বাড়ি > ঘরে বাইরে > বিগ পিকচার দেখতে আর্জি বিদেশমন্ত্রীর, চিনের জায়গা নিতে পারে ভারত, বললেন পম্পেও
এস জয়শংকর
এস জয়শংকর

বিগ পিকচার দেখতে আর্জি বিদেশমন্ত্রীর, চিনের জায়গা নিতে পারে ভারত, বললেন পম্পেও

দুই দেশের সম্পর্কের বিষয় আশাবাদী দুই নেতা। 

US India Business Council (USIBC) এর বৈঠকে দ্রুত সামনের দিকে ভারত-মার্কিন সম্পর্ককে নিয়ে যাওয়ার জন্য সওয়াল করলেন বিদেশমন্ত্রী জয়শংকর  ও আমেরিকার বিদেশসচিব মাইক পম্পেও। 

বিদেশমন্ত্রী জয়শংকর যিনি দীর্ঘদিন ধরে আমেরিকায় সুপরিচিত, তিনি বলেন যে বাণিজ্য সংক্রান্ত সমস্যাগুলি দ্রুত নিরসন করে উদ্ভাবন ও প্রযুক্তির ওপর দুই দেশের জোর দেওয়া উচিত। তিনি আমেরিকাকে প্রশংসা করেন যে তারা বহুমেরু বিশ্বে বিভিন্ন দেশের সঙ্গে কাজ করছে। শুধু যেই সব শরিকদের সঙ্গে অতীতে কাজ করেছে আমেরিকা, তার থেকে তারা বেরিয়েছে বলেই জানান জয়শংকর। 

 অনেক দিন ধরেই ঝুলে আছে ভারত-মার্কিন বাণিজ্য চুক্তি। জয়শংকর বলেন যে যত দ্রুত সমাধান হয় এই সমস্যার তত ভালো কারণ শুধু বাণিজ্য নয় অন্যান্য ক্ষেত্রেও এখন একযোগে কাজ করছে দুই দেশ। 

দুই দেশের বিগ পিকচারের কথা মাথায় রাখা উচিত বলে তিনি জানান। হালে মার্কিন রাষ্ট্রপতির সফরের সময় মিনি ডিলের কথা উঠলেও তা সম্ভব হয়নি। বাণিজ্য নিয়ে আমেরিকাকে জয়শংকর বার্তা দেন যে যারা উদীয়মান দেশ, তাদের উদ্বেগের কথাটা খেয়াল রাখা উচিত বড় শিল্পোন্নত দেশদের। 

অন্যদিকে চিনের জায়গা ভারত গ্লোবাল সাপ্লাই চেইন হিসাবে উঠে আসতে পারে বলে জানান মার্কিন বিদেশসচিব। পম্পেও বলেন যে আমেরিকা সহ বিশ্বের আস্থা জিতেছে ভারত। তবে ভারতকে নিজের দরজা বাণিজ্যের জন্য আরও খুলতে আর্জি জানান পম্পেও। তিনি বলেন দুই দেশের মানুষের সম্পর্কের বুনিয়াদ হচ্ছে ভালো কাজ করার ওপর ভিত্তি করে। আগামী জি-৭ বৈঠকে মোদীকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে বলে জানান মার্কিন বিদেশসচিব। 

ভারত যেভাবে চিনা অ্যাপ ব্যান করেছে তারও প্রশংসা করেন পম্পেও। তিনি বলেন যে বিভিন্ন ইস্যুতে আলোচনার জন্য মাঝে মাঝেই ভারতীয় নেতৃত্বের সঙ্গে আলোচনা করেন তিনি। ভারত ও মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে বন্ধুত্বের সম্পর্ক আছে বসে জানান পম্পেও। 

তিনি বলেন দুই দেশের সম্পর্ক ক্রমশ শক্তিশালী হচ্ছে। বর্তমান পরিস্থিতির সুযোগ নিয়ে আরও গভীর সহযোগিতা হবে বিশ্বের দুই সেরা গণতন্ত্রের মধ্যে বলে আশা প্রকাশ করেন মার্কিন বিদেশসচিব। 

 

বন্ধ করুন