ভারতের করোনা  কার্ভ
ভারতের করোনা  কার্ভ

এক দিনে আক্রান্ত ৫৬০৯, দেশে করোনা সংক্রামিতের সংখ্যা বেড়ে ১.১২ লক্ষ

এর মধ্যে ৪৫ হাজারের বেশি সুস্থ হয়ে উঠেছেন

INDIA : একদিনে আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ল ৫৬০৯। বৃহস্পতিবার সকালে স্বাস্থ্যমন্ত্রকের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, দেশে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ১১২, ৫৩৯। এর মঘ্যে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৪৫, ৩০০। মারা গিয়েছেন ৩.৪৩৫ জন। 

দৈনিক কেস বৃদ্ধির নিরিখে এটি দ্বিতীয়। বিভিন্ন রাজ্যে টেস্টের সংখ্যা বাড়ায় আক্রান্তের নম্বরও বাড়ছে। একই সঙ্গে পরিযায়ীরা যেহেতু বাড়ি ফিরছেন, তাই অনেক জেলায় ছড়িয়ে যাচ্ছে করোনা, যা উদ্বেগ বাড়ছে। 

চতুর্থ লকডাউনে কড়াকড়ি অনেকটা শিথিল করেছে কেন্দ্র ও রাজ্য সরকারগুলি। কিন্তু সেটা যে করানোর হার কমেছে বলে, তা নয়। মূলত অর্থনীতির কথা মাথায় রেখেই এই সিদ্ধান্ত। 

দেশের মধ্যে করোনার কেন্দ্রস্থল নিশ্চিত ভাবেই মহারাষ্ট্র, বিশেষত মুম্বই। উদ্ধব ঠাকরের রাজ্যে করোনা আক্রান্ত এখন ৩৯, ২৯৭। 

দ্বিতীয় স্থানে এই মুহূর্তে এসে গিয়েছে তামিলনাড়ু। যদিও খুব একটা পিছনে নয় গুজরাত ও দিল্লি। এই চার রাজ্যেই দশ হাজারের বেশি আক্রান্ত। দেশের মোট পনেরো রাজ্যে হাজারের বেশি মানুষ করোনা আক্রান্ত। তালিকায় অষ্টম স্থানে আছে পশ্চিমবঙ্গ ৩১০৩ কেস নিয়ে। 

আক্রান্ত ও মৃতের তালিকায় শীর্ষে মহারাষ্ট্র
আক্রান্ত ও মৃতের তালিকায় শীর্ষে মহারাষ্ট্র
কোথায় বাড়ছে নয়া কেস
কোথায় বাড়ছে নয়া কেস

পরিযায়ীরা নিজের বাড়িতে ফেরায় আক্রান্তের সংখ্যা দ্রুত বাড়ছে বিহার, আসাম, কর্নাটকের মতো রাজ্যেও। ওড়িশায় প্রায় দ্বিগুণ হয়েছে করোনা আক্রান্ত গত এক সপ্তাহে। কেন্দ্রীয় সরকার অবশ্য কত মানুষ সুস্থ হয়ে উঠছেন, সেই সংখ্যার ওপর জোর দিচ্ছে। 

৩১ মে অবধি দেশে চতুর্থ দফার লকডাউন চলবে। তবে কনটেনমেন্ট জোন ছাড়া প্রায় সারা দেশেই ধীরে ধীরে করে স্বাভাবিক জীবন শুরু করতে চায় প্রশাসন। সেই জন্য শিথিল করা হয়েছে বিধিনিষেধ। করোনা নিয়েই বাঁচতে হবে, এটাই বার্তা দিচ্ছে কেন্দ্র ও রাজ্য সরকারগুলি। 

বন্ধ করুন