বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > শান্তি আলোচনার জল্পনার মধ্যে আলফার গঠনে বড় বদল

অসম সরকারের সঙ্গে শান্তি আলোচনা নিয়ে নানা জল্পনা চলছিল। তার মধ্যেই নিষিদ্ধ সংগঠন আলফার খোলনলচে বদলে ফেলা হল। রবিবার এব্য়াপারে আলফার তরফে বার্তা দেওয়া হয়েছে। বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমের দফতরে প্রেস বিজ্ঞপ্তি পাঠিয়েছে আলফা। সুপ্রিম কাউন্সিলের প্রধান হিসাবে কমান্ডার ইন চিফ পরেশ বড়ুয়াই থাকছেন। তবে তিনটি নতুন কাউন্সিল তৈরি করা হয়েছে। তবে আলফার মিলিটারি শাখা অপরিবর্তিত থাকছে।

 তবে সংগঠনগতভাবে কেন এই পরিবর্তন করা হয়েছে সেব্যাপারে অবশ্য সংক্ষিপ্ত বার্তায় বিশেষ কিছু জানানো হয়নি। এদিকে সাধারণত আলফার দুটি শাখা রয়েছে। একটি মিলিটারি শাখা ও অপরটি রাজনৈতিক শাখা। তবে নতুন কাউন্সিল তৈরির পর রাজনৈতিক শাখার পরিস্থিতি কী হবে সেব্যাপারেও পরিষ্কারভাবে কিছু জানানো হয়নি।

এদিকে এই সুপ্রিম কাউন্সিলে স্বঘোষিত জেনারেল পরেশ বড়ুয়া ও স্বঘোষিত লেফটেনান্ট জেনারেল মাইকেল অসম ও নয়ন অসম থাকছেন। এদিকে চলতি বছরের মে মাস থেকে আলফার সঙ্গে সরকারের শান্তি আলোচনা হতে পারে বলে নানা জল্পনা ছড়িয়েছিল। এদিকে অসমের সার্বভৌমত্বের প্রসঙ্গেও আলোচনা করতে চেয়েছিল আলফা। কিন্তু সার্বভৌমত্বের প্রসঙ্গে আলোচনা কার্যত নাকচ করে দিয়েছে কেন্দ্র ও অসম সরকার।

 এদিকে করোনা পরিস্থিতিতে গত মে মাস পর্যন্ত অস্ত্র বিরতির কথা ঘোষণা করেছিল আলফা। সেটি অগস্ট পর্যন্ত সম্প্রসারিত করা হয়েছিল। তবে তাৎপর্যপূর্ণভাবে ১৯৭৯ সালে আলফার প্রতিষ্ঠিত হওয়ার পরে এই প্রথম তারা স্বাধীনতা দিবসের অনুষ্ঠান বয়কট করেনি।

 

সরকারের সঙ্গে শান্তি আলোচনা নিয়ে নানা জল্পনা চলছিল। তার মধ্যেই নিষিদ্ধ সংগঠন আলফার খোলনলচে বদলে ফেলা হল। রবিবার এব্য়াপারে আলফার তরফে বার্তা দেওয়া হয়েছে। বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমের দফতরে প্রেস বিজ্ঞপ্তি পাঠিয়েছে আলফা। সুপ্রিম কাউন্সিলের প্রধান হিসাবে কমান্ডার ইন চিফ পরেশ বড়ুয়াই থাকছেন। তবে তিনটি নতুন কাউন্সিল তৈরি করা হয়েছে। তবে আলফার মিলিটারি শাখা অপরিবর্তিত থাকছে।

 তবে সংগঠনগতভাবে কেন এই পরিবর্তন করা হয়েছে সেব্যাপারে অবশ্য সংক্ষিপ্ত বার্তায় বিশেষ কিছু জানানো হয়নি। এদিকে সাধারণত আলফার দুটি শাখা রয়েছে। একটি মিলিটারি শাখা ও অপরটি রাজনৈতিক শাখা। তবে নতুন কাউন্সিল তৈরির পর রাজনৈতিক শাখার পরিস্থিতি কী হবে সেব্যাপারেও পরিষ্কারভাবে কিছু জানানো হয়নি।

এদিকে এই সুপ্রিম কাউন্সিলে স্বঘোষিত জেনারেল পরেশ বড়ুয়া ও স্বঘোষিত লেফটেনান্ট জেনারেল মাইকেল অসম ও নয়ন অসম থাকছেন। এদিকে চলতি বছরের মে মাস থেকে আলফার সঙ্গে সরকারের শান্তি আলোচনা হতে পারে বলে নানা জল্পনা ছড়িয়েছিল। এদিকে অসমের সার্বভৌমত্বের প্রসঙ্গেও আলোচনা করতে চেয়েছিল আলফা। কিন্তু সার্বভৌমত্বের প্রসঙ্গে আলোচনা কার্যত নাকচ করে দিয়েছে কেন্দ্র ও অসম সরকার।

 এদিকে করোনা পরিস্থিতিতে গত মে মাস পর্যন্ত অস্ত্র বিরতির কথা ঘোষণা করেছিল আলফা। সেটি অগস্ট পর্যন্ত সম্প্রসারিত করা হয়েছিল। তবে তাৎপর্যপূর্ণভাবে ১৯৭৯ সালে আলফার প্রতিষ্ঠিত হওয়ার পরে এই প্রথম তারা স্বাধীনতা দিবসের অনুষ্ঠান বয়কট করেনি।

|#+|

 

 

 

 

 

 

 

 

 

বন্ধ করুন