটাক্ষ করেছে তৃণমূলও। 

এদিন টুইটে রাজ্যপাল লিখেছেন, আমি মুখ্যমন্ত্রীকে রাজ্যে বোম তৈরি ও ক্রবর্ধমান হিংসা নিয়ে সতর্ক করেছিলাম। কিন্তু বিস্মিত হওয়ার তখনও বাকি ছিল। তার পরই মণীশ শুক্লর খুন ও কলকাতায় বিস্ফোরণে ক্লাবের ছাদ উড়ে যাওয়ার ঘটনা ঘটল। আমি গত ১১ অক্টোবর মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে আলোচনার পর এব্যাপারে তাঁকে পদক্ষেপ করার জন্য আবেদন জানিয়েছি। 

এর পর তিনি লিখেছেন, ‘সরকারের কাজ নাগরিকদের অধিকার সুরক্ষিত করা। সম্প্রতি মুখ্যমন্ত্রীর অনুপ্রেরণায় তার উলটোটাই ঘটছে। যার ফলে সরকারই অধিকারের মুখ্য হননকারী ও নির্যাতনকারীতে পরিণত হয়েছে।’ এর পর রাজ্যে মানবাধিকার হননের ঘটনা বেড়েছে বলেও দাবি করেছেন রাজ্যপাল।

পালটা তৃণমূলের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায় বলেন, ‘ওনার মাথা দেখানো উচিত। ওর চিকিৎসা প্রয়োজন। ওনাকে আগে ঠিক করতে হবে যে উনি রাজভবনে বসবেন না বিজেপি পার্টি অফিসে।’

রাজ্যের দায়িত্বে আসার পর থেকেই রাজ্যের সঙ্গে রাজ্যপালের সংঘাত লেগেই রয়েছে। বারবার রাজ্য সরকারকে তার কর্তব্য স্মরণ করিয়েছেন রাজ্যপাল। কিন্তু তা মোটেও ভালভাবে নেয়নি শাসকদল। রাজ্যের তরফে প্রতিক্রিয়া যত কড়া হয়েছে ততই ঝাঁঝ বাড়িয়েছেন রাজ্যপালও। এমনকী পথে ঘাটে রাজ্যপালকে ঘিরে বিক্ষোভ দেখাতেও পিছপা হচ্ছে না তৃণমূল।

 

বন্ধ করুন