বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > Srijit-Mithila: ‘সৃজিত না থাকলে বাড়ি ফাঁকা লাগে’, বিচ্ছেদ নয়, বরং বরকে চোখে হারাচ্ছেন মিথিলা

Srijit-Mithila: ‘সৃজিত না থাকলে বাড়ি ফাঁকা লাগে’, বিচ্ছেদ নয়, বরং বরকে চোখে হারাচ্ছেন মিথিলা

সৃজিত-মিথিলা। 

সৃজিত আর মিথিলার পোস্ট থেকেই রটে গিয়েছিল দুজনে নাকি আলাদা হচ্ছেন। পরে সেই গুঞ্জন উড়িয়ে দেন মিথিলা। এবার জানালেন বরকে ছাড়া বাড়িটাই তাঁর ফাঁকা ফাঁকা লাগে। 

নভেম্বরের শুরুর দিকে হঠাৎই রটে যায় ভাঙন ধরেছে সৃজিত মুখোপাধ্যায় আর বাংলাদেশের নায়িকা রফিয়াত রশিদ মিথিলার সম্পর্কে। এর পিছনে ছিল দুজনের একটা পোস্ট। যা দুই তারকা একইদিনে করেছিলেন। আর দুজনের পোস্টেই ছিল বিষাদের সুর। তারপরই রটে যায় ২০১৯ সালে হওয়া এই বিয়ে ভাঙতে বসেছে। 

সৃজিত-পত্নী লিখেছিলেন, ‘কীভাবে জানো তুমি যে প্রেম সত্যি? কীভাবে জানো এই প্রেম ন্যায্য? উত্তর পেতে কতদূর যেতে পারবে তুমি জানার আগে যে সেটা সেখানে নেই?’ এই একইদিনে সৃজিত জোন বায়েজের লেখা ফেয়ারওয়েল অ্যাঞ্জেলিনা গানের লাইন কোট করে লিখেছিলেন। সঙ্গে বেশ মন উদাস করে দেওয়া একটা ছবি। কোনও এক সমুদ্র সৈকতে ডালপালাহীন এক গাছে হাত দিয়ে দাঁড়িয়ে একমনে ঢেউ দেখছেন। আর এখানে গানের লাইন বলছে, ‘সেখানে রাগের দরকার নেই, সেখানে দোষারোপের প্রয়োজন নেই। সেখানে কিছু প্রমাণ করার নেই। সব একই আছে। শুধু একটা গাছ একাকি দাঁড়িয়ে আছে সৈকতে। সমুদ্রের ধার ঘেঁষে। বিদায় অ্যাঞ্জেলিনা। আকাশ কাঁপছে। এবার বিদায় নিতে হবে।’

এর আগেও এই নিয়ে কথা বলেছেন মিথিলা। জানিয়েছেন তাঁদের দুজনের করা পোস্ট থেকে যে এরকম কিছু রটে যেতে পারে তা তিনি স্বপ্নেও ভাবেননি। এমনকী বিষয়টাকে ‘অনৈতিক’ও বলেছিলেন। 

এবার বাংলাদেশের অভিনেত্রী কথা প্রসঙ্গে জানালেন, ‘যখন আমি কলকাতা আসি, সৃজিতকে ছাড়া বাড়িটা খুব ফাঁকা ফাঁকা লাগে। সুতরাং এই সব কথায় কান দেওয়ার আমার কোনও সময়ই নেই।’ আসলে, এই বছরটা দুজনেরই বাইরে বাইরে কেটেছে। সৃজিত বেশিটা সময়ই ছিলেন মুম্বইতে। আর মিথিলা বাংলাদেশ-আফ্রিকা যাতায়াত করেছেন নিজের কাজে। মিথিলার কথায়, তিনি বিষয়টা জানতে পারেন যখন কিছু বন্ধুর ফোন আর মেসেজ পান। বলেন, ‘আমার মনে হয়েছিল ফোটোশ্যুটের ওই ছবির সঙ্গে ওই গানটাই ভালো যাবে। আর সৃজিত যেটা দিয়েছে বব ডিলানের এই গানটা তো আমাদের দুজনেরই প্রিয়। ’

 

বন্ধ করুন