বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > কার কাছে গোপন পরামর্শ নিয়ে প্রথমবার করিনার সঙ্গে ডেটে যান সইফ?
সইফ, করিনা ও তৈমুর। 
সইফ, করিনা ও তৈমুর। 

কার কাছে গোপন পরামর্শ নিয়ে প্রথমবার করিনার সঙ্গে ডেটে যান সইফ?

  • বেবোর সঙ্গে প্রথম ডেটে যাওয়ার আগে রানির পরামর্শ নেন সইফ। 

বলিউডের এখন অন্যতম সেরা জুটি করিনা এবং সইফ। সম্প্রতি করিনার শো ‘হোয়াট উইমেন ওয়ান্ট’-এর একটি পর্বে নিজেদের সম্পর্ক নিয়ে বেশ কিছু গোপন তথ্য ফাঁস করেন সইফ। করিনার সঙ্গে ডেটে যাওয়ার আগে বন্ধু রানি মুখোপাধ্যায়ের পরামর্শ নিয়েছিলেন অভিনেতা।

শো-তে গিয়ে সইফ আলি খান বলেন, করিনাকে ডেটিং করার সময় প্রথমবার একটু চিন্তায় ছিলেন তিনি। করিনা তখন দাপিয়ে কাজ করছে বলিউডে। এর আগে এমন ব্যস্ত অভিনেত্রীকে কখনও ডেট করেননি তিনি। সম্পর্ক এগোলে ভবিষ্যতে সমস্যার কথা ভেবে ভয় পাচ্ছিলেন সইফ।

যদিও সেই সময় সইফ আল খানকে ডেটিংয়ে যাওয়ার আগে সিদ্ধান্ত নিতে সাহায্য করেন রানি বলে জানান অভিনেতা। সইফ বলেন রানি তাঁকে বলেছিলেন, সব সময় মনে করবে তোমার সম্পর্ক একজন পুরুষের সঙ্গে। করিনাকে সইফের সমকক্ষ ভাবতে বলেছিল রানি। যদিও এটা শুনে করিনা বলেন, বেশ ভালো পরামর্শ সইফকে দিয়েছিল রানি। এমনকি করিনা মনে করেন, সব পুরুষেরই ব্যাপারটা মেনে চলা দরকার।

বর্তমানে অবশ্য সইফ নিজেও স্বীকার করেন, রানির কথা এখনও কাজে লাগে তাঁর। রানি বাড়িতে দুজন অভিনেতা আছে ধরে সইফকে চলতে বলেছিলেন। দু’জন কর্মরত দায়িত্ববোধসম্পন্ন মানুষ। তা ভাবলেই সব সমস্যার সমাধান। তা অবশ্য এখন খান দম্পতিকে দেখলেই বোঝা যায়, কঠোর ভাবে দুজনে সেটাকে মেনে চলছেন। 

২০১২ সালের ১৬ অক্টোবর বিয়ের পর্ব সেরেছিলেন এই জুটি। তবে সহজ ছিল না তাঁদের এক হওয়ার সফর। ধর্ম আলাদা, সঙ্গে সইফ ডিভোর্সি- সহজে কাপুর পরিবার মেনে নেয়নি এই সম্পর্ক। বিয়ের আগে প্রায় পাঁচ বছর চুটিয়ে প্রেম করেছেন সইফিনা। করিনার কথায়, আমাদের প্রেম পর্বের সময় আমরা ভালোই বুঝেছিলাম কেউ কোনও কিছু পরোয়া করে না। মানুষ শুধু জানতে চাই আমরা কী খাচ্ছি, কোনও ডিজাইনারের জামা-কাপড় পড়ছি। কাকে নিমন্ত্রণ করছি। আমি আর সইফু ঠিক করেছিলাম আমরা আমাদের সম্পর্কের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ন দিনটা এইসবের থেকে নিজেদের দূরে রাখব, পবিত্র রাখব’।

বন্ধ করুন