বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > ‘আছি,থাকবো,বিক্রি বা দলবদলু হব না’, বাম প্রার্থী দীপ্সিতা হয়ে প্রচারে শ্রীলেখা
বামেদের হয়ে ভোট প্রচারে শ্রীলেখা
বামেদের হয়ে ভোট প্রচারে শ্রীলেখা

‘আছি,থাকবো,বিক্রি বা দলবদলু হব না’, বাম প্রার্থী দীপ্সিতা হয়ে প্রচারে শ্রীলেখা

  • বাম শিবিরের হয়ে প্রচারে শনিবার বালি বিধানসভা কেন্দ্রে হাজির ছিলেন শ্রীলেখা মিত্র।

প্রকাশ্য রাজনীতিতে না থেকেও তিনি ভীষণরকমভাবে আছেন। ব্রিগেডের মাঠে, প্রতিবাদ সভায়, টিভি চ্যানেলের বিতর্কানুষ্ঠানে, সোশ্যাল মিডিয়ায়… আর হ্যাঁ, ভোট প্রচারেও আছেন। কথা হচ্ছে শ্রীলেখা মিত্রর। আর খোলাখুলিভাবে বাম শিবিরের সমর্থক শ্রীলেখা। লাল রঙের প্রতি নিজের আশা এবং ভরসার কথা শুরু থেকেই জানিয়েছেন অভিনেত্রী। পাশাপাশি টলিপাড়ার সহকর্মী বন্ধুদের শিবির বদল কিংবা একুশের ভোটের আগে রাজনীতিতে নামার হিড়িক নিয়ে কটাক্ষ করতেও ছাড়েননি। 

শনিবার ‘হল্লা বোল’ ডাক দিয়ে বালির বাম প্রার্থী দীপ্সিতা ধরের হয়ে প্রচার করলেন শ্রীলেখা। একুশের বিধানসভা নির্বাচনে লাল শিবিরের অন্যতম তরুণ মুখ দীপ্সিতা। দিল্লির জেএনইউ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পিএইচডি করছেন, দীর্ঘদিন ছাত্র রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত। বালি বিধানসভা কেন্দ্রের বাদামতলা এলাকায় কখনও টোটোয় চড়ে,কখনও আবার পায়ে হেঁটে ভোট প্রচার করেন শ্রীলেখা মিত্র। 

‘বিজেমূল’ অর্থাত্ বিরোধী শিবিরকে কটাক্ষ করে শ্রীলেখা বললেন, ‘ফুল তো মরসুমে ফোটে, কাস্তে-হাতুড়ি সারা বছর থাকে। আমি আশাবাদী হাল ফেরাতে বাংলার মানুষ এবার সংযুক্ত মোর্চা মনোনীত প্রার্থীদেরই ভোট দেবেন’। পাশাপাশি দীপ্সিতার জন্য প্রশংসার বন্যা বইয়ে দিলেন শ্রীলেখা। তিনি বলেন, ‘দীপ্সিতার মত তরুণ প্রজন্মের মানুষরাই পারবে হাল ফেরাতে। কারণ তাঁদের শিরদাঁড়া এখন সোজা। যে গিমিক, ভাঁওতাবাজি চলছে,…. সেটা তো সাধারণ মানুষ এতদিনে বুঝে গেছেন’।

জোর গলায় শ্রীলেখা এদিন ফের বললেন, 'আমি অভিনেত্রী,নায়িকা নই। আমার মতো কিছু মানুষ আছেন যাঁরা এখনও টাকার লোভে বিক্রি হয়ে যায়নি। (আমি) ‘আছি,থাকবো,বিক্রি বা দলবদলু হব না’।

বন্ধ করুন