বাংলা নিউজ > বায়োস্কোপ > Karan Johar's Birthday: সাফল্যের তীরে বলিউডের জহুরি, সিনেমা আর কফির কাপে তৈরি করেছেন ভারতীয় ছবির সংজ্ঞা
করণ জোহর

Karan Johar's Birthday: সাফল্যের তীরে বলিউডের জহুরি, সিনেমা আর কফির কাপে তৈরি করেছেন ভারতীয় ছবির সংজ্ঞা

  • এমন সিনেমা যেখানে যৌনতা নিয়ে উদ্দামতা থাকবে না, পুরো পরিবার বসে দেখতে পারবে, ভালোবাসার ছটা থাকবে আর সুযোগ বুঝে জাতীয়তাবাদ - বিনোদনের অপরূপ ককটেলের সাথে ভারতীয় দর্শকের পরিচয় করিয়ে দেওয়ার কৃতিত্ব কিন্তু এই করণ জোহরের বটে!

রণবীর ভট্টাচার্য

সিনেমা কী রকম হওয়া উচিত? সিনেমার কি মূল্যবোধের দায়িত্ব রয়েছে? সিনেমার কি বাজার অর্থনীতির কাছেও কোন দায়বদ্ধতা রয়েছে? … সব ধারণা যদি বদলে দেওয়ার সাহস কেউ দেখাতে পারেন বিশ্বায়ন পরবর্তী মুম্বই সিনেমা ইন্ডাস্ট্রিতে, তাহলে তিনি এক এবং একমাত্র করণ জোহর। আজ পঞ্চাশে পা দিয়েছেন করণ। সিনেমার নির্দেশনা থেকে প্রযোজক কিম্বা ডিস্ট্রিবিউশন, সর্বত্র সাফল্যের মাপকাঠি হয়েছেন করণ। কেন সিনেমা অর্থনীতি কৃতজ্ঞ করণ জোহরের কাছে জানেন?

নব্বইয়ের দশক। অমিতাভ বচ্চন দেনায় ডুবে। সম সাময়িক অভিনেতা অভিনেত্রীরা ধারাবাহিক হিট দিতে পাচ্ছেন না। আমির খান, সলমন খান, শাহরুখ খান কিম্বা সইফের মত নায়ক উঠে আসছে। আবার আরেকদিকে অক্ষর কুমার, সুনীল শেঠিরা চেষ্টা করছেন। অনিল কাপুর, সানি দেওলরা এগোলেও প্রযোজকের খুব ভরসার জায়গা পেতে অনেক দেরি। এদিকে নরসীমা রাওয়ের সরকারের আমলে বিশ্বায়ন দেখে ফেলল ভারত, উন্মুক্ত হল দেশের বাণিজ্যের দরজা। স্বাভাবিক ভাবেই দ্বিধাবিভক্ত হয়েছিল দেশের বাণিজ্য মহল। তবে করণ জোহর কিন্তু এই সময়টাই খুঁজছিলেন। বিদেশি লোকেশনে শ্যুটিং, বিদেশিদের একস্ট্রা হিসেবে নেওয়া, চিত্রনাট্যে গল্প নায়ক নায়কদের বিদেশে যোগ - অনেকটা নতুন আঙ্গিক নিয়ে এলেন করণ জোহর। ঝা চকচকে সিনেমা দেখা অভ্যাস করিয়ে দিলেন করণ জোহর। দিলওয়ালে দুলহানিয়া লে জায়েঙ্গে, কুছ কুছ হোতা হ্যায়, কাল হো না হো - সব জায়গায় প্রত্যক্ষ ভাবে না থাকলেও করণ জোহরের প্রভাব অস্বীকার করা যায় না বটে! ষাট সত্তরের গানের সোনালি যুগ ফিরে না এলেও মিউজিক্যাল নিয়ে এল এই যুগ। এমন সিনেমা যেখানে যৌনতা নিয়ে উদ্দামতা থাকবে না, পুরো পরিবার বসে দেখতে পারবে, ভালোবাসার ছটা থাকবে আর সুযোগ বুঝে জাতীয়তাবাদ - বিনোদনের অপরূপ ককটেলের সাথে ভারতীয় দর্শকের পরিচয় করিয়ে দেওয়ার কৃতিত্ব কিন্তু এই করণ জোহরের বটে!

এখন ভারতীয় সিনেমা কিন্তু আরো এক যুগ সন্ধিক্ষণের মুখে। দক্ষিণ ভারতীয় সিনেমা দাপিয়ে বেড়াচ্ছে আর সহজেই কোটির লক্ষ্যমাত্রা ছাপিয়ে ইতিহাস বানাচ্ছে। অনেকেই হয়তো ভুলে গিয়েছেন যে বাহুবলীর হিন্দি ভার্সনের অন্যতম সহ-প্রয়োজক সেই করণ জোহর। তাই সত্যিই জহুরীর চোখ যশ জোহর এবং হিরু জোহরের প্রতিভাবান ছেলের। সারোগেসির মাধ্যমে নিজের সন্তান কিম্বা নিজের যৌনতা বা রঙের প্রতি মোহ - করণ জোহর সত্যিই আজকের বলিউডের ট্রেন্ডসেটার। অনেকেই হয়তো তুলে ধরবেন নেপটিজম বা পক্ষপাতিত্বের কথা, অসময়ে সুশান্ত সিং রাজপুত চলে যাওয়ার পর যেই নিয়ে তুমুল বিতর্ক হয়েছে দেশ জুড়ে। তবে তাতে করণ জোহরের কৃতিত্ব খাটো হয় না কোনমতেই!

ভারতীয় সিনেমার সবচেয়ে বড় বাজার বোধহয় অনাবাসী ভারতীয়দের মধ্যেই - এই সত্যি কথা সহজ ভাবে বুঝে প্রয়োগ করার জন্য ভারতীয় সিনেমা আন্তরিক ভাবে কৃতজ্ঞ থাকবে করণ জোহরের কাছে। তবে করণ জোহর মানেই গ্ল্যামার আর অবশ্যই চোখা চোখা প্রশ্নের সঙ্গে এক কাপ কফি!

বন্ধ করুন