বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > 'এক ঘন্টায় ৫০ হাজার টাকা পাব শুনে রাজি হয়ে গিয়েছিলাম', রহস্য ফাঁস করলেন মিলিন্দ
মিলিন্দ সোমান (IANS)
মিলিন্দ সোমান (IANS)

'এক ঘন্টায় ৫০ হাজার টাকা পাব শুনে রাজি হয়ে গিয়েছিলাম', রহস্য ফাঁস করলেন মিলিন্দ

  • প্রথম বার মডেলিং-এ এক ঘণ্টার কাজের কাজের জন্য অফার করা হয়েছিল ৫০ হাজার টাকা। শুনে রাজি হয়ে গিয়েছিলেন মিলিন্দ। এরপরই মোড় ঘুরে যায় তাঁর কেরিয়ারের। 

অতীতের স্মৃতি চারণা ঘটালেন মডেল তথা অভিনেতা মিলিন্দ সোমন। মডেলিং থেকে অভিনয় সব জায়গায় সমান তালে কাজ করেছেন বছর ৫৫-এর এই অভিনেতা। তবে কেরিয়ারের শুরুতে তিনি ভীষণ লাজুক ছিলেন, জানান মিলিন্দ। 

সম্প্রতি নিজের ইনস্টাগ্রামে পোস্ট করে অভিনেতা জানান তাঁর কেরিয়ার শুরুর গল্প। নিজের ইনস্টাগ্রাম পোস্টে তিনি লিখেছেন, ‘১৯৮৯ সালে আমার প্রথম বিজ্ঞাপন অ্যাসাইনমেন্ট! এর আগে আমি জানতামও না মডেলিং কেরিয়ার হতে পারে। আচমকা এক ব্যক্তি একদিন আমাকে ফোন করেন। তিনি আমাকে কোথাও একটা দেখেছিলেন এবং আমাকে কিছু ছবি তোলার কথা বলেন। কিন্তু সেই সময় আমি লাজুক ছিলাম, তাই দ্বিধা বোধ করছিলাম। তবে এক ঘণ্টার কাজের জন্য যখন আমাকে ৫০ হাজার টাকার অফার করা হয়েছিল আমি রাজি হয়ে গিয়েছিলাম। ধন্যবাদ রসনা বহেল।’

জানা যায়, এরপর থেকেই ধীরে ধীরে বিনোদন জগতে তাঁর প্রবেশ। মডেলিংয়ে সফলতার পরে তিনি টেলিভিশন শো করতে শুরু করেন। ‘সি হক’,  ‘ক্যাপ্টেন ভিয়ম' এর মতো বিখ্যাত ধারাবাহিকে অভিনয় করেন তিনি। ‘রুলস: পেয়ার কা সুপার হিট ফর্মুলা’, ‘জুরম’, ‘বাজিরাও মস্তানি’, ‘সেফ’ ছবিতে অভিনয় করতে দেখা যায় তাঁকে। 

সাহসী মনোভাবের জন্য হামেশাই চর্চায় থাকেন এই প্রাক্তন সুপার মডেল। অল্ট বালাজির পরবর্তী শো পৌরুষপুরে ট্রান্সজেন্ডারের ভূমিকায় দেখা যাবে মিলিন্দকে, সেই নিয়েও শোরগোল সোশ্যালে। 

সম্প্রতি, হিন্দুস্তান টাইমসকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে মিলিন্দ জানিয়েছেন, তিনি এবং পরিচালক সচিন্দ্র ভাট একঘেঁয়ে চরিত্র পছন্দ করেন না। গল্পে চরিত্রের আচরণ, বক্তব্য, পোশাক সব একই রকম হবে। সেদিকে তাঁরা নজর দিতে চাননা। তাঁদের উদ্দেশ্য মানবতার দিকগুলি তুলে ধরা এবং লিঙ্গ বৈষম্যকে দূর করা।  

বন্ধ করুন