বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > করোনায় মৃতদের সৎকার নিয়ে বিশৃঙ্খলা চরমে, নতুন শ্মশানঘাট তৈরির নির্দেশ দিলেন দেব
ঘাটালে নতুন শ্মশানঘাট বানাতে উদ্যোগ নিলেন দেব । ছবি সৌজন্যে - ফেসবুক 
ঘাটালে নতুন শ্মশানঘাট বানাতে উদ্যোগ নিলেন দেব । ছবি সৌজন্যে - ফেসবুক 

করোনায় মৃতদের সৎকার নিয়ে বিশৃঙ্খলা চরমে, নতুন শ্মশানঘাট তৈরির নির্দেশ দিলেন দেব

  • করোনায় আক্রান্ত মৃতদেহ সৎকারের প্রক্রিয়া নিয়ে তুমুল বিশৃঙ্খলা শুরু হয়েছে রাজ্যে। এবার এই মহামারীতে আক্রান্ত হয়ে মৃতদের সৎকারের জন্য ঘাটালে শ্মশানঘাট বানাতে উদ্যোগ নিয়েছেন তিনি।

গত বছর লকডাউন ঘোষণার পর থেকেই পরিযায়ী শ্রমিক থেকে দুঃস্থ মানুষদের পাশে দাঁড়িয়েছিলেন অভিনেতা-সাংসদ দেব। একবার নয়,একাধিকবার। চলতি বছর করোনার দ্বিতীয় ঢেউ আছড়ে পড়ার পরেও সেই নিয়মের কোনও হেরফের হয়নি। সাধ্যমতো নিরন্তর করোনা আক্রান্তদের থেকে শুরু করে দুঃস্থ মানুষদের দিকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন এই তারকা-সাংসদ। কিছুদিন আগে থেকেই করোনা আক্রান্তদের বাড়িতে খাবার এবং প্রয়োজনে চিকিৎসা পৌঁছে দেওয়ার দায়িত্ব নিজের কাঁধে তুলে নিয়েছেন তিনি। এবার এই মহামারীতে আক্রান্ত হয়ে মৃতদের সৎকারের জন্য শ্মশানঘাট বানাতে উদ্যোগ নিয়েছেন তিনি। যেখানে শুধুমাত্র অতিমারীতে মৃত ব্যক্তিদের সৎকার হবে। কারণ ইতিমধ্যেই করোনায় আক্রান্ত মৃতদেহ সৎকারের প্রক্রিয়া নিয়ে তুমুল বিশৃঙ্খলা শুরু হয়েছে রাজ্যে। শ্মশানে উপচে পড়া মৃতদেহের ভিড় তো রয়েইছে,তার সঙ্গে যোগ হয়েছে চরম 'অসভ্যতা'! কোথাও কোথাও মৃতদের সৎকার করার সুবাদে আত্মীয় পরিজনের কাছ থেকে চাওয়া হচ্ছে মোটা টাকা। এই তারকা সাংসদের নির্বাচনী কেন্দ্র ঘাটালও রয়েছে এই তালিকায়। আর তা জানার পরেই নড়েচড়ে বসেছেন দেব। দেরি না করে মুখ্যমন্ত্রীর কাছে শ্মশান তৈরির আর্জি জানিয়ে চিঠি লিখেছিলেন তিনি। অনুমতিও মিলেছে প্রায় সঙ্গে সঙ্গেই। এরপরেই ঘটালে নতুন শ্মশানঘাট তৈরির নির্দেশ দিয়েছেন এই তৃণমূল সাংসদ।

গোটা ঘটনা নিয়ে দেব জানিয়েছেন যে ঘাটালের একাধিক শ্মশান লোকালয়ের মধ্যে অবস্থিত। ফলে করোনা সংক্রমণে মৃত ব্যক্তিদের দেহ সৎকারের ব্যাপারে সেখানে আপত্তি জানাচ্ছেন স্থানীয় বাসিন্দারা। উপায় না দেখে এক শ্মশান থেকে অন্য শ্মশানে মৃতদেহ নিয়ে ঘুরতে হচ্ছে আত্মীয়-পরিজনদের। এই ব্যাপার দেবের কানে আসার পরেই তাঁর মনে হয় কেন ঘাটালের বাসিন্দারা এহেন পরিস্থিতিতে মেদিনীপুর কিংবা খড়গপুরের শ্মশানে যেতে হবে। কোনও ফাঁকা জায়গায় স্থান সংকুলান হলেই তো বানানো যেতে পারে শ্মশানঘাট। যেমন ভাবা তেমন কাজ। এরপর মুখ্যমন্ত্রীর অনুমতি পাওয়ামাত্রই ঘটালে নতুন শ্মশান তৈরির নির্দেশ দিয়েছেন এই তারকা-সাংসদ।

বন্ধ করুন