বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > Tollywood death: গল্ফ গ্রিনের অফিস থেকে উদ্ধার টলি প্রযোজকের দেহ, আর্থিক সমস্যার জেরে আত্মহত্যা?

Tollywood death: গল্ফ গ্রিনের অফিস থেকে উদ্ধার টলি প্রযোজকের দেহ, আর্থিক সমস্যার জেরে আত্মহত্যা?

রহস্যমৃত্যু টলিউড প্রযোজকের

Pankaj Das: ‘শব্দ-কল্প-দ্রুম’ প্রযোজকের ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার প্রযোজনা সংস্থার অফিস থেকে। মানসিক অবসাদে ভুগছিলেন পঙ্কজ দাস, দাবি ঘনিষ্ঠদের। তদন্তে গল্ফগ্রিন থানার পুলিশ। 

গলফ গ্রিনের প্রোডাকশন হাউজের অফিস থেকে উদ্ধার হল টলি প্রযোজকের ঝুলন্ত দেহ। ঘটনায় তীব্র চাঞ্চল্য গল্ফগ্রিনের অরবিন্দনগর এলাকায়। পুলিশ সূত্রে খবর, মৃতের নাম পঙ্কজ দাস, বয়স ৫৮ বছর। ‘শব্দ-কল্প-দ্রুম’ নামে এক বাংলা ছবি প্রযোজনা করেছিলেন প্রয়াত প্রযোজক। 

অরবিন্দনগরের একটি বাড়ি ভাড়া করে চলত ওই প্রোডকাশন অফিস। এদিন অফিসের অন্যান্য কর্মীরা ভিতরে ঢুকলে পঙ্কজ দাসের ঝুলন্ত দেহ দেখতে পান। এই রহস্যমৃত্যুর কারণ খতিয়ে দেখছে গল্ফগ্রিন থানার পুলিশ, ইতিমধ্যেই প্রযোজনা সংস্থার কর্মীদের জিজ্ঞাসাবাদ করছেন তাঁরা। ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে দেহ. তবে প্রাথমিকভাবে পুলিশের ধারণা আত্মহত্যাই করেছেন পঙ্কজ দাস। 

হো-চি-মিন সরনি এলাকার বাসিন্দা মৃত পঙ্কজ দাস। সিনেমার পাশাপাশি বেশকিছু  সিরিয়ালের প্রযোজনা সঙ্গেও যুক্ত ছিলেন মৃত পঙ্কজ দাস। যে অফিস থেকে তাঁর দেহ উদ্ধার হয়েছে সেটি অভিজিৎ পাণি নামের এক ব্যক্তির নামে ভাড়া নেওয়া। পেশায় জনসংযোগ কর্মী অভিজিৎ, তাঁর নিজস্ব পিআর সংস্থা রয়েছে। অভিজিৎ-ই এদিন প্রথম পঙ্কজ দাসের ঝুলন্ত দেহ দেখতে পায় অফিসে ঢুকে। এরপর পুলিশে খবর দিলে গল্ফগ্রিন থানার অফিসাররা দেহ উদ্ধার করে এমআর বাঙুল হাসপাতালে পাঠানো হয়, সেখানে তাকে মৃত বলে ঘোষণা করবার পর দেহ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। 

প্রাথমিক তদন্তে জানা গিয়েছে দীর্ঘদিন ধরেই পরিবারের থেকে আলাদা থাকতেন পঙ্কজ বাবু। ভুগছিলেন মানসিক অবসাদে। বৃহস্পতিবার রাতেও নাকি আত্মহত্যার চেষ্টা করেন তিনি, সেইসময় অভিজিৎ পাণি তাঁকে বুঝিয়ে সুঝিয়ে অফিসে নিয়ে আসে। এদিন সকাল এগারোটা নাগাদও অফিসের কর্মীরা তাঁকে দেখেছে। মিনিট ৪৫-এর মধ্যেই সব শেষ! 

 

 

বন্ধ করুন