বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > 'জুলফিকারের বদলা নিচ্ছি না!' সৃজিত মুখোপাধ্যায়কে কাস্ট করে জানালেন শ্রীজাত
এবার শ্রীজাতর নির্দেশনায় অভিনয় করবেন সৃজিত। ( ছবি - ফেসবুক)
এবার শ্রীজাতর নির্দেশনায় অভিনয় করবেন সৃজিত। ( ছবি - ফেসবুক)

'জুলফিকারের বদলা নিচ্ছি না!' সৃজিত মুখোপাধ্যায়কে কাস্ট করে জানালেন শ্রীজাত

  • শ্রীজাতর পরিচালনায় এবার সৃজিত মুখোপাধ্যায়। ছোট্ট হলেও ‘মানবজমিন’ ছবির ক্ষেত্রে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ সৃজিত অভিনীত সেই চরিত্রটি। জানালেন খোদ পরিচালক। শ্রীজাতর দাবি, এমন অবতারে সৃজিতকে আগে দেখেননি দর্শক।

আগেই জানা গেছিল আপাতত কালি,কলম তুলে নরম গলার স্বরে পারদ চড়িয়ে তিনি হাঁক পাড়বেন 'লাইট ক্যামেরা অ্যান্ড অ্যাকশন!' কথা হচ্ছে সাহিত্যিক শ্রীজাতকে নিয়েই। সাহিত্যিক হিসেবে খ্যাতির চূড়ায় থাকাকালীনই পরিচালকের আসনে বসতে চলেছেন তিনি। আপাতত শ্রীজাতর প্রথম ছবির নাম রাখা হয়েছে 'মানবজমিন'। তবে শীর্ষেন্দু মুখোপাধ্যায়ের বিখ্যাত উপন্যাসের সঙ্গে সমনামী হলেও এই ছবির গল্পের সঙ্গে ওই উপন্যাসের কোনও মিল নেই, দাবি স্বয়ং শ্রীজাতর। জানা গেছে, ছবিতে সুরকারের দায়িত্ব সামলাবেন জয় সরকার। গানও বাঁধবেন তিনি। এক্ষেত্রে তাঁকে যোগ্য সংগত দেবেন শ্রীজাতও।

এবার জানা গেল শ্রীজাতর 'মানবজমিন'-এ অভিনয় করতে চলেছেন পরিচালক সৃজিত মুখোপাধ্যায়। নিজের পরিচালিত ছবিতে টুকটাক অভিনয় করতে দেখা গেলেও এর বাইরে কৌশিক গঙ্গোপাধ্যায় এবং অঞ্জন দত্তের পরিচালনায় যথাক্রমে 'শব্দ' এবং' দত্ত ভার্সেস দত্ত'-তে অভিনেতা হিসেবে দর্শকদের সামনে হাজির হয়েছিলেন তিনি। এবার পালা শ্রীজাতর। এ যেন সেই 'সার্কেল অফ লাইফ'!  কারণ এর আগে সৃজিতের পরিচালনায় 'জুলফিকার' ছবিতে কিন্তু ছোট্ট একটি চরিত্রে মুখ দেখিয়েছিলেন শ্রীজাতও। প্রসঙ্গত, 'মানবজমিন' এর প্রযোজক রানা সরকার এই খবর ফেসবুকে ঘোষণা করেছেন। সৃজিত ও শ্রীজাত দু'জনের ছবি দিয়ে ক্যাপশনে মজা করে তিনি লিখেছেন, 'তাহলে কি এবার জুলফিকারের বদলা নেবেন কবি?'

'মানবজমিন'-এর প্রযোজক রানা সরকারের সেই পোস্ট। ( ছবি - ফেসবুক)
'মানবজমিন'-এর প্রযোজক রানা সরকারের সেই পোস্ট। ( ছবি - ফেসবুক)

গোটা প্রসঙ্গে হিন্দুস্তান টাইমসকে নব্য-পরিচালক হাসতে হাসতে জানিয়েছেন,' না, না এসব প্রতিশোধের কোনও ব্যাপারই নেই। রানা স্রেফ মজা করেই লিখেছে ওসব' সামান্য থেমে শ্রীজাত আরও বললেন,' সৃজিত মূলত এই ছবিতে অতিথি শিল্পী হিসেবেই হাজির হচ্ছেন। তবে চরিত্রটি ছোট হলেও বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ। সৃজিতের চরিত্রের ব্যাপারে এটুকু বলতে পারি যে ভীষণই ইন্টারেস্টিং। জোর গলায় বলছি, সৃজিতকে এমন চরিত্রে দর্শক আগে দেখেননি। এর থেকে বেশি কিছু ভাঙতে চাইছি না এখনই। তবে আরও বলব, সৃজিত ছাড়া ওই নির্দিষ্ট চরিত্রে অন্য কাউকে ভাবিনি। চরিত্রটি লেখার সময় থেকেই সৃজিতই মাথায় ছিল। আজ সকালবেলা ফোনের ওপর থেকে এই প্রস্তাবে হ্যাঁ বলেছে ও। সঙ্গে জানিয়েছে সেই সময়ে মুম্বইয়ে ছবির কাজে ব্যস্ত থাকলেও তারই ফাঁকে এই ছবির জন্য দু'দিন শুট করে যাবে।' উল্লেখ্য, অগাস্ট মাসের দ্বিতীয় সপ্তাহ থেকেই শুরু হয়ে যাবে 'মানবজমিন'-এর শুটিং।ছবিতে টলিপাড়ার পুরোনো জনপ্রিয় মুখের সঙ্গে দেখা যাবে নয়া প্রজন্মের অভিনেতা-অভিনেত্রীদেরও।

তা কী ধরণের ছবি হতে চলেছে 'মানবজমিন'? নিজের বক্তব্যের শেষে শ্রীজাত যোগ করেন,' ভীষণ সাদামাটা কিন্তু হিউমার রয়েছে। তবে ভাবনারও কিছু জায়গা রয়েছে। বলতে চাইছি, এ ছবি দর্শকদের ভাবাবে। আরও একটু সহজ করে বললে এই ছবি মধ্যবিত্ত মানুষের গল্প বলতে চায় কিন্তু হাসির মোড়কে। তাই সে অর্থে ঠিক রম-কম কিন্তু নয় এই ছবি।' নিজের পরিচালিত ছবিতে কি শ্রীজাতকে এক ঝলক দেখতে পাবে দর্শক? 'একদম নয়। একবারই পর্দায় মুখ দেখিয়ে আমার শিক্ষা হয়ে গেছে। সৃজিতের দয়ায় নিজেকে একবার পর্দায় দেখে এত ভয় লেগেছিল যে ওদিকে আর পা মাড়াচ্ছি না।' হাসতে হাসতে কবির জবাব।

বন্ধ করুন