বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > মেট্রো স্টেশনে মহিলাকে গোপনাঙ্গ দেখানোর অভিযোগ, সাহায্য চাইতে ফিরিয়ে দিল পুলিশ!
ফাইল ছবি: মিন্ট (Mint)

মেট্রো স্টেশনে মহিলাকে গোপনাঙ্গ দেখানোর অভিযোগ, সাহায্য চাইতে ফিরিয়ে দিল পুলিশ!

মহিলার অভিযোগ, পথনির্দেশ জানতে চাওয়ার অজুহাতে এক ব্যক্তি তাঁর মুখের সামনে গোপনাঙ্গ ফ্ল্যাশ করে। এরপর স্টেশনের পুলিশকর্মীদের সাহায্য চাইতে গেলে উল্টে তাঁকেই দোষারোপ করেন তাঁরা। প্রশ্ন করা হয়, ‘চেঁচাননি কেন?’

দিল্লির জোরবাগ মেট্রো স্টেশনে যৌন হয়রানির শিকার এক মহিলা। তাঁর অভিযোগ, পথনির্দেশ জানতে চাওয়ার অজুহাতে এক ব্যক্তি তাঁর মুখের সামনে গোপনাঙ্গ ফ্ল্যাশ করে। এরপর স্টেশনের পুলিশকর্মীদের সাহায্য চাইতে গেলে উল্টে তাঁকেই দোষারোপ করেন তাঁরা।

মহিলার অভিযোগ:

লোকটা মেট্রোয় আমার সঙ্গেই আসছিল। সেই সময় একটি ঠিকানা দিয়ে কীভাবে যেতে হবে, তা জানতে চেয়ে সাহায্য চেয়েছিল। আমি তাকে সাহায্য করলাম। এরপর স্টেশনে নেমে ক্যাব বুক করার জন্য আমি প্ল্যাটফর্মে বসেছিলাম। লোকটিও সেই একই স্টেশনে নেমেছিল। আবারও ঠিকানা জানার অজুহাতে আমার সামনে এসে দাঁড়াল।

আমি ভাবলাম তার বুঝি সত্যিই সাহায্যের প্রয়োজন আছে।

একটা ফাইলে, কাগজে ঠিকানা লেখা। আমি তার হাত থেকে সেটাই দেখছিলাম। এমন সময়ে আমি দেখলাম, সে তার অনাবৃত লিঙ্গটি আমার মুখে চাপানোর চেষ্টা করছে। পর পর তিনবার এমনটা করার চেষ্টা করে।

কোনওমতে দৌড়ে গিয়ে প্ল্যাটফর্মেরই একজন পুলিশকর্মীর কাছে গেলাম। কিন্তু তিনি সাহায্য করতে অস্বীকার করেন। উল্টে আমাকে উপরে গিয়ে অভিযোগ করতে বলেন।

পুলিশকর্মীদের আজব যুক্তি

এরপর ওই মহিলা কোনওমতে উপরে যান ও অন্যান্য পুলিশকর্মীদের সঙ্গে কথা বলেন। তাঁদের কাছে সিসিটিভি ফুটেজ দেখতে চান। সিসিটিভি ফুটেজ দেখেই ওই ব্যক্তিকে চিনে ফেলেন বলে দাবি মহিলার।

তাঁর দাবি, এরপরেও তাঁকেই দোষারোপ করেন পুলিশকর্মীরা। তিনি কেন চেঁচাননি, সেই প্রশ্ন করেন তাঁরা। পুলিশকর্মীরা বলেন, এখন লোকটা পালিয়ে গিয়েছে। আর ধরা সম্ভব নয়। আগেই চেঁচানো উচিত্ ছিল।

টুইটে তিনি দিল্লি মেট্রোর পুলিশ এবং দিল্লি পুলিশকে ট্যাগ করেন। তিনি জানান, গোটা ঘটনায়, এবং প্রশাসনের গা-ছাড়া ভাবে তিনি শঙ্কিত। বাড়ি থেকে বের হতে ভয় পাচ্ছেন।

তাঁর টুইটে দিল্লি মেট্রো রিপ্লাই করে ঘটনার বিবরণ জানতে চায়

ডেপুটি কমিশনার অফ পুলিশ (রেলওয়ে) হরেন্দ্র কুমার সিং বলেন, 'তাঁর(মহিলা) সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়েছে। তাঁর বয়ান রেকর্ড করা হচ্ছে। আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। যে পুলিশকর্মীরা তাঁকে সাহায্য না করে ফিরিয়ে দিয়েছিলেন, তাঁদেরও সিসিটিভি দেখে চিহ্নিত করা হবে।'

দিল্লি মেট্রোর মুখপাত্র অনুজ দয়াল বলেন, 'দিল্লি মেট্রো মহিলা যাত্রীদের নিরাপত্তার বিষয়টিকে খুব গুরুত্ব সহকারে নেয়। আইন-শৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রকদের সমস্ত সম্ভাব্য সহযোগিতা করা হচ্ছে, যাতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া যায়।'

আগেও এমন হয়েছে

২০২০ সালে গুরুগ্রাম স্টেশনে মেট্রোর মধ্যেই এক ২৮ বছর বয়সী ব্যক্তি এক যুবতীকে গোপনাঙ্গ দেখিয়ে হয়রানি করে। ঘটনার ছবি তুলে রেখেছিলেন এক সহযাত্রী। সেই মারফত ওই ব্যক্তিকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

বন্ধ করুন