বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > অসুস্থ স্ত্রী, আর্থিক সাহায্যের আর্জি ডিস্কো ডান্সার পরিচালকের,পাশে মিঠুন-অনিলরা
অসুস্থ ডিস্কো ডান্সার পরিচালকের স্ত্রী
অসুস্থ ডিস্কো ডান্সার পরিচালকের স্ত্রী

অসুস্থ স্ত্রী, আর্থিক সাহায্যের আর্জি ডিস্কো ডান্সার পরিচালকের,পাশে মিঠুন-অনিলরা

  • টাকার অভাবে মৃত্যুশয্যায় থাকা স্ত্রীর চিকিত্সরা চালাতে পারছেন না পরিচালক, ইন্ডাস্ট্রির কাছে আর্থিক সাহায্য চাইলেন ‘ডিস্কো ডান্সার’ পরিচালক।

‘ডিস্কো ডান্সার’-এর মতো ব্লকবাস্টার ছবির পরিচালক বব্বর সুভাষ। কিন্তু বর্ষীয়ান পরিচালক ভুগছেন তীব্র অর্থকষ্টে। স্ত্রী তিলোত্তমা গুরুতর অসুস্থ, ফুসফুস ও কিডনির সমস্যার জেরে মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছেন। ভর্তি রয়েছেন মুম্বইয়ের কোকিলাবেন হাসপাতালে। এই মুহূর্তে স্ত্রীর চিকিত্সার জন্য ৩০ লক্ষ টাকার প্রযোজন সুভাষবাবুর। কিন্তু সেই খরচ বহন করতে না পেরে ইন্ডাস্ট্রির সহকর্মীর কাছে সাহায্যের আর্জি রেখেছেন পরিচালক। 

গত পাঁচ বছর ধরেই নানান শারীরিক জটিলতায় ভুগছেন বব্বর সুভাষের ৬৭ বছর বয়সী স্ত্রী। পাঁচ বছর আগে তাঁর দুটি কিডনি নষ্ট হয়ে গিয়েছিল। সেই সময় কিডনি প্রতিস্থাপনের সিদ্ধান্তও নেওয়া হয়েছিল, কিন্তু তাঁর ফুসফুসেও সমস্যা ধরা পড়ায় সেই পরিকল্পনা বাতিল করতে হয়। সেই সময় সুভাষবাবুকে আর্থিক সহায়তা করেছিলেন অভিনেতা সলমন খান। সংবাদ সংস্থা পিটিআই-কে জানিয়েছেন তিনি। 

গত সেপ্টেম্বর মাস থেকে হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন তিলোত্তমা দেবী। হাসপাতালের বিপুল পরিমাণ বিল মেটাতে বাধ্য হয়েই ইন্ডাস্ট্রির মানুষজনের কাছে সাহায্য চাইতে হচ্ছে তাঁকে, তাঁর মেয়ে শ্বেতা অনলাইনে একটি ফান্ডরাইসার শুরু করেছেন। জানা গিয়েছে ইতিমধ্যেই সুভাষবাবুর পরিবারকে আর্থিক সাহায্যের আশ্বাস দিয়েছেন ‘ডিস্কো ডান্সার’ মিঠুন চক্রবর্তী, অনিল কাপুর, জুহি চাওয়ালারা। 

৭৬ বছর বয়সী পরিচালকের পরিবার করোনাকালে তীব্র আর্থিক সংকটের মুখোমুখি হয়েছেন। করোনা পূর্ববর্তী সময়ে এক হলিউডের প্রযোজনা সংস্থার সঙ্গে কথাবার্তা চলছিল সুভাষবাবুর। আইকনিক ‘ডিস্কো ডান্সার’-এর হলিউড রিমেক নিয়ে কথাবার্তা বেশকিছু দূর এগিয়েও ছিল। কিন্তু করোনার জেরে সেই প্রোজেক্টের কাজ আচমকা বন্ধ হয়ে যায়। 

শশী কাপুর ও হেমা মালিনীর ‘আপনা খুন’ ছবির সঙ্গে খুব অল্প বয়সে পরিচালক হিসাবে হাতেখড়ি হয় সুভাষের। এরপর ‘তকদির কা বাদশা’, ‘কসমন পেয়দা করনে বালে কি’, ‘অ্যাডভেঞ্চার্স অফ টারজান’, ‘ডান্স ডান্স’-এর মতো ছবি পরিচালনা করেছেন তিনি। 

 

বন্ধ করুন