বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > ‘ব্রেকআপ হলে সকলে ভাবে ছেলেটাই খারাপ’, দিয়ার সঙ্গে বিচ্ছেদ নিয়ে বিস্ফোরক 'গঙ্গারাম' অভিষেক
সম্পর্ক ভাঙাগড়া নিয়ে মুখ খুললেন 'গঙ্গারাম' অভিষেক
সম্পর্ক ভাঙাগড়া নিয়ে মুখ খুললেন 'গঙ্গারাম' অভিষেক

‘ব্রেকআপ হলে সকলে ভাবে ছেলেটাই খারাপ’, দিয়ার সঙ্গে বিচ্ছেদ নিয়ে বিস্ফোরক 'গঙ্গারাম' অভিষেক

  • ‘সব কিছু সহ্য করেও আমি অনেক দিন পর্যন্ত চেষ্টা করে গিয়েছি। তাতেও মানিয়ে নিতে পারলাম না’, বোমা ফাটালেন অভিষেক। 

টেলিপাড়ার মিষ্টি জুটি হিসাবেই পরিচিত ছিল অভিষেক বসু এবং দিয়া মুখোপাধ্যায়। মোদক বাড়ির ‘শ্রীতমা’র সঙ্গে 'গঙ্গারাম' প্রেমের বাঁধনে বাঁধা পড়েছিলেন 'সীমারেখা' সিরিয়ালের সেটে। বেশ খুলমখুল্লা রোম্যান্সেই মজে থাকতেন দুজনে। কিন্তু চলতি বছর অগস্টের দুজনের ব্রেকআপের খবর সামনে আসে। আর প্রায় সঙ্গে সঙ্গেই 'গঙ্গারাম' ধারাবাহিকের সহ-অভিনেত্রী সুরভি মানে রিনির সঙ্গে অভিষেকের প্রেমর খবর চাউর হয়ে যায়।

ব্রেক-আপের তিন মাসের মধ্যেই সুরভির সঙ্গে সম্পর্কে থাকবার আনুষ্ঠানিক ঘোষণাও সেরে ফেলেছেন অভিষেক। এবার নিজের ভাঙা সম্পর্ক নিয়ে মুখ খুললেন অভিনেতা। সিরিয়ালের সূত্র ধরে প্রেম, নেহাত কাকতালীয় মনে করেন অভিষেক। আনন্দবাজারকে দেওয়া এক সাক্ষাত্কারে তিনি বলেছেন, ‘আমি বরাবরই চিরস্থায়ী সম্পর্কে বিশ্বাসী। তাই ‘করে দেখি’ গোছের প্রেম আমি করতে পারিনি। কোনও সম্পর্কে জড়ালে পুরোপুরি তাঁর সঙ্গেই থাকি। তবে এ রকম অনেক বিষয় আছে, যেগুলো আমি আগে থেকে জানলে সম্পর্কটা তৈরিই হত না'। 

এদিন সরাসরি কিছু না বললেও ইঙ্গিতে দিয়ার সঙ্গে সম্পর্ক ভাঙার জন্য দুই পরিবারের অমিলকেই দায়ী করলেন অভিষেক। অভিনেতা যোগ করেন, ‘বিয়ে হয় দুই পরিবারের মধ্যে। সেখানে আমার ও আমার পরিবারের গোটা ভবিষ্যৎ গুরুত্বহীন হয়ে পড়লে, তা খুবই কষ্টকর। যখন জানতে পারি, তখন অনেকটা দেরি হয়ে গিয়েছে। ভেবেছিলাম ভালবাসা দিয়ে বোধহয় সবটা শুধরে দেওয়া সম্ভব। সেই ভুল এখন ভেঙে গিয়েছে।’

প্রাক্তন প্রেমিকা দিয়ার সঙ্গে অভিষেক
প্রাক্তন প্রেমিকা দিয়ার সঙ্গে অভিষেক

সুরভির সঙ্গে পরিচয় ও প্রেম- দুটোই ‘ভবিতব্য’ মনেপ্রাণে বিশ্বাসী গঙ্গারাম। সে জানাল, ‘সুরভির মতো সঙ্গী পেয়ে আমি নিজেকে ভাগ্যবান মনে করি’। কিন্তু দিয়ার সঙ্গে সম্পর্ক ভাঙার পর থেকেই সমালোচনায়বিদ্ধ অভিষেক। যাতে মর্মাহত অভিনেতা। তাঁর কথায়, ‘বিচ্ছেদের পরে আমি রোজ কতটা কষ্ট পেয়েছি, তা তো কেউ জানে না। জানাতে চাইও না। আমি কারও সহানুভূতি চাইনি। পরে জানতে পারি যে, অনেকের ধারণা, আমি নাকি এই তিন বছরে যা করেছি, সবটাই নাটক।’ দিয়ার পরিবারের সঙ্গে অভিষেকের সম্পর্কে একেবারেই মধুর ছিল না তা স্পষ্ট। পরিবার সম্পর্কিত সমস্যার কথা মেনেও নিলেন তিনি। জানালেন, ‘সব কিছু সহ্য করেও আমি অনেক দিন পর্যন্ত চেষ্টা করে গিয়েছি। তাতেও মানিয়ে নিতে পারলাম না’। 

অভিষেকের আক্ষেপ সম্পর্ক ভাঙলে সমাজ সবসময় ছেলের ঘাড়েই দোষ চাপিয়ে দেয়, ভাবে সে খারাপ। জানালেন, ‘সকলেই ভাবে, সম্পর্কে বিচ্ছেদ হলে ছেলেটাই খারাপ। আসলে আমার দোষ বলুন বা গুণ, আমি কখনও সম্পর্ক লুকিয়ে রাখি না। আমার সহানুভূতির দরকার নেই'। 

দিয়ার প্রতি কোনও ক্ষোভ নেই তাঁর, 'দিয়া খুব ভালো মেয়ে, ওর ভালো হোক', জানালেন নেতাজি খ্যাত অভিনেতা। আপতত সুরভির সঙ্গে আগামির স্বপ্ন সাজাচ্ছেন তিনি। 

বন্ধ করুন