বাংলা নিউজ > ঘরে বাইরে > 'যে কোনও ধর্মীয় আচার পালনকারীই স্বাগত সিপিআই(এম)-এ', বার্তা কেরলের দলীয় নেতার
প্রতীকী ছবি।
প্রতীকী ছবি।

'যে কোনও ধর্মীয় আচার পালনকারীই স্বাগত সিপিআই(এম)-এ', বার্তা কেরলের দলীয় নেতার

  • কেরলের রাজনীতির পটভূমিতে এই বক্তব্য একাধিক সমীকরণের দিক থেকে তাৎপর্যপূর্ণ।

'কোনও ধর্ম বা ধর্মীয় বিশ্বাসের বিরুদ্ধে সিপিআই(এম) নয়।' রবিবার কেরলের কোঝিকোডে সিপিএম নেতা কোড়িয়েরি বালাকৃষ্ণণ একথা বলেছেন। এক জেলাস্তরীয় বৈঠকে খোদ বাম নেতার মুখ থেকে ধর্মবিশ্বাস ও পার্টি সম্পর্কে একাধিক বক্তব্য উঠে আসে। তিনি বলেন, এর আগে ধর্মীয় আচার পালনকারীদের পার্টি থেকে দূরে রাখা হত। সেই নিরিখে তিনি লেনিনের প্রসঙ্গ তুলে বলেন, 'লেনিন একবার বলেছিলেন, এমনকি যাজকরাও কমিউনিস্ট পার্টিতে যোগ দিতে পারেন।'

কেরলের দাপুটে বাম কর্মী তথা রাজ্যস্তরের এই তাবড় নেতার মুখ থেকে ধর্মবিশ্বাস ও পার্টির সদস্যপদ ইস্যুতে এমন বক্তব্যে, অনেকেই মনে করছেন যে, কেরলে বাম ঘরানায় তথা সদস্যপদে কিছুটা পরিবর্তন আসছে। কোড়িয়েরি বালাকৃষ্ণণ বলেছেন, 'সিপিআইএম কোনও ধর্মাচরণে বিশ্বাসী বা যে কোনও ধর্মের মানুষের বিরুদ্ধে নয় সিপিআই(এম)। পার্টির সংবিধান কখনওই একথা বলে না , যে যাঁরা ধর্মীয় আচার পালন করেন, তাঁদের সদস্যপদ দেওয়া যাবে না। লেনিন একবার বলেছিলেন যে, এমনকি যাজকরাও কমিউনিস্ট পার্টিতে যোগ দিতে পারেন।' উল্লেখ্য, কেরলের রাজনীতির পটভূমিতে এই বক্তব্য একাধিক সমীকরণের দিক থেকে তাৎপর্যপূর্ণ। কয়েকদিন আগেই কেরলের মুসলিম লিগ ঘনিষ্ঠ সংগঠন 'সমস্ত কেরল জমায়েত সংগঠন' তারা কেরলের রাজ্য সরকারের সঙ্গে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক চায়। এদিকে, কেরলে রাজ্য ওয়াকফ বোর্ডের অ্যাপয়েন্টমেন্ট রাজ্য পাবলিক সার্ভিস কমিশনের হাতে ছেড়ে দেওয়া হয়, তখন থেকেই কার্যত মুসলিম লিগ কেরলের বাম শাসনের বিরুদ্ধে সরব হয়। তারা রাজ্যজুড়ে হড়তাল ডাকে। তবে বাম শাসিত কেরলের পিনারাজাই বিজয়ন সরকার বিষয়টি নিয়ে 'সমস্ত কেরল জমায়েত সংগঠন' এর সঙ্গে আলোচনায় বসে। ধীরে ধীরে গলে যায় বরফ। তারপরই কেরলের সিপিএম-এর স্টেট সেক্রেটারির তরফে এই বার্তা কার্যত সেখানের রাজনৈতিক প্রেক্ষাপট ঘিরে একাধিক বক্তব্য পেশ করছে।

এদিকে, কেরলের বুকে মুসলিম লিগ কংগ্রেসের জোটসঙ্গী। যারা কেরলে বাম বিরোধিতায় সোচ্চার। তাদের মতে পার্টিলাইন থেকে সরে যাচ্ছে কেরলের সিপিআইএম। আর এভাবে তারা খুব একটা সুবিধা করতে পারবে না। কেরলের মুসলিম লিগের তরফে পিকে কুনহালিকুট্টি বলেছেন,' সিপিআই(এম) লিগকে দুর্বাল করার জন্য বিভিন্ন তাস সামনে রাখছে। ' তবে তাতে সিপিআইএম সাফল্য পাবে না বলে জানান দিয়েছে লিগ। তবে গোটা বিষয়টি নিয়ে কেরলের সাহিত্যিক উমেশ বাবু উষ্মা প্রকাশ করেছেন। তিনি বলেছেন, ' শুধু ভোট ধরে রাখতে পার্টি যে আদর্শ থেকে সরে যাচ্ছে তার জন্য এটা আরও একটা উদাহরণ। এটা কেরিয়ার-ইস্ট ও কর্পোরেট পার্টি হয়ে যাচ্ছে, এরা কে রেলের মতো বড় প্রজেক্টের দিকে দৌড়চ্ছে, যার জেরে বহু মানুষ ঘর ছাড়া হবেন পরিবেশের ভারসাম্য নষ্ট হবে। '

বন্ধ করুন