বাড়ি > ঘরে বাইরে > জিএসটি বাবদ রাজ্যকে ২ মাসের ক্ষতিপূরণ মঞ্জুর কেন্দ্রের
অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমন বার বার আশ্বাস দিয়েছেন যে, ১৪% হারে রাজ্যের প্রাপ্ত ক্ষতিপূরণ বাবদ টাকা মিটিয়ে দেওয়া হবে।
অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমন বার বার আশ্বাস দিয়েছেন যে, ১৪% হারে রাজ্যের প্রাপ্ত ক্ষতিপূরণ বাবদ টাকা মিটিয়ে দেওয়া হবে।

জিএসটি বাবদ রাজ্যকে ২ মাসের ক্ষতিপূরণ মঞ্জুর কেন্দ্রের

চার মাসের পরিবর্তে জিএসটি বাবদ শুল্ক খাতে লোকসানের জেরে ২ মাসের ক্ষতিপূরণ হিসেবে রাজ্যগুলির জন্য ৩৫,২৯৮ কোটি টাকা মঞ্জুর করল কেন্দ্র।

জিএসটি বাবদ শুল্ক খাতে লোকসানের জেরে ২ মাসের ক্ষতিপূরণ হিসেবে রাজ্যগুলির জন্য ৩৫,২৯৮ কোটি টাকা মঞ্জুর করল কেন্দ্র। যদিও রাজ্যের দাবি, ৪ মাসের বকেয়া টাকা দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েও কথা রাখেনি অর্থমন্ত্রক।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক অর্থমন্ত্রকের এক আধিকারিক জানিয়েছেন, আপাতত অগস্ট ও সেপ্টেম্বর মাসের ক্ষতিপূরণের অর্থ দেওয়া হয়েছে। তবে এখনও বাকি রয়েছে অক্টোবর ও নভেম্বর মাসের ক্ষতিপূরণের টাকা।

এক অ-বিজেপি রাজ্যের অর্থমন্ত্রী অবশ্য জানিয়েছেন, ‘আমরা চার মাসের ক্ষতিপূরণের অর্থ চেয়েছিলাম। অর্থনৈতিক মন্দার কারণে রাজ্যে বড়সড় ঘাটতি দেখা দিয়েছে। কেন্দ্র কোনও দয়া করছে না। আইন অনুযায়ী, রাজ্যকে ক্ষতিপূরণ দিতে বাধ্য কেন্দ্রীয় সরকার। নিজের প্রতিশ্রুতি কেন্দ্রকেই রাখতে হবে।’

আর এক অ-বিজেপি রাজ্যের অর্থমন্ত্রী জনান, ‘আগামী বুধবার জিএসটি কাউন্সিলের বৈঠকে ক্ষতিপূরণ দেওয়ায় নজিরবিহীন দেরি করার বিষয়টি তুলতে হবে।’

জিসটি আইন অনুযায়ী, রাজ্যগুলির শুল্ক খাতে ক্ষতির পরিমাণ গণনার পরে প্রতি দুই মাসের শেষ ক্ষতিপূরণ বাবদ অর্থ কেন্দ্রকে দিতে হবে। এই খাতে শেষ কিস্তি দেওয়ার পরে বার্ষিক হিসেব সম্পূর্ণ করা হবে। অপর্যাপ্ত সেস আদায়ের কারণ দেখিয়ে এ যাবত ক্ষতিপূরণের টাকা দিতে বরাবরই দেরি করেছে কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রক।

কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমন অবশ্য বার বার আশ্বাস দিয়েছেন যে, ১৪% হারে রাজ্যের প্রাপ্ত ক্ষতিপূরণ বাবদ টাকা মিটিয়ে দেওয়া হবে। চলতি মাসের গোড়ায় এইচটি সামিটে এসেও তিনি এই আশ্বাসের পুনরাবৃত্তি করেন।

বন্ধ করুন