বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > ১৯ বছর বয়সে ধর্ষণের শিকার হয়েছিলেন লেডি গাগা, আজও মনে পড়লে শিউরে ওঠেন সেসব দিন!
লেডি গাগা। (ফাইল চিত্র)
লেডি গাগা। (ফাইল চিত্র)

১৯ বছর বয়সে ধর্ষণের শিকার হয়েছিলেন লেডি গাগা, আজও মনে পড়লে শিউরে ওঠেন সেসব দিন!

  • সেই সময় সন্তানসম্ভবা হয়ে পড়েন গাগা। তাঁর মা-বাবার বাড়ির সামনে তাঁকে ফেলে দিয়ে যাওয়া হয় ওই অবস্থায়!

মার্কিন পপ তারকা লেডি গাগা-র জনপ্রিয়তা আকাশচুম্বী। জিতেছেন গ্র্যামি ও অস্কার। অনেক পুরুষের রাতের ঘুম কেড়েছেন নিজের আকর্ষনীয় চেহারায়। তবে, সাহসী, স্পষ্টবক্তা গাগাকেই ধর্ষিত হতে হয়েছিল, তাও একবার নয় বহুবার। তখন তিনি মাত্র ১৯ বছরের। 

এটা তখনকার কথা, যখন তিনি লেডি গাগা হয়ে ওঠেননি, বরং সংগীতশিল্পী হিসেবে হলিউডে স্ট্রাগল করছেন। নাম ছিল স্টেফনি, যা এখন ভুলতে বসেছেন শ্রোতা ও দর্শকরা। সেই সময়তেই এক প্রযোজক তাঁকে জানিয়েছিল, তাঁর সৃষ্টি গানগুলি পুড়িয়ে ফেলা হবে। সেগুলি যদি বাঁচাতে চান তাহলে পোশাক খুলতে হবে। এভাবেই স্পষ্টভাষায় তাঁকে শারীরিক সম্বন্ধ স্থাপনের জন্য জোর করা হয়েছিল। এরপর দিনের পর দিন ধর্ষিত হতে থাকেন গাগা। শেষে গর্ভবতী হয়ে পড়েন। অসহায় স্টেফানিকে ফেলে পালিয়ে যায় ওই ব্যক্তি। সেই দিনগুলোর কথা ভাবলে এখনও ভয় পান। ওই ঘটনার পর দীর্ঘদিন ভুগেছিলেন অবসাদে। বহু কষ্টে তা কাটিয়ে উঠেছেন। ২০১৪ সালে এক সাক্ষাৎকারে প্রথম যৌন হেনস্থার কথা স্বীকার করেন লেডি গাগা।

এরপর একাধিক সম্পর্কে জড়ান গায়িকা। তবে কোনওটিই স্থায়ী হয়নি। বর্তমানে মাইকেল পোলানস্কি নামের এক উদ্যোগপতির সঙ্গে সম্পর্কে রয়েছেন তিনি। ফের গাগা সামনে নিয়ে এলেন তাঁর ভয়ঙ্কর অতীত। মার্কিনি ডক্যুসিরিজ 'দ্য মি ইউ নেভার সি'-তে সবার সামনে ফের সরব হবেন গাগা। ওপরা উইনফ্রে এবং প্রিন্স হ্যারি প্রযোজিত এই ডক্যুসিরিজে থাকছে বিশ্বের বিখ্যাত কিছু ব্যক্তিত্বের মানসিক এবং শারীরিক যন্ত্রণাকে জয় করার কাহিনি। প্রথম এপিসোডেই থাকবে লেডি গাগার জীবনের অভিজ্ঞতা। 

বন্ধ করুন