বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > কোথায় কোথায় দেখা গেল 'রিং অফ ফায়ার'? দেখুন বলয়গ্রাস সূর্যগ্রহণের বিভিন্ন রূপ

কোথায় কোথায় দেখা গেল 'রিং অফ ফায়ার'? দেখুন বলয়গ্রাস সূর্যগ্রহণের বিভিন্ন রূপ

  • ২০২২ সালের প্রথম সূর্যগ্রহণ দেখা গেল আজকে। ১১ টা ৪২ মিনিট থেকে শুরু হয় গ্রহণ। ৩টে ৩০ মিনিট নাগাদ সম্পূর্ণ বলয়গ্রাস সম্পন্ন হয়। গ্রহণের মূল সময় ছিল বিকেল ৪ টে ১৬ মিনিটে। বলয়গ্রাসের মুহূর্ত ছিল এই ক্ষণে। গ্রহণ চলে সন্ধে ৬ টা ৪৫ মিনিট পর্যন্ত।
ভারতে লাদাখ ও অরুণাচল প্রদেশের বাসিন্দারা বলয়গ্রাস সূর্যগ্রহণের সাক্ষী ছিলেন। ৫.৫২ টা নাগাদ আংশিক সূর্যগ্রহণের সাক্ষী থাকেন এখানকার বাসিন্দারা। অরুণাচলের দিবাং অভয়ারণ্য অঞ্চল এলাকা থেকে এই সূর্য গ্রহণের শেষ কিছু মুহূর্ত দেখা যায়। ছবি : কানাডার ওন্টারিও। সৌজন্যে রয়টার্স। (via REUTERS)
1/5ভারতে লাদাখ ও অরুণাচল প্রদেশের বাসিন্দারা বলয়গ্রাস সূর্যগ্রহণের সাক্ষী ছিলেন। ৫.৫২ টা নাগাদ আংশিক সূর্যগ্রহণের সাক্ষী থাকেন এখানকার বাসিন্দারা। অরুণাচলের দিবাং অভয়ারণ্য অঞ্চল এলাকা থেকে এই সূর্য গ্রহণের শেষ কিছু মুহূর্ত দেখা যায়। ছবি : কানাডার ওন্টারিও। সৌজন্যে রয়টার্স। (via REUTERS)
২০২২ সালের প্রথম সূর্যগ্রহণ দেখা গেল আজকে। ১১ টা ৪২ মিনিট থেকে শুরু হয় গ্রহণ। ৩টে ৩০ মিনিট নাগাদ সম্পূর্ণ বলয়গ্রাস সম্পন্ন হয়। গ্রহণের মূল সময় ছিল বিকেল ৪ টে ১৬ মিনিটে। বলয়গ্রাসের মুহূর্ত ছিল এই ক্ষণে। গ্রহণ চলে সন্ধে ৬ টা ৪৫ মিনিট পর্যন্ত। ছবি সৌজন্যে রয়টার্স। (COLLIN GROSS via REUTERS)
2/5২০২২ সালের প্রথম সূর্যগ্রহণ দেখা গেল আজকে। ১১ টা ৪২ মিনিট থেকে শুরু হয় গ্রহণ। ৩টে ৩০ মিনিট নাগাদ সম্পূর্ণ বলয়গ্রাস সম্পন্ন হয়। গ্রহণের মূল সময় ছিল বিকেল ৪ টে ১৬ মিনিটে। বলয়গ্রাসের মুহূর্ত ছিল এই ক্ষণে। গ্রহণ চলে সন্ধে ৬ টা ৪৫ মিনিট পর্যন্ত। ছবি সৌজন্যে রয়টার্স। (COLLIN GROSS via REUTERS)
চাঁদের পাশ দিয়ে সূর্যের রশ্মি দেখা যায় যার ফলে রিঙের আকার দেখা যায়। আর সেই বলয় তৈরি হয় বলেই এই ধরনের সূর্যগ্রহণের নাম রিং অফ ফায়ার। ছবি : নিউ জার্সি। সৌজন্যে রয়টার্স (COLLIN GROSS via REUTERS)
3/5চাঁদের পাশ দিয়ে সূর্যের রশ্মি দেখা যায় যার ফলে রিঙের আকার দেখা যায়। আর সেই বলয় তৈরি হয় বলেই এই ধরনের সূর্যগ্রহণের নাম রিং অফ ফায়ার। ছবি : নিউ জার্সি। সৌজন্যে রয়টার্স (COLLIN GROSS via REUTERS)
উত্তর গোলার্ধে অবস্থিত উত্তর আমেরিকা মহাদেশ, ইউরোপ এবং মধ্য ও উত্তর এশিয়ার বিভিন্ন দেশ থেকে এই বলয়গ্রাস গ্রহণ দেখা যায়। ছবি : সেন্ট পিটারসবার্গ, রাশিয়া। সৌজন্যে পিটিআই।
4/5উত্তর গোলার্ধে অবস্থিত উত্তর আমেরিকা মহাদেশ, ইউরোপ এবং মধ্য ও উত্তর এশিয়ার বিভিন্ন দেশ থেকে এই বলয়গ্রাস গ্রহণ দেখা যায়। ছবি : সেন্ট পিটারসবার্গ, রাশিয়া। সৌজন্যে পিটিআই।
বলয়গ্রাস গ্রহণের সময় চাঁদের ব্যাস সূর্যের তুলনায় ছোট হয়। ফলে সূর্য, চাঁদ ও পৃথিবী এক সরলরেখাতে এলেও সূর্য পুরোপুরি ঢাকা পড়ে না। আর তাতেই দেখা যায় 'রিং অফ ফায়ার'। ছবি সৌজন্যে পিটিআই
5/5বলয়গ্রাস গ্রহণের সময় চাঁদের ব্যাস সূর্যের তুলনায় ছোট হয়। ফলে সূর্য, চাঁদ ও পৃথিবী এক সরলরেখাতে এলেও সূর্য পুরোপুরি ঢাকা পড়ে না। আর তাতেই দেখা যায় 'রিং অফ ফায়ার'। ছবি সৌজন্যে পিটিআই
অন্য গ্যালারিগুলি