বাংলা নিউজ > ভোটযুদ্ধ > পুরভোটের লড়াই > ‘‌শিলিগুড়ির মেয়র করা হচ্ছে গৌতম দেবকে’‌, ফলাফলের পর সিদ্ধান্ত ঘোষণা মমতার
এই পুরবোর্ড তৃণমূল কংগ্রেস গড়বে

‘‌শিলিগুড়ির মেয়র করা হচ্ছে গৌতম দেবকে’‌, ফলাফলের পর সিদ্ধান্ত ঘোষণা মমতার

  • বিরোধীরা কার্যত নিশ্চিহ্ন হয়ে গেল এখানে। তাই লড়াকু গৌতম দেবের উপরই ভরসা রাখলেন নেত্রী।

শিলিগুড়িতে বামেদের দুর্গ কার্যত তাসের ঘরের মতো ভেঙে পড়ল। আর এই পুরবোর্ড তৃণমূল কংগ্রেস গড়বে তা নিয়ে আর কোনও সংশয় রইল না। এখানে বেশিরভাগ ওয়ার্ডে ঘাসফুল ঝড়ে কাত হয়ে গেল বিরোধী সমস্ত দল। আর তারপরই জয়ী গৌতম দেবের উপরই আস্থা রাখলেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। শিলিগুড়ি পুরনিগমের পরবর্তী মেয়র হবেন গৌতম দেব বলে জানালেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বিধাননগরের মেয়র কে হবেন?‌ সেটা অবশ্য আলোচনার পরই সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

কেমন হল শিলিগুড়ির ফলাফল?‌ গণনার পর দেখা যাচ্ছে, শিলিগুড়ি পুরনিগমের পাঁচটি ওয়ার্ডে জয়ী হয়েছে বিজেপি। ৪, ৫, ৮, ৪, ১১ নম্বর ওয়ার্ড পদ্মের দখলে। ১, ২, ৩, ৬, ৭, ১৪, ১৭, ১৮, ২০, ২৩, ২৫, ২৬, ২৭, ৩১, ৩২, ৩৩, ৪৬, ৪৭ নম্বর ওয়ার্ডে জয়ী তৃণমূল কংগ্রেস। ৪৫, ১৯, ২২ নম্বর ওয়ার্ডে জয়ী সিপিআইএম। ১৬ নম্বর ওয়ার্ডে জয়ী কংগ্রেস। সুতরাং বিরোধীরা কার্যত নিশ্চিহ্ন হয়ে গেল এখানে। তাই লড়াকু গৌতম দেবের উপরই ভরসা রাখলেন নেত্রী।

ঠিক কী বলেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়?‌ এদিন তিনি বলেন, ‘‌সাধারণ মানুষকে ধন্যবাদ জানাই। এই জয় মা–মাটি–মানুষের জয়।আমরা উন্নয়নও করে যাব। আবার গণতান্ত্রিক পদ্ধতিতে ভোটও করব। দলীয় নেতা-কর্মীদের বলব আরও বেশি মানবিক হতে হবে। আর শিলিগুড়ির মেয়র করা হচ্ছে গৌতম দেবকে। মানুষকে ও পরিষেবা দেবে।’‌

উল্লেখ্য, শিলিগুড়ি পুরসভা নির্বাচনে পরাজিত হয়েছেন সিপিআইএম নেতা অশোক ভট্টাচার্য। তিনি মনে করেন এটা পলিটিক্যাল রিজেকশন। যদিও তাঁর দম্ভের জন্যই এই পরাজয় বলে মনে করেন কংগ্রেস নেতা শঙ্কর মালাকার। এবার জিতবেন বলে আত্মবিশ্বাসী ছিলেন অশোক ভট্টাচার্য। বাকি তিন পুরসভা নির্বাচনেও সাফল্য পেয়েছে তৃণমূল কংগ্রেস।

বন্ধ করুন