বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > ‘নেপালে যেতে তো অনুমতি লাগে না’, বিদেশ সফর নিয়ে মমতার দাবি খণ্ডন বিদেশ মন্ত্রকের
মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। (PTI)

‘নেপালে যেতে তো অনুমতি লাগে না’, বিদেশ সফর নিয়ে মমতার দাবি খণ্ডন বিদেশ মন্ত্রকের

  • ১০ থেকে ১২ ডিসেম্বর নেপাল সফরে যাওয়ার কথা ছিল মমতার৷ তবে নবান্ন দাবি করে, বিদেশমন্ত্রকের তরফে নাকি সেই সফরের অনুমতি দেওয়া হয়নি করোনা পরিস্থিতির কথা বলে৷

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেপাল সফরের জন্য নাকি অনুমতি দেয়নি বিদেশমন্ত্রক৷ সম্প্রতি এমনই দাবি করা হয়েছিল তৃণমূলের তরফে৷ এই সংক্রান্ত খবর প্রকাশ হতেই এই বিষয়ে মুখ খুলল বিদেশ মন্ত্রক৷ সাফ জানিয়ে দেওয়া হয়, নেপালে যাওয়ার জন্য ভিসা বা কেন্দ্রের অনুমতি, কোনোওটারই প্রয়োজনই নেই। বিদেশ মন্ত্রক সূত্রের দাবি, কোনও অনুমোদন দিতে অস্বীকারও করেনি বিদেশ মন্ত্রক। শুক্রবার সন্ধ্যায় অথবা শনিবার সকালেই মুখ্যমন্ত্রীর রওনা হওয়ার কথা ছিল। তবে করোনা পরিস্থিতির কারণে বিদেশমন্ত্রক সে অনুমতি দেয়নি বলে জানায় নবান্ন। যদিও সেই দাবি উড়িয়ে দিল কেন্দ্র।

উল্লেখ্য, নেপালের শাসকদল নেপালি কংগ্রেস মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে আমন্ত্রণ জানিয়েছিল। তবে শুধু মমতা নয়, বিজেপি সহ দেশের একাধিক রাজনৈতিক দলকেই আমন্ত্রণ জানিয়েছিল নেপাল কংগ্রেস। নেপালের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী তথা নেপালি কংগ্রেসের সভাপতি শের বাহাদুর দেউবা চিঠি লিখেছিলেন তৃণমূল নেত্রীকে৷ ১০ থেকে ১২ ডিসেম্বর নেপাল সফরে যাওয়ার কথা ছিল মমতার৷ তবে নবান্ন দাবি করে, বিদেশমন্ত্রকের তরফে নাকি সেই সফরের অনুমতি দেওয়া হয়নি করোনা পরিস্থিতির কথা বলে৷ 

এর আগে মমতাকে চিন এবং ইতালি সফরেও অনুমতি দেওয়া হয়নি। কেন্দ্রীয় সরকার এই নিয়ে তিনবার এমন ঘটনা ঘটাল। আগে রোম সফরে অনুমতি দেয়নি। তারপর চিন সফর বাতিল হয়েছিল বিদেশ মন্ত্রকের ছাড়পত্র না মেলায়। আর এবার নেপাল সফরের ক্ষেত্রেও কেন্দ্রের অনুমতি মেলেনি বলে দাবি করা হয়েছিল। যা নিয়ে জোর সমালোচনা শুরু হতেই এই দাবি উড়িয়ে দিল বিদেশ মন্ত্রক। 

 

 

 

 

 

বন্ধ করুন