বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > আমিও তো জানতাম হিন্দি রাষ্ট্রভাষা! জাভেদ জাফরি কি গলা মেলালেন অজয় দেবগনের সঙ্গে?
জাভেদ জাফরি নিজেও জানতেন হিন্দি রাষ্ট্রভাষা।
জাভেদ জাফরি নিজেও জানতেন হিন্দি রাষ্ট্রভাষা।

আমিও তো জানতাম হিন্দি রাষ্ট্রভাষা! জাভেদ জাফরি কি গলা মেলালেন অজয় দেবগনের সঙ্গে?

  • ‘হিন্দি ভাষা বিতর্ক’ যত দিন যাচ্ছে নতুন মোড় নিচ্ছে! এবার তাতে যোগ দিলেন জাভেদ জাফরি। 

গত সপ্তাহেই হিন্দি রাষ্ট্রভাষা কি না, তা নিয়ে বিতর্কে জড়িয়েছিলেন অজয় দেবগন আর কানাড়া অভিনেতা কিচ্চা সুদীপ। এবার সেই বিতর্কে যোগ দিলেন অভিনেতা-কমেডিয়ান জাভেদ জাফরি। জানালেন, অজয়ের মতো তিনিও এতদিন জানতেন হিন্দিই আমাদের রাষ্ট্রভাষা। 

প্রসঙ্গত, হিন্দি আমাদের রাষ্ট্রভাষা নয়, কোনওদিন ছিলও না। আসলে ভারতের কোনও রাষ্ট্রীয় ভাষা নেই। হিন্দি আর ইংরেজিকে ‘অফিসিয়াল ল্যাঙ্গুয়েজ’ হিসেবে ব্যবহার করা হয়ে থাকে। 

Indian Express-কে জাভেদ জানান, ‘আমি ভারতের সংবিধান খুলে দেখলাম, ওখানে কোনও ভাষাকেই রাষ্ট্রীয় ভাষার মর্যাদা দেওয়া হয়নি। এতদিন আসলে আমিও মানতাম হিন্দি আমাদের রাষ্ট্রীয় ভাষা। কিন্তু পরার পর বুঝলাম আমাদের দেশে কোনও ভাষাকেই রাষ্ট্রীয় ভাষার মর্যাদা দেওয়া হয়নি।’

তিনি আরও বলেন, ‘আসলে এখানে পয়েন্টটাই হল বৈচিত্রের মধ্যে ঐক্য। ওটাই আমাদের দেশের আসল সৌন্দর্য। আমাদের দেশে যেমন অনেক ধর্ম আছে, কিন্তু কোনও রাষ্ট্রীয় ধর্ম নেই। তেমনই নেই কোনও রাষ্ট্রীয় ভাষা। তুমি রাষ্ট্রীয় পাখি পাবে, ফুল পাবে। আমাদের দেশের ভবিষ্যতই হল সবকিছুর নির্যাস। তা তুমি অন্য কোনও দেশে পাবে না।’ আরও পড়ুন: ‘হিন্দিতে ছবি ডাবিং করো কেন?’ সুদীপকে তোপ অজয়ের, পাল্টা দিলেন দক্ষিণী হিরো

হিন্দি রাষ্ট্র ভাষা বিতর্ক শুরু হয় যখন প্যান ইন্ডিয়া বিতর্কে অজয়ের বলা কথার পর্রতিবাদ করেন কিচ্চা সুদীপ। টুইটারে লেখেন, ‘‘সবাই বলছে কন্নড় ইন্ডাস্ট্রিতে একটি সর্বভারতীয় ছবি তৈরি হয়েছে। আমি একটু সংশোধন করতে চাই। হিন্দি আর রাষ্ট্রভাষা নেই। ওরা (বলিউড) আজকাল সর্বভারতীয় ছবি বানাচ্ছে। ওরা সাফল‍্য পাওয়ার জন‍্য তেলুগু, তামিলে ছবির ডাবিং করাচ্ছে। কিন্তু তাও লাভ হচ্ছে না।’

এর জবাবে অজয় লেখেন, ‘কিচ্চা সুদীপ ভাই, যদি তোমার মতানুসারে হিন্দি আমাদের রাষ্ট্রীয় ভাষা না হয়, তাহলে তুমি কেন তোমার মাতৃভাষায় তৈরি ছবি হিন্দিতে ডাবিং করে রিলিজ করো? হিন্দি আমার মাতৃভাষা, এবং আমাদের রাষ্ট্রীয় ভাষা এবং সেটা থাকবেই। জন গণ মণ।’

 

বন্ধ করুন