বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > জন্মদিনে মা বেলা রাজপুতকে শুভেচ্ছা মীরার, ঈশান খট্টর দিলেন 'সুপার নানি'-র তকমা!
মা বেলা রাজপুতের সঙ্গে মীরা। ছবি সৌজন্যে - হিন্দুস্তান টাইমস
মা বেলা রাজপুতের সঙ্গে মীরা। ছবি সৌজন্যে - হিন্দুস্তান টাইমস

জন্মদিনে মা বেলা রাজপুতকে শুভেচ্ছা মীরার, ঈশান খট্টর দিলেন 'সুপার নানি'-র তকমা!

  • মা বেলা রাজপুতের জন্মদিনে তাঁকে শুভেচ্ছা জানালেন মীরা রাজপুত।নেটমাধ্যমে মায়ের সঙ্গে নিজের একটি ছবি পোস্ট করে 'শাহিদ-পত্নী'-র মিষ্টি শুভেচ্ছাবার্তা মন কেড়েছে নেটিজেনদের। শুভেচ্ছা জানিয়েছেন ঈশান খট্টরও।

গত বৃহস্পতিবার মা বেলা রাজপুতের জন্মদিনে তাঁকে শুভেচ্ছা জানালেন মীরা রাজপুত। ইনস্টাগ্রামের দেওয়ালে মায়ের সঙ্গে নিজের একটি ছবি পোস্ট করে 'শাহিদ-পত্নী'-র মিষ্টি শুভেচ্ছাবার্তা মন কেড়েছে নেটিজেনদের। ছবিতে মা-মেয়ে দু'জনেই হাসিমুখে তাকিয়ে রয়েছেন ক্যামেরার দিকে। আর পিছন থেকে দাঁড়িয়ে আলতো করে মা-কে সযত্নে জড়িয়ে রয়েছেন মীরা।

ছবির সঙ্গে মীরা লিখেছেন,' মা, তুমিই আমার সবকিছু। তুমি যেভাবে সবকিছু করো সেভাবেই আর কেউই করতে পারবে না। তুমি যেভাবে সব সামলাও, সেটাও অন্য করোও পক্ষে করা অসম্ভব।' পাশাপাশি মা-কে 'নিঃস্বার্থ, হাসিখুশি এবং সুন্দরী'-র তকমা দিয়ে মেয়ের শুভেচ্ছা 'হ্যাপি বার্থডে!'

 

মীরার এই পোস্টে বেলা রাজপুতকে শুভেচ্ছা জানিয়ে শাহিদের ভাই বলি-অভিনেতা ঈশান খট্টরের কমেন্ট, 'সুপার নানি।' জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন 'ভোগ' পত্রিকার ফ্যাশন এডিটর তথা প্রখ্যাত বলি-স্টাইলিস্ট অনিতা শ্রফ আদাজানিয়া। এই তারকাদের পাশে নেটিজেনদেরও যে এই পোস্ট মনে ধরেছে সেকথা বলার আর অপেক্ষা রাখে না। মীরার এই পোস্টের তারিফ করে বেলা রাজপুতের উদ্দেশে ভেসে এসেছে অসংখ্য শুভেচ্ছাবার্তা।

 

মীরার এই পোস্টে বেলা রাজপুতকে শুভেচ্ছা জানিয়ে শাহিদের ভাই বলি-অভিনেতা ঈশান খট্টরের কমেন্ট, 'সুপার নানি।' হ=জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন 'ভোগ' পত্রিকার ফ্যাশন এডিটর তথা প্রখ্যাত বলি-স্টাইলিস্ট অনিতা শ্রফ আদাজানিয়া। এই তারকাদের পাশে নেটিজেনদেরও যে এই পোস্ট মনে ধরেছে সেকথা বলার আর অপেকলখা রাখে না। মীরার এই পোস্টের তারিফ করে বেলা রাজপুতের উদ্দেশে ভেসে এসেছে অসংখ্য শুভেচ্ছাবার্তা।

তবে মা-কে নিয়ে মাঝেমধ্যেই সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করে থাকেন মীরা।চলতি বছরের 'মাদার্স ডে'-তেও এই নিয়মের হেরফের হয়নি। সেখানে মাকে জড়িয়ে ধরে হাসিমুখে পোজ দিতে দেখা গেছিল তাঁকে। সঙ্গে লিখেছিলেন,' স্রেফ ধন্যবাদ বললে তোমাকে কিচ্ছুটি বলা হয় না। তুমিই যে আমার 'লাইফলাইন'! হ্যাপিটি মাদার্স ডে,মা।'

বন্ধ করুন