বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > ভূমধ্যসাগরে ডুবল শরণার্থীদের নৌকা, নিখোঁজ ৪৩, উদ্ধার ১২ বাংলাদেশি
ভূমধ্যসাগরে ডুবল শরণার্থীদের নৌকা, নিখোঁজ ৪৩, উদ্ধার ১২ বাংলাদেশি। (ছবি সৌজন্য, Alliance/ROPI/Cremaschi/Insidefoto/DW)
ভূমধ্যসাগরে ডুবল শরণার্থীদের নৌকা, নিখোঁজ ৪৩, উদ্ধার ১২ বাংলাদেশি। (ছবি সৌজন্য, Alliance/ROPI/Cremaschi/Insidefoto/DW)

ভূমধ্যসাগরে ডুবল শরণার্থীদের নৌকা, নিখোঁজ ৪৩, উদ্ধার ১২ বাংলাদেশি

  • ৪৩ জন নিখোঁজ রয়েছেন৷

ভূমধ্যসাগরে ১২০ জনের বেশি শরণার্থী বহনকারী একটি নৌকা ডুবে যাওয়ার ঘটনায় ৪৩ জন নিখোঁজ রয়েছেন৷ ১২ জন বাংলাদেশি-সহ বাকিদের উদ্ধার করেছে টিউনিশিয়া৷

শুক্রবার টিউনিশিয়ার উপকূলবর্তী শহর জারজিসের কাছে পৌঁছানোর পর নৌকাটি ডুবে যায়৷ গত সপ্তাহের শুরুর দিকে লিবিয়ার জুয়ারা থেকে ইউরোপের উদ্দেশে সেটি যাত্রা করেছিল৷

রেড ক্রিসেন্টের কর্মকর্তা মুনজি সেলিম জানিয়েছেন, নৌকাটিতে ১২৭ জন অভিবাসী ছিলেন৷ কর্তৃপক্ষ ৮৪ জনকে উদ্ধারে সমর্থ্য হয়েছে৷ এখনও নিখোঁজ রয়েছেন ৪৩ জন৷ টিউনিশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, উদ্ধার হওয়া শরণার্থীদের মধ্যে ৪৬ জন সুদানি, ১৬ ইরিত্রিয়ান, ১২ বাংলাদেশি ও পাঁচজন মিশরীয় রয়েছেন৷ তাঁদের বয়স তিন থেকে ৪০-এর মধ্যে৷ তবে নিখোঁজদের মধ্যে কোন দেশের কতজন রয়েছেন সে ব্যাপারে তথ্য পাওয়া যায়নি৷ উদ্ধার হওয়া মানুষদের জারজিস বন্দরে স্থানান্তর করা হয়েছে৷ টিউনিশিয়ার দক্ষিণে আশ্রয় কেন্দ্রগুলি এরইমধ্যে শরণার্থীতে পরিপূর্ণ হয়ে গেছে বলে জানান সেলিম৷

এর আগে ২৪ জুন টিউনিশিয়ার কোস্ট গার্ড সদস্যরা একটি ডুবন্ত নৌকা থেকে ২৬৭ অভিবাসীকে উদ্ধার করেছেন৷ এর মধ্যে ২৬৪ জনই ছিলেন বাংলাদেশি৷ সাম্প্রতিক সময়ে লিবিয়া ও টিউনিশিয়া থেকে সমুদ্রপথে যাত্রার প্রবণতা বেড়েছে৷ বিভিন্ন দেশের নাগরিকরা ইউরোপে আশ্রয়ের উদ্দেশ্যে এই ঝুঁকিপূর্ণ অভিবাসনের পথ বেছে নিচ্ছেন৷ আন্তর্জাতিক অভিবাসন সংস্থা আইওএম জানিয়েছে, চলতি বছর এখন পর্যন্ত ইউরোপ পাড়ি দিতে গিয়ে প্রাণ হারিয়েছেন ৫৫০ জনেরও বেশি৷

বন্ধ করুন