বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > ষাটের দশক থেকে জবরদখল করে রাখা জায়গায় সেতু বানাচ্ছে চিন, দাবি ভারতের
ছয়ের দশক থেকে জবরদখল করে রাখা এলাকায় সেতু নির্মাণ করছে চিন। দাবি ভারতের। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য রয়টার্স)

ষাটের দশক থেকে জবরদখল করে রাখা জায়গায় সেতু বানাচ্ছে চিন, দাবি ভারতের

সূত্র উদ্ধৃত করে সংবাদসংস্থা পিটিআই জানিয়েছে, প্যাংগং সো লেকের কাছে কৌশলগত অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ এলাকায় সেই দ্বিতীয় সেতু গড়ে তুলছে চিন। সেই প্রেক্ষিতে ভারত জানিয়েছে, ছয়ের দশক থেকে জবরদখল করে রাখা এলাকায় সেতু নির্মাণ করছে বেজিং।

ছয়ের দশক থেকে জবরদখল করে রাখা এলাকায় সেতু নির্মাণ করছে চিন। প্যাংগং সো লেকের কাছে চিনের দ্বিতীয় সেতুর প্রসঙ্গে এমনই দাবি করল ভারত। সেইসঙ্গে নয়াদিল্লির বার্তা, অবৈধভাবে ভারতীয় ভূখণ্ডের একাংশ দখল করে রাখার বিষয়টি কোনওদিনই মেনে নেওয়া হয়নি।

শুক্রবার সাংবাদিক বৈঠকে ভারতের বিদেশ মন্ত্রকের মুখপাত্র অরিন্দম বাগচি বলেন, ‘আগের সেতুর সঙ্গে প্যাংগং লেকের কাছে চিনের আরও একটি সেতু তৈরির রিপোর্ট দেখেছি আমরা।’ 

আরও পড়ুন: Bridge By PLA Near Pangong: লাদাখ সীমান্তে ফের চিনা বাড়বাড়ন্ত! প্যাংগঙের কাছে বড় সেতু নির্মাণ করছে PLA

তিনি আরও বলেন, ‘সেই সেতুগুলি এমন জায়গায় তৈরি করা হয়েছে, যা ছয়ের দশক থেকে অবৈধভাবে চিনের দখলে আছে।’ সঙ্গে বিদেশ মন্ত্রকের মুখপাত্র বলেছেন, ‘আমাদের ভূখণ্ডে এরকম জবরদখলের বিষয়টি না কখনও মেনে নেওয়া হয়েছে, না কখনও চিনের অন্যায় দাবি বা এরকম নির্মাণকাজ মেনে নেওয়া হবে।’

আরও পড়ুন: পূর্ব লাদাখে আবার ব্রিজ তৈরি করছে চিন? নজর রাখছে ভারত: MEA

সূত্র উদ্ধৃত করে সংবাদসংস্থা পিটিআই জানিয়েছে, প্যাংগং সো লেকের কাছে কৌশলগত অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ এলাকায় সেই দ্বিতীয় সেতু গড়ে তুলছে চিন। বিষয়টি নিয়ে ভারতের বিদেশ মন্ত্রকের মুখপাত্র বলেন, ‘আমরা একাধিকবার স্পষ্ট করে দিয়েছি যে ভারতে অখণ্ড অংশ হল কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল জম্মু ও কাশ্মীর এবং লাদাখ। আমরা আশা করি যে ভারতের সার্বভৌমত্ব এবং আঞ্চলিক অখণ্ডতার বিষয়টিকে সম্মান জানাবে অন্য দেশও।’

বন্ধ করুন