বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > কেকে-কে নিয়ে বলা কথাগুলি ‘ঔদ্ধত্যের প্রকাশ’ মেনে নিলেন রূপঙ্কর, আর বললেন…
কেকে-র নামে বলা কথাগুলো ঔদ্ধত্য ছিল বলে মেনে নিলেন রূপঙ্কর বাগচি। 

কেকে-কে নিয়ে বলা কথাগুলি ‘ঔদ্ধত্যের প্রকাশ’ মেনে নিলেন রূপঙ্কর, আর বললেন…

  • বারবার কেকে-প্রসঙ্গে ক্ষমা চাইছেন রূপঙ্কর বাগচি। তবুও যেন রাগ কমছে না মানুষের। কবে সব ঠিক হবে? 

কেকে-বিতর্কে প্রায় দু' সপ্তাহ কেটে গেলেও এখনও কোণঠাসা হয়ে রয়েছেন রূপঙ্কর বাগচি। আসলে কেকে মারা যাওয়ার আগে তাঁকে নিয়ে যে বিতর্ক-মূলক কথা বলেছিলেন তা চাইলেও ভুলতে পারছে না মানুষ। এর আগেও নি:শর্ত ক্ষমা চাইতে দেখা গিয়েছিল রূপঙ্করকে প্রেস ক্লাবে। সম্প্রতি ফের একবার নিজের ভুল স্বীকার করে নিলেন এই গায়ক। 

৩১ মে কলকাতার নজরুল মঞ্চে শো করতে এসে মারা যান কেকে। শো শেষ করে হোটেলে ফিরেই অসুস্থ হয়ে পড়েন। সঙ্গে সঙ্গে হাসপাতালে নিয়ে গিয়েও কোনও লাভ হয়নি। কেকে-র আকষ্মিক মৃত্যু বড় আঘাত এনেছিলে কেকে-র ভক্তদের উপরে। সঙ্গে ঠিক কয়েক ঘণ্টা আগে কেকে-কে নিয়ে রূপঙ্করের বলা কথাগুলো যেন আগুনে ঘি ঢালার মতো কাজ করে। সব রাগ গিয়ে পড়ে বাংলার এই গায়কের উপরে। আরও পড়ুন: কেকে মারা যাওয়ায় ভয় পেয়েছে শানের ছেলেরা, জোর করে বাবাকে পাঠায় ডাক্তারের কাছে

সম্প্রতি এক বাংলা সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে কথা প্রসঙ্গে রূপঙ্কর একপ্রকার মেনেই নিলেন সেদিনের বলা কথাগুলো-য় একটু হলেও সমস্যা ছিল। বললেন, ‘নিজেই নিজের বক্তব্যের মধ্যে নিজেকে খুঁজে পাইনি, পেয়েছিলাম ঔদ্ধত্যকে। মেনে নিলেন সোশাল মিডিয়ায় সেদিনের মন্তব্যের মধ্যে রূপঙ্কর বাগচি ছিল না। সঙ্গে রূপঙ্কর এটাও জানান, তিনি এটা মানেন আজ যারা তাঁকে নিয়ে ট্রোল করছে, একসময় এরাই তাঁর গান শুনেছে। তাঁকে ভালোওবাসত। 

প্রসঙ্গত, প্রেসক্লাবে নিজের বক্তব্য বাড়ি থেকে লিখে নিয়ে পাঠ করেছিলেন রূপঙ্কর। কেকে-র পরিবারের কাছে সেদিন ক্ষমাও চেয়ে নিয়েছিলেন। যদিও এভাবে দেখে দেখে বলাটা নিয়েও কটাক্ষ করেছিল একটা বড় অংশ। 

তবে এখন প্রশ্ন হল, এবার কি রাগ পড়বে? 

 

বন্ধ করুন