প্রতীকি ছবি (REUTERS)
প্রতীকি ছবি (REUTERS)

এপ্রিলেই আসছে করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন, জানাল চিনের স্বাস্থ্য বিভাগ

  • চিনা সংস্থাটির দাবি, ভ্যাকসিন তৈরি হলে প্রথমে তা পৌঁছে দেওয়া হবে হাসপাতালগুলিতে। তার পর তা বাজারে ছাড়া হবে।

এপ্রিলেই তৈরি হয়ে যাবে করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন। এমনটাই দাবি করল চিনের ন্যশনাল হেলথ কমিশন। তাদের দাবি, এক মাসের মধ্যে করোনাভাইরাসের প্রতিষেধক আবিষ্কার করে ফেলবে তারা।

চিনের ন্যাশনাল হেলথ কমিশনের তরফে জানানো হয়েছে, ইতিমধ্যে করোনাভাইরাসের প্রতিষেধক তৈরির কাজ অনেকটা এগিয়েছে। নতুন এই ভাইরাসের চরিত্র বোঝার চেষ্টা করছেন গবেষকদের অন্তত ৫টি দল। ৫টি আলাদা পদ্ধতিতে ভাইরাসটির ভ্যাকসিন তৈরির চেষ্টা চালাচ্ছেন তাঁরা।

চিনা সংস্থাটির দাবি, ভ্যাকসিন তৈরি হলে প্রথমে তা পৌঁছে দেওয়া হবে হাসপাতালগুলিতে। তার পর তা বাজারে ছাড়া হবে। তবে তা হতে আরও কয়েকমাস লেগে যেতে পারে বলে অনুমান বিশেষজ্ঞদের।

ইতিমধ্যে চিন-সহ গোটা বিশ্বে প্রায় ৪০০০ মানুষের প্রাণ নিয়েছে করোনাভাইরাস। রোজই লাফিয়ে বাড়ছে মৃতের সংখ্যা। গোটা বিশ্বে আক্রান্তের সংখ্যা কয়েক লক্ষ। ভারতে ৩১ জনের দেহে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ মিলেছে। এর মধ্যে ১৬ জন বিজেশি নাগরিক।

করোনাভাইরাস মোকাবিলায় ইতিমধ্যে কোমর বেঁধে নেমেছে বিশ্বের প্রায় সমস্ত দেশ। সংক্রমণ রুখতে বিদেশ যাত্রায় জারি হয়েছে নানা বিধিনিষেধ। তবে তাতেও কাটছে না আতঙ্ক। প্রতিষেধক বেরোলে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসবে বলে অনুমান বিশেষজ্ঞদের।



বন্ধ করুন