বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > মুকুল রায়ের মাথার ছাদ কেড়ে নিচ্ছে কেন্দ্রীয় সরকার, জারি হলো নোটিশ
মুকুল রায়। ফাইল ছবি
মুকুল রায়। ফাইল ছবি

মুকুল রায়ের মাথার ছাদ কেড়ে নিচ্ছে কেন্দ্রীয় সরকার, জারি হলো নোটিশ

  • নয়াদিল্লির এস্টেট ডিরেক্টরেটের অধিকর্তাকে এই নোটিশ পাঠানো হয়েছে রাজ্যসভার সচিবালয়ের পক্ষ থেকে।

এবার মুকুল রায়ের মাথার ছাদ কেড়ে নিতে নোটিশ জারি করেছে কেন্দ্রীয় সরকার। বিজেপি ছাড়ার পর এটাই মুকুলের বিরুদ্ধে প্রথম পদক্ষেপ। এখন মুকুল রায় নয়াদিল্লিতে রয়েছেন। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় থেকে শুরু করে তৃণমূল কংগ্রেসের ২২ জন সাংসদই এখন নয়াদিল্লিতে রয়েছেন। তার মধ্যেই আজ, বুধবার রাজ্যসভার সচিবালয় থেকে নোটিশ জারি করা হয়েছে। সেখানে মুকুল রায় যে সরকারি ফ্ল্যাটে অতিথি হিসাবে আছেন, তা অবিলম্বে খালি করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

নয়াদিল্লির এস্টেট ডিরেক্টরেটের অধিকর্তাকে এই নোটিশ পাঠানো হয়েছে রাজ্যসভার সচিবালয়ের পক্ষ থেকে। এই ফ্ল্যাটটি এবার বিজেপির রাজ্যসভার সদস্য স্বপন দাশগুপ্তকে বরাদ্দ করতেও নোটিশে উল্লেখ করা হয়েছে। এখন বিজেপিতে আর নেই মুকুল রায়। তাই তাঁকে আর ওখানে থাকতে দেওয়া যায় না। এই কথা নোটিশে উল্লেখ না থাকলেও আখেরে বিষয়টা তেমনই বলে মনে করছেন রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকরা।

নয়াদিল্লির সাউথ অ্যাভিনিউয়ের আবাসনের ১৮১ নম্বর ফ্ল্যাটটি মুকুল রায়কে বরাদ্দ করা হয়েছিল। গেরুয়া শিবিরে নাম লেখানোর পর তাঁকে এই ফ্ল্যাটটি বরাদ্দ করা হয়। কিন্তু তিনি আবার পুরনো দলে ফিরে গিয়েছেন। তাই ফ্ল্যাটটি নিয়ে নেওয়া হচ্ছে বলে খবর। সেখানে স্বপন দাশগুপ্তকে এই ফ্ল্যাট বরাদ্দ করতে বলা হয়েছে। সাংসদদের এই আবাসনের ফ্ল্যাট বরাদ্দ করা হয়। সেখানে প্রাক্তন সাংসদ তথা বিজেপির সর্বভারতীয় সহ–সভাপতি পদে ছিলেন মুকুল রায়। তাই তাঁকে ফ্ল্যাটটি বরাদ্দ করা হয়েছিল। এই সিদ্ধান্তে রাজধানীতে আলোচনা তুঙ্গে উঠেছে। সোশ্যাল মিডিয়ায় অনেকে লিখেছেন, ‘‌দোস্ত দোস্ত না রাহা’‌।

বন্ধ করুন