বাংলা নিউজ > টুকিটাকি > How to quit smoking: এই সাতটি পদার্থ খেয়ে দেখুন! সহজ হবে ধূমপান ত্যাগ করা

How to quit smoking: এই সাতটি পদার্থ খেয়ে দেখুন! সহজ হবে ধূমপান ত্যাগ করা

ধূমপান ছাড়ার ঘরোয়া পদ্ধতি

Quit Smoking: অনেকেই সচেতন হয়ে ধূমপান ছাড়তে চান। কিন্তু কীভাবে সহজে ধূমপান ছাড়া যায় সেটা বুঝে উঠতে পারেন না। দেখে নিন কীভাবে সহজেই ধূমপান ছাড়তে পারেন।

বর্তমান সময়ের স্ট্রেস, ব্যস্ত জীবন যাপন, কাজের প্রেসারের কারণে অনেকেই সাময়িক মুক্তি পাওয়ার জন্য ধূমপান করে থাকেন। কিন্তু যেমন দিন দিন ধূমপান করে এমন মানুষের সংখ্যা বাড়ছে তেমন একই ভাবে ধূমপান ত্যাগ করছে এমন মানুষের সংখ্যাও কিন্তু নেহাত কম নয়। কিন্তু অনেক সময় স্বাস্থ্য সচেতন হয়েও, ধূমপান ত্যাগ করবেন ভেবেও সেটা শেষ পর্যন্ত করে উঠতে পারেন না।

যাঁরা চেয়েও ধূমপান ছাড়তে পারেন না তাঁরা কিন্তু কিছু সহজ ঘরোয়া টোটকা উপায় অবলম্বন করে সেটা করতেই পারেন। ঘরোয়া পদ্ধতি এই সব উপায়ে দারুন কাজে আসে। ধূমপান ছাড়তে চাইলে এই সব পন্থা একবার বেছে দেখতে পারেন। দেখে নিন কোন ঘরোয়া উপায়ে ধূমপান ছাড়বেন।

ধূমপান ছাড়ার ঘরোয়া পদ্ধতি:

লঙ্কার গুঁড়ো: ধূমপান ছাড়তে চাইলে এক গ্লাস জলে লঙ্কার গুঁড়ো মিশিয়ে সেই জল পান করুন। এটা করলে আপনার ফুসফুসের ক্ষমতা বাড়বে। এই পন্থা বেছে নিলে ধূমপানের কারণে আমাদের ফুসফুসের যে ক্ষতি হয় সেটা ধীরে ধীরে কমতে থাকে।

মুলেঠি: এটিও ধূমপানের নেশা ছাড়তে বেশ সাহায্য করে থাকে। নিয়মিত মুলেঠি খান। এটা খেলে যেমন আর ধূমপান করতে ইচ্ছে করবে না, তেমনই পেটের নানান সমস্যাও দূর হবে।

মুলো: দিন দুবার খেলে মুলোর রস খেলে কমে যায় ধূমপান করার ইচ্ছে। এই মুলোর রসে মধু মিশিয়ে খেতে পারেন।

আঙুর: আঙুরের রস আমাদের শরীরের ভিতর জমতে থাকা সমস্ত টক্সিক জিনিস বের করে দেয়। এটা আমাদের ফুসফুসের কাজ করার ক্ষমতা বাড়ায়। তেমনই ধূমপান করার ইচ্ছে কমাতে থাকে।

আদা: আদার সাহায্য নিতে পারেন ধূমপান ছাড়তে চাইলে। এতে এমন বেশ কিছু উপাদান আছে যা ধূমপান করার ইচ্ছেটাকে একদম কমিয়ে দেয়।

মধু: মধুতে রয়েছে ভিটামিন, এনজাইম, ও এবং প্রোটিন। এটা যেমন আমাদের ধূমপান করার ইচ্ছেকে দমন করে তেমনই এটি আমাদের শরীর থেকে নিকোটিন বের করে দেয়।

ওটস: এটিও ধূমপান করার ইচ্ছা কমায়। রোজ ২ কাপ ফোটানো জলের সঙ্গে ১ চামচ করে ওটস মিশিয়ে সারা রাত রেখে দিন। পরদিন সকালে আবার জলটাকে ফুটিয়ে অল্প অল্প করে খেতে থাকুন যে কোনও খাবারের পর।

বন্ধ করুন