বাংলা নিউজ > ভোটযুদ্ধ ২০২১ > পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা নির্বাচন 2021 > ‘‌পুলিশ–গুন্ডাদের পুরনো সম্পর্ক রয়েছে’‌, ভোট পরবর্তী হিংসা নিয়ে বিস্ফোরক দিলীপ
দিলীপ ঘোষ। ফাইল ছবি
দিলীপ ঘোষ। ফাইল ছবি

‘‌পুলিশ–গুন্ডাদের পুরনো সম্পর্ক রয়েছে’‌, ভোট পরবর্তী হিংসা নিয়ে বিস্ফোরক দিলীপ

  • ভোট এবং ভোট পরবর্তী পর্যায়ে হিংসা নিয়ে পুলিশকে বিঁধলেন তিনি।

ভোট–পঞ্চমীতে রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে হিংসা দেখা গিয়েছে। এমনকী ভোট মেটার পরও এই হিংসা নানা জায়গায় দেখা যাচ্ছে। এই পরিস্থিতিতে এবার পুলিশকে কাঠগড়ায় দাঁড় করালেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। ভোট এবং ভোট পরবর্তী পর্যায়ে হিংসা নিয়ে পুলিশকে বিঁধলেন তিনি। যা নিয়ে জোর শোরগোল পড়ে গেল রাজ্য–রাজনীতিতে।

এদিন তিনি বলেন, ‘‌ভোট পরবর্তী হিংসা হয়েছে বাংলায়। কেন্দ্রীয় বাহিনীকে পরিচালনা করে রাজ্য পুলিশ। শান্তিশৃঙ্খলা রক্ষা করা পুলিশের কাজ। কেন্দ্রীয় বাহিনী শান্তিপূর্ণ নির্বাচন করাতে এসেছে। আর তা না হলে ৮০ শতাংশের বেশি ভোট হয় না আগে কলকাতার আশপাশের লোককে গুন্ডা দিয়ে ভয় দেখানো হত। কিন্তু এবার লোক ভয় পাচ্ছে না। যেখানে পুলিশের এক্তিয়ার সেখানে গণ্ডগোল হচ্ছে।’‌ এই মন্তব্যের পরই প্রশ্ন উঠতে শুরু করে, তাহলে কী পুলিশই গণ্ডগোল করছে?‌

এই প্রশ্নের অবশ্য জবাব দিয়েছেন তিনি। দিলীপ ঘোষের বিস্ফোরক অভিযোগ, ‘‌পুলিশ–গুন্ডাদের পুরনো সম্পর্ক রয়েছে। তাই গুন্ডারা গণ্ডগোল করলে পুলিশ কিছু বলতে পারছে না। ফলে এলাকায় অশান্তি হচ্ছে।’‌ এভাবে পুলিশকে সরাসরি কাঠগড়ায় দাঁড় করিয়ে দেওয়ায় বিতর্ক শুরু হয়েছে। এখানেই শেষ নয়। দিলীপ ঘোষকে জিজ্ঞাসা করা হয়, সংযুক্ত মোর্চার অভিযোগ, কেন্দ্রীয় বাহিনী আরএসএস–এর পতাকা লাগাচ্ছে। এই বিষয়ে তিনি বলেন, ‘‌অভিযোগ করতেই পারে। যদি আমরা মনে করি রাম নবমীর পতাকা লাগাব তাতে ওরা কী করতে পারে। রাম নবমীতে কারও নিষেধাজ্ঞা আছে নাকি।’‌

উল্লেখ্য, অশান্তির আবহেই মেটে ভোট পঞ্চমী। নির্বাচন ঘিরে উত্তেজনা ছড়ায় কল্যাণী, সল্টলেক, দেগঙ্গা-সহ বিভিন্ন এলাকায়। দেগঙ্গার একটি বুথে কেন্দ্রীয় বাহিনীর গুলি চালনার অভিযোগ উঠেছে। যদিও সেই অভিযোগ খারিজ করে দিয়েছে কমিশন। উত্তেজনা ছড়ায় বেলঘরিয়াতেও। বিজেপি প্রার্থী রাজু বন্দ্যোপাধ্যায় আক্রান্ত হন বলে অভিযোগ।

বন্ধ করুন