বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > কোভ্যাক্সিনের দাম : ডোজপিছু ৬০০ টাকা রাজ্যের জন্য, বেসরকারি হাসপাতালে ১,২০০ টাকা

এবার রাজ্য সরকার এবং বেসরকারি হাসপাতালকে ৫০ শতাংশ টিকা দেওয়ার ঘোষণা করল কোভ্যাক্সিন। সেজন্য রাজ্য সরকারকে ডোজপিছু ৬০০ টাকা দিতে হবে। অন্যদিকে বেসরকারি হাসপাতালকে প্রতি ডোজের জন্য ১,২০০ টাকা খরচ করতে হবে।

শনিবার কোভ্যাক্সিনের প্রস্তুতাকারী সংস্থা ভারত বায়োটেকের তরফে বিবৃতি জারি করে জানানো হয়, ডোজপ্রতি ১৫০ টাকায় কেন্দ্রীয় সরকারকে করোনা টিকা দেওয়া হচ্ছে। এবার কেন্দ্রকে ৫০ শতাংশের বেশি টিকা সরবরাহ করা হবে। বাকি টিকা রাজ্য সরকার, বেসরকারি হাসপাতালে বিক্রি করা হবে। রফতানি করা হবে বিদেশেও। রাজ্য সরকারকে ডোজপিছু ৬০০ টাকা কোভ্যাক্সিন বিক্রি করবে ভারত বায়োটেক। রাজ্য সরকারের দ্বিগুণ দামে বেসরকারি হাসপাতালগুলিকে কোভ্যাক্সিন কিনতে হবে। একইসঙ্গে বিবৃতিতে ভারত বায়োটেকের তরফে জানানো হয়েছে, তৃতীয় পর্যায়ের ট্রায়ালে ৭৮ শতাংশ কার্যকারিতার প্রমাণ মিলেছে। আর গুরুতর অসুস্থতার বিরুদ্ধে ১০০ শতাংশ কার্যকারিতা প্রমাণ পাওয়া গিয়েছে। কমেছে হাসপাতালে ভরতির সম্ভাবনা।

তবে কোভিশিল্ডের থেকে কোভ্যাক্সিনের দাম অনেকটা বেশি পড়ছে। গত বুধবার সেরাম ইনস্টিটিউট অফ ইন্ডিয়া (এসআইআই) তরফে জানানো হয়েছিল, ডোজপিছু কোভিশিল্ড কেনার জন্য রাজ্য সরকারগুলিকে ৪০০ টাকা দিতে হবে। বেসরকারি হাসপাতালের জন্য সেই খরচ পড়বে ৬০০ টাকা। এমনিতে বর্তমানে টিকা ক্রয়ের চুক্তি অনুযায়ী কেন্দ্রীয় সরকারকে ডোজপিছু ১৫০ টাকায় (কর বাদে) টিকা দিচ্ছে সেরাম। অর্থাৎ কেন্দ্রের তুলনায় বেশি টাকা দিয়ে কোভিশিল্ড কিনতে হবে রাজ্যগুলিকে। পাশাপাশি বর্তমানে টিকাকরণের দ্বিতীয় দফায় ডোজপিছু ২৫০ টাকায় বেসরকারি হাসপাতালগুলিকে প্রতিষেধক প্রদান করা হচ্ছে। তার ফলে আমজনতাকে টিকার জন্য বাড়তি টাকা গুণতে হবে বলে ধারণা সংশ্লিষ্ট মহলের।

বন্ধ করুন