অর্ণব ও আশা ভোঁসলে (ছবি-টুইটার)
অর্ণব ও আশা ভোঁসলে (ছবি-টুইটার)

'সৎ সাংবাদিক' অর্ণব গোস্বামীর উপর হামলার নিন্দায় আশা ভোঁসলে

  • কারুর বিরুদ্ধেই 'শারীরিক হিংসা' কোনও পরিস্থিতিতেই গ্রহণযোগ্য নয় টুইট বার্তায় উল্লেখ করেন আশা ভোঁসলে।

বর্ষীয়ান সঙ্গীতশিল্পী আশা ভোঁসলে সাংবাদিক অর্ণব গোস্বামীর উপর হামলার ঘটনার তীব্র সমালোচনা করলেন। একটি সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমের প্রধান অর্ণব গোস্বামীর অভিযোগ, স্টুডিয়ো থেকে বাড়ি ফেরার সময় বুধবার মধ্যরাতে লোয়ার প্যারেল এলাকায় তাঁর গাড়িতে হামলা চালানো হয়। সেই সময় গাড়িতে তাঁর স্ত্রী শ্যামাব্রতা রায় গোস্বামীও উপস্থিত ছিলেন। আশা ভোঁসলে অর্ণব গোস্বামীকে একজন সত্ সাংবাদিক বলে উল্লেখ করে লেখেন, গোটা ঘটনায় তিনি মর্মাহত। যে কোনও রকমের শারীরিক হিংসা একেবারেই গ্রহণযোগ্য নয় টুইট বার্তায় উল্লেখ করেন আশা ভোঁসলে।

সাংবাদিক অর্ণব গোস্বামীর সঙ্গে একটি ছবি পোস্ট করে তিনি লেখেন, 'খুবই মর্মাহত সত্ সাংবাদিক অর্ণব গোস্বামীর এবং তাঁর পরিবারের উপর হামলার ঘটনা শুনে। যে কোনও ব্যক্তির প্রতি শারীরিক হিংসা একেবারেই গ্রহণযোগ্য নয়। সত্যমেব জয়তে। আসল সত্যিটা অবশ্যেই সামনে আসবে'।


এর আগে অনুপম খের, মধুর ভান্ডারকর, অশোক পন্ডিতের মতো বলিউড তারকারা অর্ণব গোস্বামীর উপর আক্রমণের ঘটনার কড়া ভাষায় সমালোচনা করেছেন। অর্ণবের দাবি, তাঁর ওপর হামলা চালিয়েছে দুই কংগ্রেসকর্মী। তাঁর অভিযোগের ভিত্তিতে দুইজনকে ইতিমধ্যেই গ্রেফতার করা হয়েছে।

অন্যদিকে কংগ্রেস সভানেত্রী সোনিয়া গান্ধীর বিরুদ্ধে অপমানজনক উক্তি করেছেন, এই অভিযোগে সারা দেশ জুড়ে প্রায় দুশো এফআইআর দায়ের হয়েছে রিপাবলিক টিভির অ্যাঙ্কর অর্ণব গোস্বামীর বিরুদ্ধে। অর্ণবের বিরুদ্ধে মানহানির মামলা দায়ের করেছে কংগ্রেসকর্মীরা। পালঘরে সাধু হত্যা নিয়ে যেভাবে তিনি কংগ্রেস নেত্রীকে বিঁধেছিলেন, তাতেই চটেছেন কংগ্রেস নেতারা। মানহানির মামলার বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টের দারস্থ হয়েছিলেন এই সাংবাদিক। শুক্রবার দেশের সর্বোচ্চ আদালতের নির্দেশে আপাতত তিন সপ্তাহের মধ্যে তাঁকে এই মামলায় গ্রেফতার করতে পারবে না পুলিশ। এর মধ্যে তিনি অগ্রিম জামিনের আবেদন করতে পারবেন। একই সঙ্গে সারা দেশজুড়ে নয়, একটি এফআইআরের ভিত্তিতে মানহানি মামলার শুনানি হবে বলে জানিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট। অর্ণবের নিরাপত্তা সুনিশ্চিত করতে মুম্বই পুলিশ কমিশনারকে নির্দেশ দেন সুপ্রিম কোর্টের ডিভিশন বেঞ্চ।


বন্ধ করুন