বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > 'গণতন্ত্র তো মা, সেই গণতন্ত্রকে ধর্ষণ করছে বিজেপি', ত্রিপুরায় বললেন অভিষেক
অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। (ছবি সৌজন্য এএনআই)
অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। (ছবি সৌজন্য এএনআই)

'গণতন্ত্র তো মা, সেই গণতন্ত্রকে ধর্ষণ করছে বিজেপি', ত্রিপুরায় বললেন অভিষেক

  • বিজেপি সরকার গণতন্ত্রকে ধর্ষণ করছে বলে তিনি অভিযোগ করেছেন।

আগামী বৃহস্পতিবার ত্রিপুরার আগরতলায় পুরভোট রয়েছে। তার আগে কোমর বেঁধে ময়দানে নেমে পড়েছে তৃণমূল। সোমবার ত্রিপুরায় গিয়ে বিজেপির বিপ্লব দেবের সরকারকে কার্যত চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিলেন তৃণমূলের সর্বভারতীয় সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। এক সাংবাদিক বৈঠকে এদিন তিনি দাবি করেছেন, 'বিজেপি যতই বল প্রয়োগ করুক তৃণমূলের কাছে তারা হারবেই।'

তিনি দাবি করেন, দেশ স্বাধীন হলেও ত্রিপুরা এখনও স্বাধীন হয়নি। বিজেপি সরকার গণতন্ত্রকে ধর্ষণ করছে বলে তিনি অভিযোগ করেছেন। তিনি বলেন, 'বিজেপির নেতারা জায়গায় জায়গায় গিয়ে ভারত মাতা কি জয় বলে গলা ফাটাচ্ছেন। আরে গণতন্ত্র তো হল মা। অথচ সেই গণতন্ত্রকে তারা ধর্ষণ করছে। হরণ করে প্রতিনিয়ত নিলাম করছে।'

একইসঙ্গে আগামী বৃহস্পতিবার তৃণমূলকে ভোট দেওয়ার জন্য সেখানকার মানুষের কাছে আবেদন জানিয়েছেন অভিষেক। ভোটের দিন মানুষ যাতে কোনওভাবেই আক্রান্ত না হয়, তার জন্য অভিষেকের পরামর্শ, 'আপনারা অবশ্যই ভোট দেবেন। রাস্তায় বেরোলে যদি বিজেপির গুন্ডারা তাড়া করে, তাহলে বিজেপির পতাকা নিয়ে বেরোবেন। মোদীর ছবি নিয়ে বেরোবেন। দরকার হলে বিজেপি জিন্দাবাদ বলবেন। আর বুথে গিয়ে তৃণমূলকে ভোট দেবেন। এতদিন বিপ্লব দেবের বিজেপি সরকার আপনাদের ঠকিয়েছে তাই এবার আপনাদের পালা।'

তাঁর অভিযোগ, ত্রিপুরায় একের পর এক তৃণমূল নেতা কর্মীদের ওপর আক্রমণ করার পরেও কোনও ব্যবস্থা নিচ্ছে না স্থানীয় প্রশাসন। তিনি বলেন, 'এখনও পর্যন্ত ১০০ টিরও বেশি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে থানায়। কিন্তু কোনও ক্ষেত্রে কোনও রকমের ব্যবস্থা নেয়নি পুলিশ।' তৃণমূল নেতা সায়নী ঘোষকে গ্রেফতার প্রসঙ্গে তিনি বলেন, 'সায়নী ঘোষ ত্রিপুরা রাস্তায় খেলা হবে বলেছিলেন। তাই তাঁকে গ্রেফতার করা হয়েছে।' অভিষেকের পালটা প্রশ্ন, তাহলে বিধানসভা নির্বাচনের আগে পশ্চিমবাংলায় গিয়েও প্রধানমন্ত্রী এবং স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বহুবার বলেছিলেন 'খেলা হবে'। তাহলে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে না কেন?

বন্ধ করুন