বাংলা নিউজ > ক্রিকেট > SA vs AUS: বাতাসে শরীর ভাসিয়ে চিলের মতো ছোঁ মেরে ক্যাচ নিলেন অ্যাবট, দেখে মাথায় হাত জানসেনের- ভিডিয়ো

SA vs AUS: বাতাসে শরীর ভাসিয়ে চিলের মতো ছোঁ মেরে ক্যাচ নিলেন অ্যাবট, দেখে মাথায় হাত জানসেনের- ভিডিয়ো

সিন অ্যাবটের ক্যাচ দেখে মাথায় হাত মার্কো জানসেন।

৪৭তম ওভারের প্রথম তিন বলে নাথান এলিসকে একটি ছক্কা এবং দু'টি চার হাঁকিয়েছিলেন মার্কো জানসেন। ওভারের চতুর্থ বলেও বড় শট খেলেছিলেন জানসেন। ভেবেছিলেন সেই শটও বাউন্ডারি পার করে যাবে। কিন্তু সিন অ্যাবট একেবারে ডিপ কভার থেকে দৌড়ে এসে বাতাসে শরীর ভাসিয়ে চিলের মতো ছোঁ মেরে এক হাতে ক্যাচ ধরে নেন।

আধুনিক ক্রিকেটে অ্যাথলেটিসিজম নজিরবিহীন, তবুও প্রতি বারই খেলোয়াড়রা এমন কিছু দর্শনীয় ক্যাচ ধরেন, যা অবিশ্বাস্য বলে মনে হয়। মঙ্গলবার অস্ট্রেলিয়ার সিন অ্যাবটই যেমন বাউন্ডারি লাইনের সামনে অবিশ্বাস্য একটি ক্যাচ ধরেছেন। যা দেখে ব্যাটার মার্কো জানসেন তো একেবারে হতবাক হয়ে মাথায় হাত দিয়ে বসেন।

পোচেফস্ট্রুমে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে তৃতীয় ওয়ানডে-তে দক্ষিণ আফ্রিকা দুর্দান্ত ব্যাটিং করেছেন। তারা স্কোরবোর্ডে ৬ উইকেটে পাহাড় প্রমাণ ৩৩৮ রান যোগ করেছে। অজিদের সামনে ৩৩৯ রানের কঠিন লক্ষ্য। তবে দক্ষিণ আফ্রিকার ব্যাটিং তান্ডবের মাঝেই আলাদা করে নজর কেড়েছে সিন অ্যাবটের ক্যাচ।

আরও পড়ুন: ভারতের ব্যাটিং ব্যর্থতার মাঝেই রোহিত-শুভমন জুটির বিশ্ব রেকর্ড, পিছিয়ে পড়ল সচিন-জাদেজা জুটি

তখন প্রোটিয়া ইনিংসে ৪৭তম ওভার চলছিল। নাথান এলিসকে প্রথম তিন বলে একটি ছক্কা এবং দু'টি চার হাঁকিয়েছিলেন মার্কো জানসেন। ওভারের চতুর্থ বলেও বড় শট খেলেছিলেন জানসেন। ভেবেছিলেন সেই শটও বাউন্ডারি পার করে যাবে। ছয় না হলেও, নিশ্চিত ভাবে চার তো হবেই। কিন্তু সিন অ্যাবট একেবারে ডিপ কভার থেকে দৌড়ে এসে বাতাসে শরীর ভাসিয়ে চিলের মতো ছোঁ মেরে এক হাতে ক্যাচ ধরে নেন। কেউ ভাবতেই পারেননি, অ্যাবট ক্যাচটি ওভাবে ধরে ফেলবেন। জানসেন তো সেই ক্যাচ দেখে তাজ্জব হয়ে যান। তিনি অ্যাবটের ক্যাচ দেখে মাথায় হাত দিয়ে বসেন। ভাবতেই পারেননি শটটি ক্যাচ হয়ে যাবে।

মঙ্গলবার টস হেরে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে আগ্রাসী মেজাজে ছিল প্রোটিয়ারা। প্রথম উইকেটেই ১৪৬ রান যোগ করেন কুইন্টন ডি'কক এবং তেম্বা বাভুমা মিলে। ১০টি চার এবং ২টি ছক্কার হাত ধরে ৭৭ বলে ৮২ রানের দুরন্ত ইনিংস খেলেন কুইন্টন ডি'কক। তেম্বা বাভুমা আউট হন ৬২ বলে ৫৭ রান করে। তিনে ব্যাট করতে নেমে রেজা হেনড্রিক্স ৪৫ বলে ৩৯ করে রানআউট হন।

আরও পড়ুন: কোহলি নন, কুলদীপের ম্যাচের সেরা হওয়া উচিত ছিল- ফের বিতর্কিত মন্তব্য গম্ভীরের

তবে প্রোটিয়াদের বড় রানের ইনিংস গড়তে সাহায্য করেন এডেন মার্করাম। তিনি ৭৪ বলে অপরাজিত ১০২ রানের একটি ঝোড়ো ইনিংস খেলেন। মারেন ৯টি চার, ৪টি ছক্কা। এছাড়া ৪টি চার এবং একটি ছয়ের হাত ধরে ১৬ বলে ৩২ রান করেন মার্কো জানসেন। তবে তাঁকে অবিশ্বাস্য ক্যাচ ধরে সাজঘরে ফেরান অ্যাবট। তা না হলে প্রোটিয়াদের রান আরও বাড়তে পারত। নির্দিষ্ট ৫০ ওভারে দক্ষিণ আফ্রিকা করে ৩৩৮ রান। অজিদের হয়ে ট্রেভিস হেড ২ উইকেট নিয়েছেন। একটি করে উইকেট নিয়েছেন মার্কাস স্টোইনিস, নাথান এলিস, তনভীর সংঘা।

বন্ধ করুন