বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > আট রাজ্যে উদ্বেগজনকভাবে বাড়ছে করোনা, বাড়ছে আশঙ্কা
দ্রুত বেগে ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাসের নবতম ব্রিটিশ সংস্করণ।
দ্রুত বেগে ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাসের নবতম ব্রিটিশ সংস্করণ।

আট রাজ্যে উদ্বেগজনকভাবে বাড়ছে করোনা, বাড়ছে আশঙ্কা

  • দিল্লি এবং মহারাষ্ট্রে উদ্বেগজনকভাবে করোনা সংক্রমণ বেড়েছে। তবে উল্লেখযোগ্যভাবে হ্রাস পেয়েছে কেরলে বলে জানাচ্ছে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রক।

দেশে যেভাবে প্রতিনিয়ত নতুন করে বেড়ে চলেছে করোনা সংক্রমণ তাতে কপালে ভাঁজ পড়েছে কেন্দ্রীয় সরকার এবং তার স্বাস্থ্যমন্ত্রকের। আটটি রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে এই করোনা সংক্রমণের বাড়বাড়ন্ত লক্ষ্য করা গিয়েছে। দিল্লি এবং মহারাষ্ট্রে উদ্বেগজনকভাবে করোনা সংক্রমণ বেড়েছে। 

শনিবার কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রক জানিয়েছে, মহারাষ্ট্র, কেরালা, পঞ্জাবকে যুক্ত করলে দেশের মধ্যে ৭৬.‌২২ শতাংশ সক্রিয় করোনা রোগী এখানে রয়েছে। যেখানে শুধু মহারাষ্ট্রে ৬২ শতাংশ আক্রান্ত রয়েছে। আর শতাংশের বিচারে কেরালা ও পঞ্জাবে রয়েছে যথাক্রমে ৮.‌৮৩ এবং ৫.‌৩৬ শতাংশ। তবে এখানে বাংলার নাম নেই বলেই জানা গিয়েছে।

এদিকে মহারাষ্ট্রের পাঁচটি রাজ্যে করোনা উদ্বেগজনকভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে। তার মধ্যে সবচেয়ে বেশি রয়েছে পুণে–৩৭ হাজার ৩৮৪, নাগপুর–২৫ হাজার ৮৬১, মুম্বই–১৮ হাজার ৮৫০, থামে–১৬ হাজার ৭৩৫ এবং নাসিক–১১ হাজার ৮৬৭। কেরালা–পঞ্জাবেও করোনার বাড়বাড়ন্ত লক্ষ্য করা গিয়েছে।

অন্যদিকে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকের পক্ষ থেকে যে বিবৃতি দেওয়া হয়েছে সেখানে উল্লেখ করা হয়েছে ৮টি রাজ্যে রোজ নতুন করে করোনা সংক্রমণ ধরা পড়ছে। তার মধ্যে রয়েছে—মহারাষ্ট্র, তামিলনাড়ু, পঞ্জাব, মধ্যপ্রদেশ, দিল্লি, গুজরাত, কর্নাটক এবং হরিয়ানা। আর কেরালার ক্ষেত্রে দেখা যাচ্ছে, প্রতিনিয়ত কমছে করোনা সংক্রমণ। এই বিবৃতিতে পশ্চিমবঙ্গের নামই নেই। তবে পাঁচ রাজ্য মিলিয়ে নতুন করে করোনায় মৃত্যুর হার দেখা যাচ্ছে ৮১.‌৩৮ শতাংশ। তার মধ্যে সর্বোচ্চ হার মহারাষ্ট্রে ৭০ শতাংশ।

বন্ধ করুন